বৃহস্পতিবার, ২৪ জানুয়ারি ২০১৯
বৃহঃস্পতিবার, ১১ই মাঘ ১৪২৫
 
 
গলাচিপায় অফিস সহকারী কমল কৃষ্ণকে লাঞ্ছিত করেছে ইউপি চেয়ারম্যান
প্রকাশ: ০৯:১৩ pm ১৩-০৭-২০১৮ হালনাগাদ: ০৯:১৩ pm ১৩-০৭-২০১৮
 
পটুয়াখালী প্রতিনিধি:
 
 
 
 


গলাচিপায় কলাগাছিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অফিস সহকারী কমল কৃষ্ণ মজুমদারকে লাঞ্ছিত করে জোর পূর্বক পদত্যাগপত্রে স্বাক্ষর করিয়ে নিয়েছেন কলাগাছিয়া ইউপি চেয়ারম্যান দুলাল চৌধুরী ও তার সহযোগিরা। 

ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার কলাগাছিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শুক্রবার দুপুরে। এ নিয়ে এলাকার অভিভাবক মহলে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। লাঞ্ছিত ঐ অফিস সহকারী কলাগাছিয়া পুলিশ ফাঁড়িতে জিডি করতে গেলে পুলিশ জিডি গ্রহন করেনি।
   
সূত্র জানায়, বুধবার কলাগাছিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আবুল কালাম আজাদ ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্যদের নোটিশ বইতে নোটিশ না করে স্কুলের প্যাডে শুক্রবার সকালে সভা ডাকেন। এ কারণে স্কুলের পরিচালনা কমিটির অভিভাবক সদস্যরা সভা বয়কটের সিদ্ধান্ত গ্রহন করেন। সভায় অভিভাবক সদস্য ৫ জনের কেউই উপস্থিত হননি। এমনকি ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আবুল কালাম আজাদও সভায় অনুপস্থিত থাকেন। তার কক্ষও দুপুর ১২টা পর্যন্ত ছিল তালাবদ্ধ। এ সময় স্কুলে উপস্থিত অফিস সহকারী কমল কৃষ্ণ মজুমদারকে প্রধান শিক্ষকের কক্ষ খুলে দিতে বলেন পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও কলাগাছিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম দুলাল চৌধুরী। তবে অফিস সহকারি কমল কৃষ্ণ তার কাছে চাবি নাই জানালে চেয়ারম্যান ও তার সহযোগিরা অকথ্য ভাষায় গালাগালি ও চড় থাপ্পড় মারেন এবং কমল কৃষ্ণের কাছ থেকে জোর করে পদত্যাগপত্র লিখিয়ে নেন। এতে উপস্থিত লোকজন হতবাক হয়ে যায়।

এ ঘটনার শিকার অফিস সহকারি কমল কৃষ্ণের কাছে জানতে চাইলে তিনি ঘটনাটি সত্য বলেন, এ ঘটনায় কলাগাছিয়া পুলিশ ফাড়িতে গেলে তার জিডি নেয়া হয়নি। তবে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি মু.হালিম মিয়াকে অবহিত করেছি। 

কলাগাছিয়া পুলিশ ফাড়ির এএসআই মেহেদি হাসান জানান, অফিস সহকারী কমল কৃষ্ণ ফাড়িতে এসেছিল। তবে তিনি নিজেই গলাচিপা থানার উদ্দেশ্যে বেরিয়ে যান।

এ ব্যপারে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি মু.হালিম মিয়া জানান, ঘটনাটি সম্পর্কে কমল কৃষ্ণ আমাকে জানিয়েছে। উপযুক্ত প্রমানাদিসহ সমিতি বরাবর লিখিত আবেদন করার জন্য বলা হয়েছে।

এব্যাপারে অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান দুলাল চৌধুরীর মুঠোফোনে একাধিকবার কল করলে তিনি রিসিভ করেন নি।


এসডি/বিডি

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71