রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮
রবিবার, ৪ঠা অগ্রহায়ণ ১৪২৫
 
 
এই অপকর্মটা আমিও করেছি অতীতে
প্রকাশ: ০৩:০৭ pm ২০-০৬-২০১৭ হালনাগাদ: ০৩:০৭ pm ২০-০৬-২০১৭
 
 
 


ফরহাদ টিটো : বিদেশে এমন বাঙালি (বাংলাদেশি) প্রায়ই দেখি ভারতীয়দের সামনে পড়লে সানন্দে ভাঙা ভাঙা হিন্দি বলা শুরু করে, পাকিস্তানি দেখলে হিন্দি-উর্দু মিক্সড জগাখিচুড়ি চালায়।

অন্যদিকে ভারতীয়, পাকিস্তানিরা নিজের ভাষা চালিয়ে যায় সগৌরবে। দুই পয়সা দিয়ে পোছে না বাংলা ভাষা।

অথচ আমাদের এই মানুষগুলি বোকার মতো গায়ে পড়ে ওদের ভাষাই বলে যায়। আন্তর্জাতিক ভাষা ইংরেজি যতটুকু পারে তা বলতে কুণ্ঠাবোধ করে।  

বাংলাদেশ থেকে ভারত বা মধ্যপ্রাচ্যে অথবা অন্য কোনো দেশে বেড়াতে, ব্যবসায়িক কাজে গিয়েও একই কাণ্ড করে আমাদের অনেক মানুষ। ভারতীয়-পাকিস্তানির সঙ্গে তাদের মাতৃভাষার চর্চা করে।

এই অপকাজটা আমিও করেছি অতীতে, কয়েকবার, অনেক বছর আগে। এখন আর করি না। অনেক বছর ধরেই করি না। মানুষ বড় আর বুড়ো হতে থাকলে শেখে... আমিও শিখেছি।

আমাদের মূল ভাষা বাংলা। ইংরেজি শিখতে হয় প্রধান আন্তর্জাতিক ভাষা বলে। তারপর প্রবাসে থাকলে যে দেশে থাকবেন কমবেশি শিখতে হয় সেই দেশের ভাষাও।

ভাষা যত বেশি শিখবেন তত বেশি জানবেন আপনি অন্য সংস্কৃতিকে, অন্য ভূবনকে। আপত্তি কোথায় হিন্দি-উর্দু শিখতে? আপত্তিটা শুধু প্রয়োগের স্থান নিয়ে ।

আপনি বাংলাদেশি হয়ে ভারতে স্থায়ীভাবে বাস করলে সারাদিন হিন্দি বলেন অসুবিধা নাই, পাকিস্তানে থাকলে উর্দু ব্যবহার করেন উপায় নাই বলে।

কিন্তু আপনি যখন কোনো নিরপেক্ষ দেশে থাকবেন পাকিস্তানি-ভারতীয় দেখলেই আনন্দে গদগদ হয়ে ওদের ভাষায় কথা বলা শুরু করবেন কেন! আমরা কি ওদের খাই, না পরি?

ওরা কি জীবনে বাংলা ভাষায় কথা বলা শুরু করবে আপনাকে দেখলে?
কক্ষনো না। কোনোদিনও না!

লেখক : কানাডা প্রবাসী

(লেখকের ফেসবুক থেকে সংগৃহীত)

এইবেলাডটকম/এএস

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71