রবিবার, ২০ জানুয়ারি ২০১৯
রবিবার, ৭ই মাঘ ১৪২৫
 
 
কোণঠাসা বরেন্দ্রর ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী
প্রকাশ: ০১:০৫ pm ১২-১০-২০১৮ হালনাগাদ: ০১:০৫ pm ১২-১০-২০১৮
 
নওগাঁ প্রতিনিধি:
 
 
 
 


সমাজের মূলধারা থেকে দূরে থাকা নওগাঁর বরেন্দ্র এলাকার  ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর লোকদের জীবনে লাগেনি আধুনিকতার ছোঁয়া। ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর লোকদের জীবনমান উন্নয়নে সরকারের নেওয়া নানা পদক্ষেপ তাদের কাছে খুব কমই পৌঁছে। তাই অপুষ্টি, অবহেলা আর অনাদরে বেড়ে উঠছে নতুন প্রজন্ম। তারা বেড়ে উঠছে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে। প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষাবঞ্চিতও তারা। অশিক্ষা আর দারিদ্র্যের কারণে স্থানীয় প্রভাবশালীদের হাতে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর লোকেরা বঞ্চনার শিকার হচ্ছে হরহামেশা। তারা স্থানীয় জোতদার ও প্রভাশালীদের কূটকৌশলে হারাচ্ছে তাদের ভূমি। বিভিন্ন মামলায় দীর্ঘ সময়ে প্রভাবশালীদের সঙ্গে টিকে থাকতে না পেরেও ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে তারা। প্রভাবশালী গোষ্ঠীর হামলা-মামলার সঙ্গে উচ্ছেদ আতঙ্কে দিন পার করে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর নারী ও পুরুষরা। ফলে নিজেদের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে আন্দোলন-সংগ্রামের পথ বেছে নিচ্ছে তারা। 

স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও জেলা প্রশাসন বলছে, ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে নানা প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে।

নওগাঁর ঝিকরা বদ্ধপুকুর এলাকায় কয়েক শ ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর লোকদের বসবাস। কয়েক মাস আগে একটি প্রভাবশালী মহল এই  ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর লোকজনকে উচ্ছেদের চেষ্টা চালায়। সেখানকার বাসিন্দা মালা পাহান, প্রমলাসহ একাধিক নারী জানান, যুগ যুগ ধরে তাঁরা এখানে আছেন। কিন্তু হঠাৎ বুলডোজার এনে তাঁদের উচ্ছেদের চেষ্টা চালায় একদল দুর্বৃত্ত। অনুসন্ধানে জেলায় এমন একাধিক ঘটনা উঠে আসে। অনেকে প্রভাবশালীদের দাপটে টিকতে না পেরে বসতভিটা ছেড়ে অন্য জায়গায় আস্তানা করে আছেন। পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীকে এগিয়ে নিতে না পারলে টেকসই উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হবে বলে মনে করেন ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীদের নিয়ে কাজ করা নেতারা।

নওগাঁ জেলা বাসদের সমন্বয়ক জয়নাল আবেদিন মুকুল বলেন, বরেন্দ্র এলাকার ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর লোকেরা রাষ্ট্রীয়ভাবে যেমন নিগৃহীত হচ্ছে তেমনি আছে স্থানীয় প্রভাবশালীদের জুলুম-নির্যাতন। তিনি বলেন, আলোচিত আলফ্রেড সরেন হত্যা মামলার বিচার ১৮ বছরেও হয়নি। এর কারণ, ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর লোকদের মামলা পরিচালনায় সক্ষমতা নেই।

জেলা কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি মহসীন রেজা বলেন, বরেন্দ্র এলাকার ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর লোকেরা শিক্ষায় অনগ্রসর, সেই সুযোগ নিয়ে প্রভাবশালীরা তাদের ভূসম্পদ কুক্ষিগত করে রাখে। এখন এসব সম্পদ ফিরে পাওয়ার অনেক মামলার রায় হয়েছে। কিন্তু প্রভাবশালীদের দাপটে তা উদ্ধার করতে পারছে না ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর লোকেরা। ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর লোকদের জীবনমান উন্নয়নে সরকারের নানা কর্মসূচি থাকলেও তা সঠিক বাস্তবায়ন নিয়ে রয়েছে প্রশ্ন।

ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী নেতাদের সূত্রে জানা যায়, নওগাঁর বরেন্দ্র এলাকা সাপাহার, পোরশা, নিয়ামতপুর, ধামইরহাট, পত্নীতলা, মহাদেবপুরসহ ১১টি উপজেলায় সাঁওতাল, উড়াউ, মুন্ডা, পাহান, মাহালী, বাঁশফোর, ভুঁইমালীসহ অন্তত ৩৩টি ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী সম্প্রদায়ের আড়াই লাখ মানুষের বসবাস।

নি এম/
 

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71