সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮
সোমবার, ৫ই অগ্রহায়ণ ১৪২৫
 
 
এক পরিবারের ১৪ জনই চোর
প্রকাশ: ০৯:২১ pm ২১-০৯-২০১৭ হালনাগাদ: ০৯:২১ pm ২১-০৯-২০১৭
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


দিল্লির বিভিন্ন মেট্রো স্টেশনে বেশ কিছুদিন ধরে বেড়ে গিয়েছিল মোবাইল চুরির ঘটনা। এর মধ্যে এক দিনে ২০-২৫টা চুরিরও অভিযোগ পাওয়া গেছে। আশঙ্কাজনকভাবে চুরি বেড়ে যাওয়ায় নড়েচড়ে বসে দিল্লি পুলিশ।  

এক পর্যায়ে গত সোমবার পুলিশের অভিযানে ধরা পড়ে এক চোর। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে পাওয়া তথ্য শুনে তদন্তকারীরাও চমকে যায়। সে জানায়, ১৪ জনের একটি দল বেশ কিছুদিন ধরে বিভিন্ন স্টেশনে চুরি করে আসছেল এবং তারা সবাই একই পরিবারের সদস্য। আটককৃতদের মধ্যে কয়েক জন নাবালকও রয়েছে।

দিল্লি মেট্রো পুলিশের এক কর্মকর্তা জানান, সোমবার দুপুরে বচ্চন সিংহ নামে একজনকে আটক করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে সে চুরির কথা স্বীকার করে জানায়, চক্রটিতে ছয় জন নাবালকসহ একই পরিবারের ১৪ জন রয়েছে।

পুলিশকে বচ্চন জানান, তার সঙ্গীরা সবজি মান্ডি থানার কাছে একটি পার্কে দিনের একটা সময়ে বিশ্রাম নিতে যায়। এরপর কাশ্মীরি গেট মেট্রো পুলিশ সেখানে অভিযান চালিয়ে বাকি ১৩ জনকেও আটক করে। এ সময় তাদের কাছ থেকে ২৪টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়। আটককৃতরা আগরার কাছে বিষ্ণুপুরা গ্রামের বাসিন্দা।

পুলিশের দাবি, আটক ১৪ জন জানিয়েছে, তাদের গ্রামের অনেকে বছরের একটা নির্দিষ্ট সময় চুরি করে থাকে। অন্য সময়ে চাষাবাদ বা মুচির কাজ করে। তবে মোবাইল ফোন চুরিই তাদের আসল পেশা।

জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানায়, মাস কয়েক আগে তাদের পরিবারের কয়েক জন দিল্লিতে এসে বুঝতে পারে, মেট্রো রেল যাত্রীদের কাছ থেকে মোবাইল ফোন চুরি করা সহজ। এরপর পরিবারের সবাই মেট্রো রেলে মোবাইল ফোন চুরির পরিকল্পনা করে। ৫-৬ জন করে দুটি দলে ভাগ হয়ে তারা এ কাজ করত। একজনকে টার্গেট করা হতো প্রথমে। এরপর তাদের দলের একজন তাকে অন্যমনস্ক করে দিতো এবং অন্য একজন মোবাইল চুরি করে দলের অপর সদস্যের কাছে পাচার করে দিতো। সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস।

ভিএস

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71