বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০১৯
বৃহঃস্পতিবার, ৩রা শ্রাবণ ১৪২৬
 
 
কোর্টে ফেরার যুদ্ধ শুরু সাইনার সিন্ধুর চ্যালেঞ্জ প্রত্যাশার চাপ
প্রকাশ: ০৭:৫৯ pm ১৮-১০-২০১৬ হালনাগাদ: ০৭:৫৯ pm ১৮-১০-২০১৬
 
 
 


স্পোর্টস ডেস্ক: যে দিন সাইনা নেহওয়াল অলিম্পিক্সে পাওয়া চোট থেকে সেরে উঠে অনুশীলনে নামলেন, সে দিনই পিভি সিন্ধু রওনা দিলেন তাঁর অলিম্পিক্স-গৌরব রক্ষার্থে।

সোমবারটা যেন আরও একবার স্পষ্ট করে দিল এই মুহূর্তে ভারতীয় ব্যাডমিন্টনের দুই আইকনের মেরুকরণকে! সাইনা রিওতে গোড়ার দিকে রাউন্ডে বিদায় নেওয়ার পর দেশে ফিরেই হাঁটুতে অস্ত্রোপচার করাতে বাধ্য হন।

তার পরে এ দিনই বেঙ্গালুরুতে প্রকাশ পাড়ুকোনের অ্যাকাডেমিতে ব্যক্তিগত কোচ বিমল কুমারের তত্ত্বাবধানে প্র্যাকটিস শুরু করলেন। অন্য দিকে, হায়দরাবাদেরই আর ব্যাডমিন্টন তারকা সিন্ধু তাঁর প্রথম অলিম্পিক্সেই রুপো জেতেন।

তার পর মঙ্গলবার শুরু ডেনমার্ক ওপেন-ই তাঁর প্রথম টুর্নামেন্ট। যেখান থেকে শুরু হবে সিন্ধুর মাথায় ওঠা রুপোলি মুকুটের মর্যাদা অটুট রাখার কঠিন লড়াই।

প্রথম ভারতীয় ব্যাডমিন্টন প্লেয়ার হিসেবে অলিম্পিক ফাইনাল খেলা সিন্ধু রিও-উত্তর গত দেড় মাস সংবর্ধনা আর প্রশস্তিতে ভেসে যাওয়ার পর কতটা ফর্মে আর ম্যাচ ফিট আছেন তার জবাব কোপেনহাগেনেই পাওয়া যাবে বলে অনেক বিশেষজ্ঞের ধারণা। স্বভাবতই একুশ বছরের মেয়ের উপর ১.৩ বিলিয়ন ভারতবাসীর প্রবল প্রত্যাশা।

এবং সেটার এই তো শুরু বলেও মনে করছেন কেউ কেউ। ফলে সিন্ধুর জন্য ডেনমার্ক ওপেনের ড্র অন্য সময় হলে যতটা কঠিন মনে হত, এখন তার চেয়ে অবশ্যই কঠিনতর।

বুধবারই বিশ্ব র্যাঙ্কিংয়ে দশ নম্বর ভারতীয় তারকা ডেনমার্ক ওপেনে তাঁর দৌড় শুরু করছেন একেবারে সরাসরি মেয়েদের ব্যাডমিন্টনের সুপারপাওয়ার চিনা প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে।

তবে সিন্ধুর প্রথম ম্যাচের চিনা প্রতিপক্ষ বিংজিয়াও হি অতটা নামী নন। ডেনমার্কে ষষ্ঠ বাছাই সিন্ধু লটারিতে ড্রয়ের নীচের অর্ধে পড়েছেন। দ্বিতীয় বাছাই তাইল্যান্ডের ইন্তানন, চতুর্থ বাছাই কোরিয়ান সুং জি ইউন এবং পঞ্চম বাছাই চিনা তাইপের তাই জু ইংয়ের সঙ্গে।

যার পরে সিন্ধু বলছেন, ‘‘রিও অলিম্পিক্স আমার আত্মবিশ্বাস প্রচুর পরিমাণে বাড়িয়ে তুলেছে। আর সেই আত্মবিশ্বাসের জোরে আমি আশা করছি অনেক দূর যাব। তবে এখন থেকে আমার দায়িত্ব বরাবর বেড়েই চলবে।

পাশাপাশি এটাও ঠিক যে, আমি সেই চাপের কথা না ভেবে নিজের স্বাভাবিক খেলাটাই খেলব। এত দিন যে ভাবে খেলে এসেছি, ঠিক সেই ভাবে। বেশি চাপ নেওয়া উচিত হবে না।’’ সঙ্গে সিন্ধু আরও যোগ করেন, ‘‘আমি সেই আগের মতোই কোর্টে নামব, নিজের একশো শতাংশ দেব।’’ এ দিকে আবার বিংজিয়াওয়ের বিরুদ্ধে সিন্ধু হেড-টু-হেডে ১-৩ পিছিয়ে থাকায় অলিম্পিক্স রুপোজয়ীর প্রথম ম্যাচ নিয়েই টেনশনের চোরাস্রোত থাকছে তাঁর ভক্তকুলের ভেতর।

পাশাপাশি আবার আশার তথ্যও রয়েছে সিন্ধুর জন্য। পরপর দু’বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে ব্রোঞ্জজয়ী, অলিম্পিক্সে বিশ্বের তিন জন শীর্ষস্থানীয় তারকাকে হারিয়ে ফাইনালে উঠলেও সিন্ধুর সুপার সিরিজ টুর্নামেন্টে সেরা পারফরম্যান্স কিন্তু এই ডেনমার্ক ওপেনেই। গত বছরই তিনি এখানে রানার আপ হয়েছিলেন। যেটা সিন্ধুর একমাত্র সুপার সিরিজ ফাইনাল। যে ব্যাপারটায় কিন্তু আবার সাইনা নেহওয়াল অনেকটা এগিয়ে। একাধিক সুপার সিরিজ খেতাব জেতার গৌরবে।

এক্ষেত্রেও তাই এ বারের ডেনমার্ক ওপেন সিন্ধুর কাছে সাইনা-গ্রহ থেকে আরও বেরিয়ে আসার একটা পথ! সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

এইবেলাডটকম/পিসি

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71