শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮
শুক্রবার, ৬ই আশ্বিন ১৪২৫
 
 
অন্য নারীর সঙ্গে টাইম পাস করায় স্বামীর শরীরে গরম দুধ ছুড়ে মারলেন স্ত্রী
প্রকাশ: ১১:৪৬ am ০৫-০৮-২০১৭ হালনাগাদ: ১১:৪৬ am ০৫-০৮-২০১৭
 
লালমনিরহাট প্রতিনিধি
 
 
 
 


স্বামী স্ত্রীর মধ্যে নানা কারণে ঝগড়া লেগেই থাকত। কিন্তু প্রতিবেশী ভাবীর সঙ্গে স্বামী অটোচালক মজমুল হকের গল্প করার বিষয়টি ভালভাবে নেননি স্ত্রী সুফিয়া বেগম। এনিয়ে তুমুল ঝগড়ার এক পর্যায়ে স্বামীর শরীরে গরম দুধ ছেড়ে মারেন সুফিয়া। সম্প্রতি এমনই ঘটনা ঘটেছে লালমনিরহাটের আদিতমারীতে। 

স্ত্রীর ছুড়ে দেয়া গরম দুধে শরীরের কিছু অংশ ঝলসে গেছে স্বামী মজমুল হকের (২৬)। আহত অবস্থায় উদ্ধার করে তাকে আদিতমারী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত মজমুল উপজেলার পলাশী ইউনিয়নের তালুক পলাশী গ্রামের মাজেদুল ইসলাম ওরফে মওলা বকস এর ছেলে। এ ঘটনায় ৩ আগস্ট স্বামীর দায়ের করা মামলায় স্ত্রী সুফিয়া বেগমকে (২২) তালুক পলাশী গ্রামের স্বামীর বাড়ি থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

জানা গেছে, গত ৪ বছর পূর্বে লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার কাকিনা চাপারতল গ্রামের শরিফুল ইসলামের কন্যা সুফিয়া বেগমের (২২) সঙ্গে বিয়ে হয় উপজেলার পলাশী ইউনিয়নের তালুক পলাশী গ্রামের মজমুল হকের। এরপর মজমুল-সুফিয়া দম্পতির কোল জুড়ে আসে একটি ছেলে ও একটি মেয়ে। মেয়ের বয়স সাড়ে তিন বছর আর ছেলের বয়স এক বছর। অভাবের সংসারে মজমুল হক অটো চালিয়ে জীবন-যাপন করত। অটো চালাতে গিয়ে প্রায়ই গভীর রাতে বাড়ি আসত মজমুল। এ নিয়েই দীর্ঘদিন যাবত স্বামী-স্ত্রীর মাঝে ঝগড়া লেগেই থাকত।

ঘটনার দিন ১ আগস্ট রাত আটটার দিকে মজমুল অটো নিয়ে বাড়িতে ফেরেন। প্রচন্ড গরম থাকায় বাড়ির পাশের একটি দোকানে বসে গল্প করছিলেন তারই বড় ভাবীর সঙ্গে। বিষয়টি দেখতে পেয়ে তার স্ত্রীর সন্দেহ হওয়ায় স্বামীকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকেন। এরপর সেখান থেকে বাড়িতে গিয়ে মজমুল তার স্ত্রীকে বিষয়টি বুঝানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু স্ত্রী ক্ষিপ্ত হয়ে চুলার উপর থেকে গরম দুধ তার স্বামীর শরীরে ঢেলে দেয়। এরপর এলাকাবাসী তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে আদিতমারী হাসপাতালে ভর্তি করান। গরম দুধে মজমুলের শরীরের গলার উপরিভাগ ঝলসে যায়।

আদিতমারী উপজেলা হাসপাতালের সহকারী চিকিৎসক আব্দুস ছালাম শেখ জানান, তার গলার ও শরীরের কিছু অংশ গরম দুধ ঢেলে দেয়ার কারণে ঝলসে গেছে। পুরোপুরি সুস্থ হতে কিছুদিন সময় লাগবে বলেও জানান তিনি। 

আদিতমারী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সহিদুল ইসলাম জানান, মামলা দায়েরের পর পরই থানা পুলিশ তার স্ত্রী সুফিয়া বেগমকে গ্রেফতার করেছে।
 
বিএম/

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71