শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮
শনিবার, ৭ই আশ্বিন ১৪২৫
 
 
গুপ্তধন এবার ভারতে!
প্রকাশ: ০৪:২৮ pm ২৪-০৭-২০১৮ হালনাগাদ: ০৪:২৮ pm ২৪-০৭-২০১৮
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


প্রায় দেড়শো বছরের পুরনো ভবনটি। এখান থেকেই বেরোল গুপ্তধন যা কারো কল্পনাতেও ছিলো না। জমির দলিল আর রোলেক্স ঘড়ি থেকে শুরু করে সোনা হীরাসহ বিদেশী বিভিন্ন দামি জিনিসপত্র খুঁজে পাওয়া গেল পরিত্যাক্ত লকার থেকে।

দীর্ঘদিন ক্লাবের পরিত্যক্ত লকারগুলো নিয়ে বিব্রত ছিলেন ক্লাব কর্তৃপক্ষ। বারবার নোটিশ দেওয়া হলেও কোনো সদস্যই লকারের খোঁজে আসেননি। উপায় না দেখে ভেঙে ফেলা হয় লকার। কিন্তু ভেঙে ফেলার পর হতভম্ব হয়ে পড়তে হয়। কারণ লকারগুলো ভেঙে পাওয়া গেছে ৫০০ কোটি রুপি।

এনডিটিভি ও টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে বলা হয়েছে, ভারতের কর্ণাটক রাজ্যের রাজধানীর বেঙ্গালুরুর একটি অভিজাত এলাকা সেন্ট মার্কস রোড। এ রোডের একটি ব্যাডমিন্টন ক্লাবের প্রায় ১০০০ হাজার জন সদস্য রয়েছেন। ওই ক্লাবের কিছু পরিত্যক্ত কক্ষে বেশ কিছু লকার রয়েছে। লকারগুলো কার, এটা জানতে সদস্যদের চিঠি দিয়েছে ক্লাব কর্তৃপক্ষ।

চিঠির উত্তর না পেয়ে শুক্রবার আয়কর বিভাগের লোকজন প্রায় ১৫০ বছর পুরোনো ওই ভবনের কয়েকটি লকার ভেঙে ফেলেন। ভেঙে ফেলার পর তিনটি লকার থেকে নগদ অর্থ, হীরা ও সোনা উদ্ধার করা হয়। লকারগুলোতে নগদ ১৪ কোটি রুপি, ৭ কোটি ৮০ লাখ রুপি মূল্যের হীরা এবং ৬৫০ গ্রাম সোনা পাওয়া গেছে। একটি রোলেক্স ঘড়ি ও অন্য আর একটি ঘড়ির আর্থিক মূল্য ৩৫ থেকে ৪০ লাখ রুপি।

লকারের ছয়টি ব্যাগে এসব পাওয়া যায়। ৬৯, ৭১ ও ৭৮ নম্বরের লকারের মধ্যে এসব সম্পদ পাওয়া যায়। পরে অবশ্য স্থানীয় রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ী অবিনাশ অমরলাল কুকরেজা সম্পদের মালিকানা দাবি করেন। তবে তার দাবি এখনো বিশ্বাস করেনি স্থানীয় আয়কর বিভাগ। তারা সব সম্পদ বাজেয়াপ্ত করেছে।

বিডি

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71