মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০১৯
মঙ্গলবার, ১লা শ্রাবণ ১৪২৬
 
 
গৌরীপুরে এক কিশোরী ধর্ষণের শিকার, ৭ মাসের অন্তসত্ত্বা 
প্রকাশ: ০২:৩২ pm ১০-০১-২০১৯ হালনাগাদ: ০২:৩২ pm ১০-০১-২০১৯
 
ময়মনসিংহ প্রতিনিধি
 
 
 
 


স্থানীয় লম্পট যুবক সোহেল মিয়ার (৩০) ধর্ষণের শিকার ১৫ বছরের কিশোরী এখন ৭ মাসের অন্তসত্ত্বা। ধর্ষিতা পিতৃহারা কিশোরী প্রায় ৮ মাস পূর্বে ওই যুবকের বাড়িতে বাঁশ বেতের কাজ করতে গেলে খালি ঘরে মুখ বেঁধে ধর্ষণ করা হয় তাকে। ধর্ষক যুবকের হুমকীর মুখে ওই কিশোরী ঘটনাটি কাউকে না জানালেও ৭ মাসের অন্তসত্ত্বা হওয়ার পর এ ঘটনা জানাজানি হয়। এ নিয়ে এলাকায় দেন-দরবার হলেও ধর্ষক যুবক ও তার পরিবার ওই কিশোরীকে ঘরে তুলে নিতে রাজী হয়নি। বর্তমানে ধর্ষিতা কিশোরী ও তার পরিবার আগত সন্তানের পিতৃ পরিচয়ের স্বীকৃতির জন্য মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন। 

ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার হাটশিরা গ্রামে এ ধর্ষণের ঘটনাটি ঘটেছে। 

ধর্ষক যুবক সোহেল উল্লেখিত গ্রামের ইউসূফ আলীর ছেলে। ধর্ষিতা কিশোরীর বাড়ি একই গ্রামে।

ওই কিশোরী সাংবাদিকদের জানায়, গত রমজান মাসে পেটের দায়ে প্রতিবেশী সোহেলের বাড়ীতে বাঁশ বেতের কাজ করতে যায়। এসময় বাড়িতে কোন লোকজন না থাকার সুযোগে সোহেল তার ঘরে মুখ বেঁধে জোরপূর্বক তাকে ধর্ষণ করে। ধর্ষণের পর এ ঘটনা প্রকাশ করলে মেরে ফেলার হুমকিও দেয় সোহেল। মৃত্যুর ভয়ে এ ঘটনা কাউকে জানায়নি সে। পরবর্তীতে ওই কিশোরীর শারীরিক অবস্থার পরিবর্তন হলে ঘটনাটি তার মাকে জানায়। ৩ জানুয়ারী স্থানীয় এক ডায়াগোনেস্টিক সেন্টারে প্রেগনেন্সি পরীক্ষায় জানা যায় ওই কিশোরী ৭ মাসের অন্তসত্ত্বা। 

কিশোরীর মা জানান, এ ঘটনা এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিকে জানালে ৪ জানুয়ারী ধর্ষক পরিবারের উপস্থিতিতে একটি দেন-দরবার হয়। এসময় স্থানীয় লোকজন সোহেলের বাবা ইউসূফ আলীকে কিশোরীকে পুত্রবধূ হিসেবে ঘরে তুলে নেয়ার প্রস্তাব দিলে তিনি এতে অপরাগতা প্রকাশ করেন।

ধর্ষকের পিতা ইউসূফ আলী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে ওই কিশোরীকে পুত্রবধূ হিসেবে ঘরে আনার তাদের বাড়ীতে গিয়েছিলাম। এসময় ওই কিশোরীর নামে ৩০ শতক জমি লিখে দেয়ার প্রস্তাব ও ৫ লক্ষ টাকার কাবিন দাবি করা হয় তার কাছে। তাই এ ঘটনাটির কোন আপোস মিমাংসা হয়নি।

নি এম/

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71