eibela24.com
বুধবার, ০৫, আগস্ট, ২০২০
 

 
সাপ কিংবা বাদুর নয়, অবশেষে জানা গেল যা থেকে ছড়িয়েছে করোনা ভাইরাস
আপডেট: ০২:৪০ pm ৩১-০১-২০২০
 
 


সাপ কিংবা বাদুর নয়- দ্রুত গতিতে ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাসের কারণে চীন এখন ভয়াবহ পরিস্থিতির সম্মুখীন। চীনের সীমা ছাড়িয়ে ইতোমধ্যে আরও বেশ কয়েকটি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে এই ভাইরাস। অনেকে বলছেন, ভাইরাসটি এসেছে সাপ কিংবা বাদুড় থেকে। তবে এবার নতুন এক দাবি তুলেছেন ইসরায়েলের সামরিক গোয়েন্দা বিভাগের সাবেক কর্মকর্তা ও জীবাণু অস্ত্র বিশারদ ড্যানি শোহাম।

চীনের গোপন অস্ত্র গবেষণাগার থেকেই রহস্যময় করোনা ভাইরাস ছড়িয়েছে বলে দাবি করেছেন এই ইসরায়েলি জীবাণু অস্ত্র বিশারদ। 
রবিবার (২৬ জানুয়ারি) দ্য ওয়াশিংটন টাইমসকে তিনি জানিয়েছেন, উহানে চীনের গোপন জীবাণু অস্ত্র গবেষণা কার্যক্রমের ল্যাবরেটরি রয়েছে। সেখান থেকেই করোনা ভাইরাস প্রথম ছড়িয়ে থাকতে পারে।


 
ড্যানি শোহাম মাইক্রোবায়োলজিতে পিএইচডি করেছেন। ১৯৭০ থেকে ১৯৯১ সাল পর্যন্ত ইসরায়েলের সেনাবাহিনীর হয়ে মধ্যপ্রাচ্যসহ সারাবিশ্বে জীবাণু ও রাসায়নিক অস্ত্র এবং সমরনীতি নিয়ে কাজ করেছেন তিনি। শোহাম মনে করেন, উহান ইনস্টিটিউট অব ভাইরোলজির আড়ালেই জীবাণু অস্ত্র’ নিয়ে গবেষণা চালাচ্ছে চীন। অবশ্য জীবাণু অস্ত্র নিয়ে গোপনে গবেষণা চালানোর ব্যাপারটি চীন বরাবরই অস্বীকার করে আসছে।

রাজধানী ঢাকার গুলশানের একটি অভিজাত হাসপাতালে ভাইরাল উপসর্গ নিয়ে চীনের একজন নাগরিক সোমবার (২৭ জানুয়ারি) দুপুরে ভর্তি হয়েছেন। সম্ভাব্য নতুন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এমন বিবেচনায় তাকে একটি বিশেষ কক্ষে রাখা হয়েছে। তবে এখনো তার ভাইরাস পরীক্ষা হয়নি।

সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের পরিচালক ড. মীরজাদী সেবরিনা ফ্লোরা বলেন, আমরা শুনেছি ওই হাসপাতালের একজন চীনা নাগরিক ভর্তি হয়েছেন। আমরা তার স্যাম্পল কালেকশন করবো, তা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে বলা যাবে তিনি করোনা ভাইরাস বহন করছেন কিনা। এর আগে কিছুই বলা সম্ভব না। তবে এটা নিয়ে কোনো ধরনের আতঙ্কিত হওয়ার কারণ নেই।

হাসপাতালের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানান, আজ বেলা আড়াইটার দিকে ওই চীনা নাগরিক হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসেন। স্বাস্থ্য পরীক্ষায় তার জ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্ট ধরা পড়ে। সরকারের নির্দেশ অনুযায়ী তাকে বাতাসে ঋণাত্মক চাপ আছে—এমন একটি রুমে রাখা হয়েছে। এই রুমের বাতাস বাইরে যায় না। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ওই চীনা নাগরিকের সঙ্গে কথা বলে জানতে পেরেছে, তিনি এ মাসের ১৮ থেকে ২০ তারিখের মধ্যে ঢাকায় এসেছেন।

