মঙ্গলবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
মঙ্গলবার, ৭ই ফাল্গুন ১৪২৫
 
 
ক্যান্সার প্রতিরোধে যা খাবেন
প্রকাশ: ০২:৩৬ pm ২৩-০১-২০১৯ হালনাগাদ: ০২:৩৬ pm ২৩-০১-২০১৯
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


বর্তমান জীবনযাত্রায় যে সব অসুখ নিয়ত আমাদের ভাবনায় রাখে, তার অন্যতম হলো ক্যান্সার। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)-এর মতে, পৃথিবীতে প্রতিদিনই ক্যান্সার আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। অনিয়ন্ত্রিত খাদ্যাভ্যাস ও আধুনিক জীবনযাত্রার নানা ক্ষতিকারক দিকও এই অসুখের অন্যতম কারণ। তাই জীবনযাপনে নিয়ন্ত্রণ আনা ও ক্ষতিকারক অভ্যাসগুলো থেকে দূরে থাকা যেমন প্রয়োজন, তেমনই প্রতিদিনের খাদ্যতালিকাতেও যোগ করা উচিত এমন কিছু খাবার, যা শরীরে রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা বাড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে ক্যান্সার প্রতিরোধেও বিশেষ ভূমিকা নেয়। খুব ভারি খাবার, তেল-মশলার খাবার কমিয়ে বরং খাদ্যতালিকায় যোগ করুন এমন পুষ্টিকর কিছু উপাদান, যা এই রোগ প্রতিরোধে অনেকটাই সাহায্য করবে আপনাকে।

ব্রকোলি
ক্যান্সার প্রতিরোধে ব্রকোলির ভূমিকা অনস্বীকার্য। ব্রকোলিতে সালফোরাফেন থাকায় তা ক্যান্সার কোষ ধ্বংসে সক্ষম। কোলন, প্রস্টেট ও ব্রেস্ট ক্যান্সারের ক্ষেত্রে এই সবজি বিশেষ কার্যকর।

রসুন
সালফারে পরিপূর্ণ অ্যালিসিন ও ডায়াল্লিল ডিসালফাইড থাকায় রসুন নানা অসুখ প্রতিরোধ করতে পারে। টিউমার জাতীয় অসুখের প্রবণতা কমাতে সাহায্য করে রসুন। বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গিয়েছে প্রস্টেট ক্যান্সার প্রতিরোধে রসুনের বিকল্প নেই।

হলুদ
এই মসলা এমনিতেই প্রাকৃতিক অ্যান্টিসেপটিক। কোলনে কোনো রকম টিউমার বা ঘা কমাতে হলুদ বিশেষ উপকারি। গবেষণায় দেখা গিয়েছে, টানা এক মাস খাবারের সঙ্গে চার গ্রাম করে হলুদ মসলা হিসাবে যোগ করার পর কোলন ক্যান্সারে আক্রান্তদের শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে। ক্যান্সার কোষের বৃদ্ধি কমাতেও এই মসলা বিশেষ উপকারি।

অলিভ অয়েল
রান্নায় অলিভ অয়েল যোগ করতে পরামর্শ দেন ক্যান্সার বিশেষজ্ঞরা। তাদের মতে, অলিভ অয়েল কেবল মেদ কমায় না, রান্নায় অলিভ অয়েল ব্যবহার করলে বা স্যালাদের খেলে ক্যান্সার কোষের বৃদ্ধি কমে।

ফ্যাটি অ্যাসিডযুক্ত মাছ
 খাদ্যনালির ক্যান্সার কমাতে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড যুক্ত (স্যামন, ম্যাকারেল ইত্যাদি) মাছ খুবই উপকারি। ওমেগা থ্রি থাকায় এই সব মাছ খেলে তা ক্যান্সার প্রবণ কোষের বৃদ্ধি প্রতিরোধ করে। তাছাড়া এতে ভিটামিন ডি থাকায় তা ত্বকের ক্যান্সার প্রতিরোধেও খুবই কার্যকর।

গাজর
গাজরে আছে অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট। অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট জাতীয় খাবার ফ্যাট অক্সিডেশনে বাধা দেয় ও শরীরে ক্যান্সারের কোষ উৎপাদন কমায়। পৃথিবী জুড়ে বিভিন্ন গবেষণায় গাজরের ক্যান্সার প্রতিরোধের ক্ষমতার কথা সামনে এসেছে। গাজর সেদ্ধ করে স্যালাড থেকে শুরু করে বিভিন্ন রান্নায় গাজর যোগ করলে তা কোলন ক্যান্সার, পাকস্থলির ক্যান্সার প্রতিরোধে সাহায্য করে। 

আমেরিকান ক্যান্সার সোসাইটির এক জরিপ অনুসারে, প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় গাজর যোগ করলে প্রস্টেট ক্যান্সারের সম্ভাবনা প্রায় ১৮ থেকে ২০ শতাংশ কমে যায়। ফুসফুসের ক্যান্সার প্রতিরোধেও গাজরের বিশেষ ভূমিকা রয়েছে।

লেবু পানি
লেবু শরীরের টক্সিন দূর করে শরীরকে বিষমুক্ত রাখে। প্রতিদিন গরম পানিতে একটি পুরো পাতি লেবুর রস মিশিয়ে খেলে শরীরের টক্সিন দ্রুত বেরিয়ে যায়। সারা দিনে ৩-৪ বার এই পানীয় খেলে তা ক্যান্সারের আক্রমণ প্রতিরোধ করে বলে চিকিৎসকরা বলেন। আর গরম পানির সাথে লেবু মিশিয়ে খাওয়া হয় বলে গ্যাসজনিত সমস্যা থাকলেও লেবুর রস এ ক্ষেত্রে সমস্যা করে না।

নি এম/ 

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71