বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০
বুধবার, ১৫ই আশ্বিন ১৪২৭
সর্বশেষ
 
 
শীতে চুলের যত্ন
প্রকাশ: ০১:৪৭ pm ১৫-১২-২০১৯ হালনাগাদ: ০১:৪৭ pm ১৫-১২-২০১৯
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


শীতে কেবল ত্বক নয়, বাতাসের আদ্রতার কারণে চুল খারাপ হয়ে যায়। শুষ্ক ও রুক্ষ হয়ে ঝরে পরে। তার উপর তো আছেই বাইরের ধুলো-বালি। শীতকালে কমবেশি এই সমস্যা সকলের হয়। চুল শুষ্ক হয়ে ঝরে পড়া তো রয়েছে তার সঙ্গে আবার হাজির হয় খুসকি নামক আরও এক সমস্যা। যার হাত থেকে মুক্তি পাওয়া খুব দুষ্কর ব্যাপার।

সমস্যা থাকলে তো তার সমাধান থাকবেই। আর তাই আপনার নিষ্প্রাণ চুলে প্রাণ ফেরাতে মাথায় রাখুন বেশ কয়েকটি বিষয় আর আপনার চুলকে করে তুলুন কোমল ও ঝলমলে। তাই ভেষজ আর ঘরোয়া কিছু উপাদান দিয়ে আপনার নিষ্প্রাণ চুলে ফিরিয়ে আনুন প্রাণ। দেখে নিন ঘরোয়া কিছু উপাদানের যাদু।

অ্যালোভেরা মাস্ক: এই মাস্কের জন্য ১\৪ কাপ অ্যালোভেরা জেলের সঙ্গে ১টি পাতিলেবুর অর্ধেক জুস ও ৩-৪ ফোঁটা অরগানিক অয়েল একটি পাত্রে মিশিয়ে নিন। মাথার ত্বকে এই মিশ্রণ ভালো করে ম্যসাজ করুন। ১৫-২০মিনিট পর ভালো করে শ্যাম্পু দিয়ে মাথা ধুলে ফেলুন৷ সপ্তাহে ৩ দিন ব্যবহার করুন আর পরিবর্তন দেখুন নিজেই।

কলা, দুধ ও মধু: চুলের ঘনত্ব অনুযায়ী পাকা কলা নিয়ে, তাতে মেশান ২ টেবিল চামচ মধু ও আধা কাপ কাঁচা দুধ। একটি পাত্রে মিশিয়ে পেস্ট বানিয়ে ফেলুন। চুলে মাস্কটি লাগিয়ে ২০-৩০ মিনিট অপেক্ষা করে শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। চুলের ‘হেলদি ফুড’ বলা যায় এই উপকরণগুলিকে। মধু, দুধ আর কলার চুলের হারানো উজ্জ্বলতাকে ফিরিয়ে আনবে আর চুল হেলদি করবে। সপ্তাহে একবার ব্যবহার করুন।

অ্যাভোকাডো ও মধু: অ্যাভোকাডো মিহি করে বেটে তাতে ১ টেবিল চামচ মধু এবং ২ টেবিল চামচ অলিভ অয়েল যোগ করুন। উপাদানগুলিকে আবার একসাথে ব্লেন্ড করুন। ভালো করে চুলে লাগিয়ে ৩০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। শীতে চুলের একটু দেখাশোনার জন্য অ্যাভোকাডো ও মধুর এই মাস্কের জুড়ি মেলা ভার। মিশ্রণটি চুল ময়েশ্চারাইজার করবে সঙ্গে চুলের ঘনত্ব বাড়াবে৷ চুল পড়া রোধ করবে। সপ্তাহে ২ দিন এটি মাস্কটি ব্যবহার করুন।

অ্যালমন্ড ও কলা:  ১ টা পাকা কলা চটকে মিহি করুন আর সঙ্গে ৩-৪ ফোঁটা অ্যালমন্ড অয়েল মেশান। চুলের গোঁড়ায় ও চুলে ভালোভাবে দুই উপাদান মাস্ক আকারে লাগিয়ে নিন। ২০ মিনিট রেখে শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। আপনার চুলকে এক্সট্রা শাইনি করবে এবং চুলকে নরম হওয়ার হাত থেকে রক্ষা করবে।

নিমপাতাঃ নিমপাতা ভালো করে সিদ্ধ করে করে নিন। জলটি সবুজ হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। তারপর জল ঠাণ্ডা করে মাথা ধুয়ে নিন । মাথার ত্বক খুসকিমুক্ত থাকবে আপনার চুল।

বেকিং সোডাঃ শ্যাম্পুর সঙ্গে বেকিং সোডা মিশিয়ে নিন, সেই শ্যাম্পু দিয়ে সপ্তাহে ২-৩দিন মাথা ধুয়ে ফেলুন। আর চুলের উজ্জ্বলতা বাড়ান।

অ্যাপল সাইডার ভিনেগারঃ শ্যাম্পু করার পর এক মগ জলে ২ ছিপি অ্যাপল সাইডার ভিনেগার মিশিয়ে ভালো করে চুলকে ধুয়ে নিন। চুল শুকিয়ে বাইরে বেরান আর ধুলো বালির হাত থেকে চুলকে মুক্ত রাখুন। মজবুত,শাইনি, ও খুসকিমুক্ত চুল পেতে ব্যবহার করুন এই সব ঘরোয়া উপাদান আর ফল পান হাতেনাতে।

নি এম/

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 

 

E-mail: info.eibela@gmail.com

a concern of Eibela Ltd.

Request Mobile Site

Copyright © 2020 Eibela.Com
Developed by: coder71