শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮
শনিবার, ৩রা অগ্রহায়ণ ১৪২৫
 
 
চন্ডিগাছায় উড়ছে সহশ্রাধিক ব্রাজিল-আর্জেনটিনার পতাকা 
প্রকাশ: ১০:৪১ am ২৬-০৫-২০১৮ হালনাগাদ: ১০:৪১ am ২৬-০৫-২০১৮
 
নাটোর প্রতিনিধি
 
 
 
 


বিশ্বকাপ ফুটবলের উদ্বোধনের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে ততই বিশ্বকাপের উত্তাপ ছড়িয়ে পড়ছে বিশ্বের অন্যান্য দেশের মত বাংলাদেশের গ্রাম-গঞ্জেও। তবে কোথাও কোথাও উত্তাপের পাশাপাশি উনমত্ততাও প্রকাশ পাচ্ছে। তেমনি উনমত্ততা ও নিজ দলের প্রতি ভালোবাসা দেখা যায় নাটোরের লালপুর উপজেলার চন্ডিগাছা এলাকায় কয়েকজন ব্রাজিল-আর্জেনটিনা ভক্তদের মধ্যে। এখন আর তাদের মধ্যে আওয়ামীলীগ-বিএনপি’র ভেদাভেদ নেই। নিজ নিজ দলের সমর্থনের জানান দিতে গোপালপুর-আব্দুলপুর সড়কের দুধারে ওই এলাকায় তিন কিলোমিটার এলাকা জুড়ে উড়ছে সহশ্রাধিক ব্রাজিল-আর্জেনটিনার পতাকা। আর এ পতাকার সংখ্যা দিন দিন বেড়েইে চলেছে।

আর্জেনটিনার ভক্ত ওই বাজারের চা বিক্রেতা আব্দুল হাকিম (৪০) ও বীর মুক্তিযোদ্ধা শাকের আলীর ছেলে শাহিনুর রহমান (৩০) আর্জেনটিনার পতাকা টাঙ্গানোর প্রধান উদ্যোক্তা। চা বিক্রেতা আব্দুল হাকিম জানান, চা বিক্রি করে যে আয় হয় তার এবং শাহিনুর দুজনের অর্থায়নে ১ এপ্রিল থেকে প্রতিদিন রাত ১০ টার সময় ১০টি করে আর্জেনটিনার পতাকা টাঙ্গিয়ে যাচ্ছি,আর এ অভিযান চলবে খেলা শুরুর দিন পর্যন্ত। অপর উদ্যোক্তা শাহিনুর রহমান জানান, পতাকা টাঙ্গানোর পাশাপশি আর্জেনটিনা ভক্তদের বড় পর্দায় খেলা দেখানোর জন্য নিজ অর্থায়নে প্রজেক্টর কেনা হবে। অপরদিকে ব্রাজিলভক্ত মিজান মেম্বর, মাহাবুর, রাজিব, রেজাউল আলমসহ কয়েকজন যুবক মিলে ওই একই সড়কের উত্তর দিকে টাঙ্গানো কয়েক’শ ব্রাজিলের পতাকা পত পত করে উড়ছে, যার সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। 

এ ভক্তদের মধ্যে মিজান মেম্বর জানান, ব্রাজিলকে জেতানোর জন্য আমরা সবসময় দোয়া করছি, ইতিমধ্যেই পতাকার জন্য প্রায় ৪০-৫০ হাজার টাকা ব্যায় করা হয়েছে। ব্রাজিলভক্তদের খেলা দেখার জন্য আমরা প্রজেক্টরের ব্যাবস্থা তো করবোই। পাশাপশি নিরবিচ্ছিন্নভাবে খেলা দেখার জন্য জেনারেটরের ব্যবস্থা করা হবে। একই জায়গায় দুদলের এমন অবস্থান কোন সংঘাতে নিয়ে যাবে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, আমরা ভিন্ন দলের সমর্থক হলেও আমরা সবাই আত্মীয়, এক জায়গার মানুষ এবং সারা জীবন এক সাথে এক জায়গায় বাস করবো, তাই খেলা নিয়ে উত্তেজনা থাকলেও মনো-মালিন্ন হবে না, এ বিষয়ে আমরা সচেতন ও সতর্ক আছি।

নি এম/রাকিবুল

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71