বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮
বুধবার, ৭ই অগ্রহায়ণ ১৪২৫
 
 
কাঁচা কাঁঠাল রপ্তানির অনুরোধ কৃষিমন্ত্রীর
প্রকাশ: ০৫:২১ pm ১৬-০৬-২০১৭ হালনাগাদ: ০৫:২১ pm ১৬-০৬-২০১৭
 
 
 


অর্থনীতিঃ ভেজিটেবল মিট হিসেবে কাঁচা কাঁঠাল মধ্যপাচ্যে রপ্তানি করতে দেশের ফল রপ্তানিকারকদের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী।

আজ শুক্রবার রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ অডিটোরিয়ামে ফলদ বৃক্ষ রোপন পক্ষ ও জাতীয় ফল প্রদর্শনী অনুষ্ঠানে তিনি এ অনুরোধ জানান। প্রতি বছরের মতো এবারও কৃষি মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে তিন দিনব্যাপী (১৬-১৮ জুন) ফলদ বৃক্ষ রোপন পক্ষ ও জাতীয় ফল প্রদর্শনী শুরু হয়েছে আজ। এবারের প্রতিপাদ্য ‘খাদ্য পুষ্টি অর্থ চাই, দেশি ফলের গাছ লাগাই’। এই অনুষ্ঠানে ‘খাদ্য, পুষ্টি ও অর্থনৈতিক নিরাপত্তায় দেশি ফলের ভূমিকা’ শীর্ষক সেমিনারে বিশেষ অতিথি ছিলেন কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী।

তিনি বলেন, কাঁঠালে সব ধরনের ভিটামিন রয়েছে। কাঁঠাল, কাঁঠালের পাতা, কাঠ কোনো কিছুই ফেলানো যায় না। কাঁচা কাঠাল ভেজিটেবল মিট হিসেবে রান্না করে খাওয়া যায়। কাঁচা কাঠালের চামড়া ফেলে প্রক্রিয়াজাত করে ভারতসহ কয়েকটি দেশ ভেজিটেবল মিট হিসেবে রপ্তানি করছে। মধ্যপাচ্যে তারা বাজার দখল করেছে। যারা ফল রপ্তানি করেন তারা যদি কাঁচা কাঁঠাল ভেজিটেবল মিট হিসেবে রপ্তানি করতে পারেন; এতে অপার সম্ভাবনা রয়েছে।

দেশের কোন জায়গায় কীভাবে কাঠাল গাছ রোপন করা, বাঁচিয়ে রাখা ও কাঁঠাল উৎপাদন করা যায়- সে বিষয়ে জ্ঞান আহরণ এবং তা সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতে সম্প্রসারণ কর্মী, বিএডিসিসহ সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, এখন আমরা দেশি ফল উৎপাদন বা বিদেশি ফলের আমদানির কথা বলছি, এক সময় এসবের দিকে আমাদের নজর দেওয়ার সময় ছিল না। আমাদের একমাত্র কাজ ছিল দু’মুঠো ভাত পেট ভরে খাওয়া। আমরা এক দিকে ধান, সবজি ও ফলের উৎপাদনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছি। আমরা এখন আম উৎপাদনে সপ্তম, পেয়ারা উৎপাদনে অষ্টম। আমের নানাজাত উদ্ভাবনের ফলে আম এখন ছয়মাস পর্যন্ত পাওয়া যায়। বঙ্গবন্ধু কাঠালকে জাতীয় ফল হিসেবে ঘোষণা করেছিলেন। নতুন প্রজন্ম এটা জানে কি না সন্দেহ।

তিনি বলেন, আমাদের সুস্বাস্থ্যের জন্য প্রয়োজন দৈনিক ১১৫ গ্রাম ফল খাওয়া। আমরা খাই ৭৬ গ্রাম। এক সময় তো ৭ গ্রামও খেতে পারতাম না। বর্তমান সরকারের সময় ১১৫ গ্রাম কেন ১৫০ গ্রামে নিয়ে যাওয়া আমাদের জন্য খুব একটা কঠিন হবে না।

কৃষি সচিব মোহাম্মদ মঈনউদ্দীন আবদুল্লাহ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। সেমিনারে মুল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. এম মোফাজ্জল হোসেন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. মোশারফ হোসেন।

 

এইবেলাডটকম/গোপাল/এসএম/সুমন

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71