মঙ্গলবার, ২২ জানুয়ারি ২০১৯
মঙ্গলবার, ৯ই মাঘ ১৪২৫
 
 
অভিজিৎ হত্যা : অগ্রগতি নেই তদন্তে
প্রকাশ: ০৮:০৪ am ১৬-০৩-২০১৫ হালনাগাদ: ০৮:০৪ am ১৬-০৩-২০১৫
 
 
 


নিজস্ব প্রতিবেদক : অভিজিৎ হত্যায় ফারাবী ছাড়া নতুন করে আর কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। আর ফারাবীর কাছেও হত্যা সম্পর্কিত নতুন কোনো তথ্য মেলেনি।

 

এই হত্যাকাণ্ড তদন্তে মার্কিন কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা এফবিআই ঢাক-ঢোল পিটিয়ে তদন্ত শুরু করলে অভিজিতের পরিবারে স্বস্তির নিঃশ্বাস আসে। কিন্তু কোনো ধরণের অগ্রগতি দেখতে না পাওয়ায় এখন বাবা অজয় রায়ও হতাশা প্রকাশ করেছেন।

 

এদিকে তদন্ত সংশ্লিষ্ট গোয়েন্দা কর্মকর্তারা বলছেন, ‘অভিজিৎ হত্যায় জড়িতদের ধরতে এরই মধ্যে বেশ কিছু জায়গায় অভিযান চালানো হয়েছে। কিন্তু কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছানো সম্ভব হয়নি। ফারাবির সঙ্গে যাদের যোগাযোগ ছিল কিংবা যাদের সঙ্গে ফেসবুকে বন্ধুত্ব ছিল তাদের ব্যাপারে মিশ্র তথ্য থাকায় অভিযান সফল হচ্ছে না। তবে যেভাবে অভিযান চালানো হচ্ছে এটা অব্যাহত থাকলে হত্যাকারীরা খুব শিগগির ধরা পড়ার সম্ভবনা রয়েছে।

 

গোয়েন্দা সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, অভিজিৎ হত্যায় তিনটি দল তদন্ত করছে। এর দুটি গোয়েন্দা বিভাগের করা তদন্ত কমিটি। অন্যটি এফবিআই।

 

অভিজিৎ হত্যার সময় পুলিশের কোনো গাফিলতি ছিল কি-না তা খতিয়ে দেখতে যুগ্ম কমিশনার রেজাউল করিমকে প্রধান করে একটি তিন সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। সেটির কী অবস্থা তা জানতে চাওয়া হয় কমিটির প্রধানের কাছে।

 

তিনি বলেন, ‘ঘটনার সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আশপাশে কোন কোন পুলিশ সদস্য এবং পুলিশ কর্মকর্তা দায়িত্ব পালন করছিলেন তাদের নামের তালিকা সংগ্রহ করা হয়েছে। তারা কখন কোথায় কার সঙ্গে কথা বলেছিলেন, তাও জানার চেষ্টা করা হচ্ছে।’ এ বিষয়ে খুব দ্রুত প্রতিবেদন জমা দেওয়া যাবে বলে আশা প্রকাশ করেন যুগ্ম কমিশনার রেজাউল করিম।

 

অভিজিৎ হত্যা তদন্ত করতে গোয়েন্দা পুলিশের মুখপাত্র মনিরুল ইসলামকে প্রধান করে সাত সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়। সেটিও এখনো খুব বেশি আলোর মুখ দেখেছে, এমনটি বলার যৌক্তিকতা নেই। তবে মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘ঘটনাস্থলের আলামত সংগ্রহ থেকে শুরু করে সব ধরণের তদন্তকাজ এগিয়ে চলছে। ফারাবির দেওয়া তথ্যানুযায়ী সন্দেহভাজন হত্যাকারীদের তালিকা প্রস্তুত করে বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালানো হয়েছে। এরই মধ্যে আদালতের অনুমতি সাপেক্ষে হত্যার আলামত যুক্তরাষ্ট্রে পাঠানো হয়েছে। আলামতগুলি পরীক্ষা করলে আশানুরূপ ফল পাওয়া যেতে পারে। তা ছাড়া তদন্তকাজ গভীরভাবে এগিয়ে যাচ্ছে।’

 
 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71