শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮
শনিবার, ৩রা অগ্রহায়ণ ১৪২৫
 
 
আজ ব্রাজিল মেক্সিকো মহারণ
প্রকাশ: ০৩:২৪ pm ০২-০৭-২০১৮ হালনাগাদ: ০৩:২৫ pm ০২-০৭-২০১৮
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


জার্মানির পর ইতোমধ্যেই রাশিয়া বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে পড়েছে ফেবারিট আর্জেন্টিনা আর পর্তুগাল। সংশয়ে এখন ব্রাজিলভক্তরা। ২০১৮ বিশ্বকাপের শেষ ষোলোর বাধা অতিক্রম করতে পারবে কী সেলেসাওরা? নাকি পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের থামিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে জায়গা করে নিবে মেক্সিকো? সেটাই নিশ্চিত হয়ে যাবে আজ। সামারা এরেনায় রাত ৮টায় যে একে অপরের মুখোমুখি হবে ব্রাজিল-মেক্সিকো।

দিনের অন্য ম্যাচে রোস্টভ এরেনায় বেলজিয়াম খেলবে জাপানের বিপক্ষে। ম্যাচটা শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত ১২টায়। রাশিয়া বিশ্বকাপে একমাত্র দল হিসেবে ফেয়ার প্লে’র সৌজন্যে গ্রুপপর্বের বাধা অতিক্রম করে জাপান। হলুদ কার্ড কম পেয়ে আফ্রিকার শেষ প্রতিনিধি সেনেগালকে বিদায় করে রাশিয়া বিশ্বকাপের টিকেট নিশ্চিত করে ব্লু-সামুরাইরা। অন্যদিকে দুর্দান্ত খেলেই শেষ ষোলোতে জায়গা করে নেয় বেলজিয়াম। গ্রুপপর্বের তিন ম্যাচের সবকটিতে জিতে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই দ্বিতীয় রাউন্ডে জায়গা করে নেয় লুকাকু-কোম্পানিরা।

অতীত পরিসংখ্যান ঘেঁটে দেখা যায় ১৯৯০ সালের পর থেকে কখনও বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালের আগে বাদ পড়েনি ব্রাজিল। অন্যদিকে শেষ ছয় বিশ্বকাপেই দ্বিতীয় রাউন্ড থেকে ছিটকে গেছে মেক্সিকো। বিশ্ব মঞ্চে চার দেখায় একবারও ব্রাজিলকে হারাতে পারেনি, হজম করেছে ১১টি গোল। বিশ্বকাপের আগে থেকেই ফেবারিটের তকমাটা গায়ে মাখানো ছিল ব্রাজিলের। সবার আগে বাছাইপর্বের বাধাও অতিক্রম করে তারা। নিজেদের শেষ ১৫টি প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচে অপরাজিত টিটের দল। ১৯৯৯ সালের পর থেকে ব্রাজিলের বিপক্ষে শেষ ১৫ ম্যাচের সাতটিতে জয় আছে মেক্সিকোর, হার পাঁচটি। বিশ্বকাপে চারবারের দেখায় ব্রাজিলের জালে কোন গোল দিতে পারেনি মেক্সিকো। বিনিময়ে হজম করেছে ১১টি।

মেক্সিকানদের কাছে আজকের ম্যাচটি হতে পারে অগ্নিপরীক্ষা। ইতিমধ্যে ব্রাজিল কোচ তিতে তো জানিয়ে দিয়েছেন, ‘নিজেদের সর্বোচ্চটা নিংড়ে দিতে প্রস্তুত তার শিষ্যরা।’ কিন্তু সেই ভয়ে তবুও দমে নেই মেক্সিকো। পরিসংখ্যান বা ইতিহাস সবটা ব্রাজিলের পক্ষে হলেও গত আসরে ঠিকই ব্রাজিলকে রুখে দিয়েছিল তারা।

২০১৪ সালে গ্রুপ পর্বে মুখোমুখি হয়েছিল ব্রাজিল-মেক্সিকো। সেই ম্যাচে মেক্সিকোর গোলরক্ষক গিলের্মো ওচোয়ার একাই অন্তত পাঁচটি গোল রুখে দিয়েছিলেন! ৯০ মিনিট লড়াইয়ের পর ফলাফল ছিল গোল শূন্য ড্র। তবে বিশ্বকাপের মঞ্চে এর আগেও তিনবার দেখা হয়েছিল দুই দলের। সেই তিন দেখার তিনটিতেই ব্রাজিলের কাছে হারে মেক্সিকানরা।

সম মিলিয়ে ব্রাজিল ও মেক্সিকো নিজেদের মধ্যে মুখোমুখি হয়েছে মোট ৪০ বার। যার মধ্যে ল্যাটিন পরাশক্তিদের ২৩ জয়ের বিপরীতে মেক্সিকানদের জয় ১০টি। ফিফা র্যাংকিং দেখলে ব্রাজিল-মেক্সিকোর দূরত্ব বোঝা যায়। ব্রাজিল রয়েছে দ্বিতীয় ও মেক্সিকো ৪০তম স্থানে।

সুতরাং ব্রাজিল বা মেক্সিকো নিজেদের দিনে তারা দুই দলই সেরা। তাই সবকিছু নিজেদের পক্ষে থাকলে যেকোন দলই পেতে পারে কোয়ার্টার ফাইনালের টিকিট।

নি এম/

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71