যেসব লক্ষণে বুঝবেন ‘করোনা’ ভাইরাস

মহামারি আকার ধারণ করেছে বিশ্বব্যাপী নতুন প্রাণঘাতী ‘করোনা’ ভাইরাস। শুধু চীনেই এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় লক্ষাধিক। আর এতে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ২১৩ জন। শনিবার প্রকাশিত নতুন তথ্য থেকে এমন তথ্য জানা গেছে।

মরণব্যাধি এই ভাইরাসের এখন পর্যন্ত কোনো ওষুধ বা ভ্যাকসিন আবিষ্কার হয়নি। তাই সচেতনতাই হচ্ছে এই রোগ থেকে বাঁচার অন্যতম উপায়।


 
একজন মানুষের শরীর থেকেও এই ভাইরাস অন্য মানুষের শরীরে ছড়িয়ে পড়তে পারে। প্রথমে মনে করা হয়েছিল ভাইরাসটি সামুদ্রিক খাবার থেকে ছড়াচ্ছে।

তবে চীনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বলছে– একজন মানুষের শরীর থেকেও এই ভাইরাস অন্য মানুষের শরীরে ছড়িয়ে পড়তে পারে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সম্প্রতি মারাত্মক এই ভাইরাস সম্পর্কে প্রথম রিপোর্ট জমা দিয়েছে।

দক্ষিণ কোরিয়া, থাইল্যান্ড ও জাপানেও ক্রমে ছড়াচ্ছে করোনা ভাইরাস। তবে এই ভাইরাস সম্পর্কে অনেকেই জানেন না। কী এ করোনা ভাইরাস ও কীভাবে ছাড়ায়?

করোনা ভাইরাস কী?

করোনা ভাইরাস এমন এক ভাইরাস, যা সাধারণ ফ্লু বা ঠাণ্ডা লাগার মতোই প্রথমে আক্রমণ করে ফুসফুসে। এই ভাইরাস থেকে শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা দেখা দেয়। ধীরে ধীরে তা মারাত্মক আকার ধারণ করে। যার থেকে মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে।

করোনা ভাইরাসের লক্ষণ

করোনা ভাইরাসের কিছু প্রাথমিক লক্ষণ রয়েছে। তবে এই লক্ষণগুলো খুবই সাধারণ। সর্দি-কাশি, মাথাব্যথা, নাক দিয়ে পানি পড়া, গলা ব্যথা, শ্বাসকষ্ট ও জ্বর হয়ে থাকে।

কীভাবে ছড়ায়?

১. এই ভাইরাস একজনের থেকে আরেকজনের মধ্যে ছড়ায়।

২. শারীরিক ঘনিষ্ঠতা এমনকি করমর্দন থেকেও এই রোগ ছড়াতে পারে।

৩. রোগী জিনিস ধরার পর ভালো করে হাত না ধুয়ে চোখ, মুখ, ও নাকে হাত দিলে এই রোগ ছড়াতে পারে।

৪. হাঁচি-কাশি থেকেও এই রোগ ছড়াতে পারে।

কীভাবে প্রতিরোধ করবেন?

১. রোগী কাছ থেকে আসার পর ভালো করে হাত ধুতে হবে।

২. নাক-মুখ ঢেকে হাঁচুন, কাশুন।

৩. ডিম, মাংস ভালো করে রান্না করুন। রোগীর থেকে দূরে থাকুন।

৪. নিয়মিত হাত ধুয়ে পরিচ্ছন্ন রাখুন

ওপরের প্রাথমিক লক্ষ্মণগুলো এক বা একাধিক দেখা দিলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

নি এম/