eibela24.com
বৃহস্পতিবার, ২৯, অক্টোবর, ২০২০
 

 
দেশ ত্যাগ কোনো সমাধান নয়, প্রতিবাদ করেই বাঁচতে হবে বাংলাদেশের হিন্দুদের
আপডেট: ১০:৩৯ pm ২৪-০৭-২০২০
 
 


https://www.facebook.com/permalink.php?story_fbid=274923330455999&id=100038150017817

নরসিংদীর মনোহরদীর চর আহম্মেদপুরের কামলাল রবি দাসকে স্থানীয় মেম্বার সোলাইমান এর দেশত্যাগের হুমকী। প্রতি রাতে চলে হুমকী ও অমানবিক নির্যাতন।

নরসিংদির মনোহরদী উপজেলার খিদিরপুর ইউনিয়নের চর আহম্মদপুর এর বাসিন্দা কামলাল রবিদাস। তাদের পূর্ব-পুরুষ দুই শত বছর ধরে বসবাস করছে। 

স্থানীয় লোকজনের ভাষ্য মতে, এ ভূমির উপর লোলুপ দৃষ্টি পরে স্থানীয় মেম্বার সোলাইমান ও ইউনিয়ন চেয়ারম্যান জামিল মিয়ার। ৪০-৫০ টি পরিবারের বসবাস ছিল, তাদের একজনকে ভূমিদসূরা পরিকল্পিতভাবে হত্যা করার পর অসহনীয় নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে কোথাও কোনো বিচার না পেয়ে ভয়ে ৩০ টি পরিবার ঐ স্থান থেকে অন্যত্র চলে যায়। পরবর্তীতে এদের অত্যাচার ও মিথ্যা মামলায় আরও কয়েকটি পরিবার ভিটেমাটি ছেড়ে চলে যেতে বাধ্য হয়। বর্তমানে কয়েকটি পরিবার এখনও লড়াই করে টিকে আছে। ইতিমধ্যে এ পরিবারগুলোকে উচ্ছেদের জন্য সকল প্রকার ষড়যন্ত্রের ফাঁদ তৈরি করা হয়েছে। প্রতি রাতে তাদের দেশত্যাগ করার হুমকী প্রদান করা হয়। সাইকেলের শিকল দিয়ে মহিলাদের অঘাত করা হয়। কেউ প্রতিবাদ করলে তার উপর চলে অমনুষিক নির্যাতন, দেওয়া হয় মিথ্যা-মামলা, প্রভাবশালী হওয়ার কারনে থানা পুলিশ এ ভূমিদস্যূদের পক্ষে কাজ করে।

এ বিষয়ে সোলাইমান মেম্বার ও খিদিরপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান জামিল মিয়া এর সাথে ফোনে কথা বললে সব কিছু অস্বীকার করেন এবং কিছুই জানেন না বলে জানান।

এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট থানায়, জেলা পুলিশ সুপার থেকে, উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট বিচার চেয়েও বিচার পাননি।

নি এম/