বুধবার, ২৬ জুন ২০১৯
বুধবার, ১২ই আষাঢ় ১৪২৬
 
 
অদিতি বড়ালকে ছুরিকাঘাতের ঘটনায় কেউ আটক হয়নি
প্রকাশ: ১০:৫১ am ১৮-১২-২০১৭ হালনাগাদ: ১০:৫১ am ১৮-১২-২০১৭
 
চিতলমারী প্রতিনিধি
 
 
 
 


বাগেরহাটে সংরক্ষিত নারী আসনের সাংসদ হেপী বড়ালের মেয়ে অদিতি বড়ালকে ছুরিকাঘাতের ঘটনার এক দিন পার হলেও এখনো কেউ আটক হয়নি। মামলার প্রক্রিয়া চলছে বলে জানিয়েছেন সাংসদ হেপী বড়াল। তবে গতকাল রবিবার বিকেল সাড়ে চারটা পর্যন্ত ওই ঘটনায় থানায় কোনো মামলা হয়নি।

শনিবার বাগেরহাট শহরের শালতলা এলাকায় সাংসদের মেয়ের ওপর হামলার ঘটনা ঘটে। আমলাপাড়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে বিজয় দিবসের একটি অনুষ্ঠান থেকে বেরিয়ে সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে বাড়িতে ফেরার সময় এক যুবক অদিতি বড়ালকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়।

স্থানীয় লোকজন হঠাৎ চিৎকার শুনে ঘটনাস্থলে গিয়ে অদিতিকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসা শেষে রাতে তাঁকে বাসায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

সাংসদ হেপী বড়ালের বাড়ি জেলার চিতলমারী উপজেলায়। বাগেরহাট শহরের শালতলায় ভাড়া বাড়িতে থাকেন তিনি।

গতকাল দুপুরে হেপী বড়াল বলেন, ‘আট মাস আগেও আমার মেয়ের ওপর হামলা হয়েছিল। ওই দিন রাতে বাসার জানালা দিয়ে ছুরি ছুড়ে মারা হয়েছিল। ছুরিটি তার পায়ে লাগে। আট মাস আগের ওই ঘটনায় পুলিশ যথাযথ ব্যবস্থা নিলে এ রকম ঘটনা ঘটত না। আমরা মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছি।’

হেপী বড়াল আরও বলেন, ‘বাসার সামনে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। তবু আমরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।’

বাগেরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহাতাব উদ্দীন বলেন, ‘আমলাপাড়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে হেপী বড়ালের বাসা পর্যন্ত থাকা সিসি ক্যামেরার ফুটেজ পর্যালোচনা করা হচ্ছে। সবদিক থেকে খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে। এখনো মামলা হয়নি, তবে আমরা আমাদের মতো তদন্ত চালাচ্ছি। হামলাকারীকে ধরতে পুলিশের একাধিক দল অভিযান চালাচ্ছে।’

প্রচ

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71