শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮
শনিবার, ৩রা অগ্রহায়ণ ১৪২৫
 
 
আফগানিস্তানের হিন্দু ইতিহাস
প্রকাশ: ১২:২৩ am ২৬-০৬-২০১৫ হালনাগাদ: ০৮:৫০ pm ১৭-০৩-২০১৬
 
 
 


এইবেলা ডেস্ক: আফগানিস্তান, যার সরকারী নাম ‘আফগানিস্তান ইসলামী প্রজাতন্ত্র’ ছিল এক বিরাট হিন্দুস্থানী ভূখণ্ডের অন্তর্ভূক্ত যা বর্তমানে খন্ডিত হয়েছে আফগানিস্তান, পাকিস্তান, বাংলাদেশ ও ভারতে।

মুসলমানরা হিন্দুদের গান্ধার নগরীকে ছিনিয়ে নিয়ে রূপান্তরিত করেছে আফগানিস্তানে ও ভারতকে খন্ডিত করে প্রতিষ্ঠা করেছে পাকিস্তান ও পূর্ব পাকিস্তান(বর্তমান বাংলাদেশ)।

৯৮০ সালের উপ-গানা-স্তান যা আজ আফগানিস্তান নামে পরিচিত তা সে সময় পাঞ্জাবি শাসক রাজা জয়পাল সাহির অধীনে ছিল।

কিন্তু ৯৮০ সালে রাতের বেলায় অতর্কিতে ঘুমন্ত আফগান হিন্দু সেনাদের হত্যা করে তুর্কিরা। হিন্দুরা হারায় আফগানিস্তান ও পাঞ্জাব।

তারপর দুইশ’ বছরের বিরতি। ১১৮৭ সালের দিকে মুহাম্মাদ ঘোরী গুজরাট আক্রমন করে। এই লোক যোদ্ধা হিসেবে ছিল তৃতীয় শ্রেণীর। গুজরাটে পরাজিত হয়ে ইনি আবার পরাজিত হন বিখ্যাত রাজপুত বীর পৃথ্বীরাজ চৌহানের হাতে।

আর এই আফগানিস্তানের বর্তমান ‘কান্দাহার’ হলো মহাভারতের গান্ধার রাজ্য যে ভূমির রাজা ছিলেন শকুনি। আর বেদের বিখ্যাত পাটকা উপজাতি প্রকৃতপক্ষে আফগানিস্তানের ৯৮০ সালের এক জাতি ছিল।

আর সত্য হল যে, কাবুলের সবচেয়ে বড় মসজিদটি সেই সময়ের একটি হিন্দু মন্দির ছিল।

তারপর থেকে আস্তে আস্তে আফগানিস্তান মুসলমানদের করতলগত হয়। এখনও আফগানিস্তানে হিন্দুরা একটি সংখ্যালঘু জাতি হিসেবে বসবাস করছে ।


এইবেলা ডটকম/এন এইচ 

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71