বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮
বুধবার, ৩০শে কার্তিক ১৪২৫
 
 
উন্নয়নের মহাসড়ক খানাখন্দকে ভরে গেছে : এরশাদ
প্রকাশ: ১০:১৮ am ১৮-০৩-২০১৮ হালনাগাদ: ১০:১৮ am ১৮-০৩-২০১৮
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় থাকলে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি সেফ (নিরাপদ)। কারণ আমরা কাউকে জেলে দেব না; কাউকে পুড়িয়ে মারব না। শনিবার দুপুরে বগুড়া পর্যটন মোটেলে জাপার রাজশাহী ও রংপুর বিভাগীয় প্রতিনিধি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেন, অন্যায় করিনি; ভয়াবহ বন্যার সময় দুর্গত মানুষের মুখে খাবার তুলে দিয়েছি। কোনো অপরাধ না করেও স্পেশাল অ্যাক্টে জেলে থেকেছি।

তিনি বলেন, আমি বাংলাদেশে সবচেয়ে বয়োজ্যেষ্ঠ রাজনীতিবিদ। আমার বয়স হয়েছে, তা আমি স্বীকার করি না। আমার একটাই লক্ষ্য তা হলো আগামী নির্বাচনে ‘সন্তান জাতীয় পার্টিকে’ ক্ষমতায় নেয়া।

আওয়ামী লীগ সরকারের সমালোচনা করে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান বলেন, উন্নয়নের মহাসড়ক আজ খানাখন্দকে ভরে গেছে। আগে ঢাকা থেকে ৬ ঘণ্টায় রংপুর গিয়েছি, সংস্কার না হওয়ায় এখন ১২ ঘণ্টা লাগে। তাই আমরা এ মহাসড়ক ঠিক করতে চাই।

তিনি বলেন, এখন এমএ পাস করে চাকরি মিলে না। কনস্টেবলের চাকরি পেতে ১০ লাখ, এসআইয়ের জন্য ২০ লাখ ও পিয়নের জন্য পাঁচ লাখ টাকা ঘুষ দিতে হয়। আমার সময় এমন হলে আত্মহত্যা করতাম। ঘুষ দিতে না পারায় অনেক শিক্ষিক তরুণ-যুবক চাকরি পাচ্ছে না। হতাশায় তারা ইয়াবা, ফেনসিডিলসহ নানা মাদকসেবন করছে। দেশে মাদকের ছড়াছড়ির সমালোচনা করে তিনি বলেন, এখন পানের দোকানেও ইয়াবা ও অন্য মাদক পাওয়া যায়।

এরশাদ বলেন, শেয়ার মার্কেটে টাকা হারিয়ে অনেকেই আত্মহত্যা করেছে। শেয়ারবাজারের টাকাগুলো বড়লোক নিয়েছে। চিহ্নিত জড়িতদের এখনও বিচার হয়নি। এখন ব্যাংক ডাকাতি হয়। ব্যাংকে টাকা নেই, লুটপাট হয়েছে। এমনকি আমার ব্যাংকেও টাকা নেই। তিনি বলেন, পৃথিবীর কোথায়ও শুনিনি সেন্ট্রাল ব্যাংকে ডাকাতি হয়। বাংলাদেশ ব্যাংকে ডাকাতি হয়েছে। হাজার বছরের ইতিহাসেও এমন ঘটনা ঘটেনি। অনেক তদন্ত হয়েছে, কিন্তু কারা এর পেছনে তা এখনও জানা যায়নি।

তিনি বলেন, দেশে সুদিন, শান্তির দিন ফিরিয়ে আনতে চাই। বেকারদের চাকরি চাই, কোনো দুর্নীতি চাই না। আদালতে কোনো হস্তক্ষেপ না করলেও তৎকালীন প্রধান বিচারপতি বদরুল হায়দার চৌধুরী রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাতিল করেছিলেন।

প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনায় হতাশা প্রকাশ করে তিনি বলেন, আশ্চর্য লাগে প্রধানমন্ত্রী প্রশ্নপত্র ফাঁস নিয়ে বলেছেন, অতীতেও প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়েছে। শিক্ষামন্ত্রীর বিষয়ে তিনি বলেন, কীভাবে একজন মন্ত্রী সহনীয় পর্যায়ে ঘুষ নেয়ার কথা বলেন। এটা কী কেউ বলতে পারে? ওই কথা বলার পর এখনও তার মন্ত্রিত্ব রয়েছে। এরশাদ আরও বলেন, তার বিদ্যাপীঠ রংপুর কারমাইকেল কলেজের অধ্যক্ষ শিক্ষামন্ত্রীর ভায়রা। সবাই অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে। কলেজটি বাঁচাতে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছি। দেখি কী হয়?

বিভিন্ন উন্নয়নকাজে বাজেট বৃদ্ধিতে হতাশা প্রকাশ করে তিনি বলেন, জনগণ এসব অব্যবস্থা থেকে মুক্তি চায়। দুর্নীতি এখন সর্বত্র। ১০০ কোটি টাকার কাজ শুরু হলে সেখানে ২০০ কোটি টাকা খরচ হয়। দুর্নীতিবাজদের মালয়েশিয়া ও কানাডায় সেকেন্ডহোম হয়েছে। ক্ষমতার রদবদল হলে ওইসব ব্যক্তি সেখানে পালিয়ে যাবে।

জাতীয় পার্টির মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদারের সভাপতিত্বে ও সংসদে বিরোধীদলীয় হুইপ নুরুল ইসলাম ওমরের সঞ্চালনায় প্রতিনিধি সভায় অতিথি প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়া উদ্দিন বাবলু, স্থানীয় সরকার প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গা, মেজর (অব.) খালেদ আখতার, বগুড়া জেলা সভাপতি শরিফুল ইসলাম জিন্নাহ এমপি, ভাইস চেয়ারম্যান রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান, সাবেক এমপি আবদুর রশিদ সরকার, প্রেসিডিয়াম সদস্য মজিবর রহমান সেন্টু, একেএম মাহবুবুল আলম, বিরোধীদলীয় হুইপ শওকত চৌধুরী, সাবেক এমপি আবুল হোসেন, আবু সালেহ, সাবেক এমপি মকবুল হোসেন, কেন্দ্রীয় সদস্য রেজাউল করিম, সহসভাপতি দেলোয়ার হোসেন, যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট তোফাজ্জল হোসেন, আমিনুল ইসলাম ঝন্টু, তিতাস মোস্তফা, ইয়াছির আহম্মেদ, ফারুক আহম্মেদ, কাজী আবুল কাশেম রিপন, অধ্যক্ষ মোকছেদুল আলম, আব্দুস সালাম বাবু প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

বিএম/

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71