বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮
বুধবার, ৭ই অগ্রহায়ণ ১৪২৫
 
 
খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনে নারীর অবদান প্রশংসনীয় : মেহের আফরোজ চুমকি
প্রকাশ: ১২:৪৪ am ২৭-০৫-২০১৫ হালনাগাদ: ১২:৪৪ am ২৭-০৫-২০১৫
 
 
 


মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি বলেছেন, বাংলাদেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনের ক্ষেত্রে নারীর ভূমিকা অত্যন্ত প্রশংসনীয়।
তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের কৃষি এখনও প্রাতিষ্ঠানিকতা পায়নি। এদেশের কৃষি পরিবারকেন্দ্রিক আর প্রতিটি পরিবারে কৃষি কর্মে নারীদের ভূমিকা প্রধান।’
প্রতিমন্ত্রী আজ রাজধানীর গুলশানের ইমানুয়েল বানকুয়েট হলে ফিড দি ফিউচার বাংলাদেশ উইমেন্স এম্পাওয়ারমেন্ট একটিভিটি নামক প্রকল্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতা করছিলেন।
ইউএসএইড ও উইনরক ইন্টারন্যাশনাল যৌথভাবে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।
মেহের আফরোজ বলেন, আগামী ২০৫০ সালের মধ্যে পৃথিবীর জনসংখ্যা হবে প্রায় ৯ বিলিয়ন। খাদ্যের উৎপাদন বাড়াতে হবে প্রায় ৬০ শতাংশ। এই বিপুল পরিমাণ খাদ্যের উৎপাদন বৃদ্ধি করতে হলে নারীদেরকে ক্ষমতায়নের কোন বিকল্প নেই। কৃষিতে নারীর অংশগ্রহণ বাড়ানোর পাশাপাশি নারীদের উন্নত প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষতা বৃদ্ধি ও গবেষণা জোরদার করা জরুরি।
ফিড দি ফিউচার বাংলাদেশ উইমেন্স এম্পাওয়ারমেন্ট একটিভিটি’র ডেপুটি চীফ মিজ নিলুফার সুলতানার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন উইনরক ইন্টারনেশনালের ডাইরেক্টর মারথা সালডিনজার, ফিড দি ফিউচার বাংলাদেশের চীফ জায়নব আক্তার ও ঢাকা আহসানীয়া মিশনের প্রেসিডেন্ট কাজী রফিকুল আলম।

এই প্রকল্পের মাধ্যমে উইনরক ইন্টারন্যাশনাল, ইউএসএইড-এর আর্থিক সহায়তায় সরকার, সিভিল সোসাইটি এবং প্রাইভেট সেক্টরের সাথে সমন্বয় করে বাংলাদেশের ৫টি জেলায় তিন বছর ধরে কৃষিতে নারীর অংশগ্রহণ নিশ্চিত করে নারী নেতৃত্ব, নারীর আয় এবং সিদ্ধান্ত গ্রহণে নারীর অংশগ্রহণ ত্বরান্বিত করবে। তারা এই প্রকল্পের মাধ্যমে ৩০ হাজার নারীকে কৃষি পণ্য উৎপাদনে দক্ষতা বৃদ্ধিতে প্রশিক্ষণ প্রদান এবং আর্থিক সহায়তা করবে।

এইবেল ডট কম/এইচ আর

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71