eibela24.com
বুধবার, ৩০, সেপ্টেম্বর, ২০২০
 

 
বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে নির্বাচিত হতে চলেছে ভারত
আপডেট: ১১:১৯ pm ০৮-০৬-২০২০
 
 


রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে অস্থায়ী সদস্য পদে ফের নির্বাচিত হতে চলেছে ভারত। এমনটাই মনে করছেন কূটনীতিক ও বিশেষজ্ঞরা। পাঁচটি স্থায়ী সদস্য দেশ ছাড়াও বাকি দশটি অস্থায়ী সদস্য দেশকে রোটেশনের ভিত্তিতে ভোটভুটির মাধ্যমে নির্বাচিত করা হয় নিরাপত্তা পরিষদে।

রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচটি অস্থায়ী আসনের নির্বাচন ১৭ জুন। এশিয়া প্যাসিফিক ব্লক থেকে একা ভারতই প্রতিনিধিত্ব করছে, ফলে অষ্টম বারের জন্য জয়লাভ কার্যত নিশ্চিত। এজন্য ভারতের হয়ে প্রচার শুরু করে দিয়েছেন বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকর। এবারে নির্বাচিত হলে ভারতের মেয়াদ শুরু হবে ২০২১ সালের জানুয়ারিতে।

কোভিড কী ভাবে অর্থনীতি এবং ভূকৌশলগত ক্ষেত্রে আঘাত হেনেছে সেই প্রসঙ্গ তুলে বিদেশমন্ত্রী শুক্রবার স্পষ্ট জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি  তাঁর পাঁচটি ‘স’ নীতি রাষ্ট্রসংঘে কার্যকর করার লক্ষ্যে এগোচ্ছেন। এগুলো হল, সম্মান (রেসপেক্ট), সংবাদ (ডায়ালগ), সহযোগ (কোঅপারেশন), শান্তি (পিস) ও সমৃদ্ধি (প্রস্পারিটি)। “বিশ্বের সব জাতি ও দেশের সমৃদ্ধির লক্ষ্যে শান্তি কার্যকর করার জন্য সবার সঙ্গে সহযোগিতা করে সব জাতি গোষ্ঠীকে সম্মান করে সবার সঙ্গে আলোচনা (সংবাদ) করেই ভারত রাষ্ট্রসংঘকে কাজ করতে বলবে। এটাই ভারতের উদ্দেশ্য। এজন্য সবার আগে ধর্মীয় সন্ত্রাসবাদ, মাদক সন্ত্রাসকে নিশ্চিহ্ন করতে হবে পৃথিবীর বুক থেকে।” 

বিদেশমন্ত্রী আরও বলেন, স্থায়ী সদস্য দেশের সংখ্যা বাড়িয়ে রাষ্ট্রসংঘের আমূল সংস্কারের লক্ষ্যে ভারত প্রচার চালিয়ে যাবে আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলিতে সুষম প্রতিনিধিত্ব নেই। সংস্কারেরও প্রয়োজন। আর সে কারণেই তারা আশানুরূপ ফল দিতে পারছে না।

নি এম/