বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮
বৃহঃস্পতিবার, ৫ই আশ্বিন ১৪২৫
 
 
চলতি অর্থবছরে রফতানি আয়ের প্রবৃদ্ধি ৬.৪১ শতাংশ
প্রকাশ: ০৫:৩৪ pm ১১-০৫-২০১৮ হালনাগাদ: ০৫:৩৪ pm ১১-০৫-২০১৮
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


চলতি অর্থবছরের প্রথম ১০ মাসে রফতানি আয়ের লক্ষ্যমাত্রা ছিল তিন হাজার ৪৯ কোটি মার্কিন ডলার। আয় হয়েছে তিন হাজার ৪০ কোটি ডলার।

গত অর্থবছরে একই সময়ে রফতানি আয় ছিল দুই হাজার ৮৫৭ কোটি ডলার। গত অর্থবছরের তুলনায় এ বছর রফতানি আয়ের প্রবৃদ্ধি দাঁড়িয়েছে ৬ দশমিক ৪১ শতাংশ। এ ছাড়া একক মাস হিসেবে শুধু এপ্রিলে রফতানি আয়ের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হয়েছে। এ মাসে রফতানির টার্গেট ছিল প্রায় ২৯৪ কোটি ডলার। আয় হয়েছে প্রায় ২৯৫ কোটি ডলার। গত বছরের একই সময়ের তুলনায় প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৭ দশমিক ১১ শতাংশ। বৃহস্পতিবার রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা যায়।

ইপিবির একজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা জানান, বিশ্ববাজারে রফতানি পরিস্থিতি, ভোক্তার চাহিদা এবং রফতানিকারকদের সরবরাহ সক্ষমতা সব সময় এক তালে চলে না। তবে আমাদের রফতানি খাতে আশার খবর হচ্ছে- দু’একটি খাত ছাড়া বাকি সব খাতেই আয় বেশি হচ্ছে এবং পণ্যে ভালো প্রবৃদ্ধি অর্জিত হচ্ছে। এ প্রবৃদ্ধিই সামনে রফতানির লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সহায়ক ভূমিকা রাখবে।

ইপিবি’র প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এ সময়ে নিটওয়্যার খাতে রফতানি আয় হয়েছে এক হাজার ২৫৪ কোটি ডলার। ওভেন খাতে আয় এক হাজার ২৭৬ কোটি ডলার।

দুই খাতে এসেছে দুই হাজার ৫৩০ কোটি ডলার। টার্গেট ছিল দুই হাজার ৪৫২ কোটি ডলার। টার্গেটের তুলনায় আয় কমলেও ১০ মাসে এ খাতে প্রবৃদ্ধি ৩ দশমিক ১৭ শতাংশ। এ ছাড়া হোম টেক্সটাইল খাতে রফতানির টার্গেট ছিল ৭১ কোটি ডলার। আয় হয়েছে প্রায় ৭৫ কোটি ডলার। টার্গেটের চেয়ে রফতানি আয় বেশি হয়েছে ৫ দশমিক ৩ শতাংশ, প্রবৃদ্ধি হয়েছে ১৩ শতাংশ।

এদিকে কৃষিজাত পণ্য খাতে রফতানির টার্গেট ছিল ৪৬ কোটি ডলার, আয় হয়েছে ৫৪ কোটি ডলার। দশ মাসে টার্গেটের চেয়ে আয় বেশি হয়েছে ১৫ দশমিক ৯৬ শতাংশ। প্রবৃদ্ধি হয়েছে ১৬ দশমিক ৭৭ শতাংশ। হিমায়িত খাদ্য ও মৎস্য খাতে রফতানির টার্গেট ছিল ৪৩ কোটি ৫০ লাখ ডলার। আয় হয়েছে ৪৩ কোটি ৪৯ লাখ ডলার। আয় কমলেও এ খাতে প্রবৃদ্ধি হয়েছে ২ দশমিক ৩২ শতাংশ। পাট ও পাটজাত পণ্য খাতে দশ মাসে রফতানির টার্গেট ছিল ৮৫ কোটি ডলার। আয় হয়েছে ৮৮ কোটি ডলার। এ খাতে আয় বেড়েছে ৩ দশমিক ৭০ শতাংশ। প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৭ দশমিক ৬৬ শতাংশ। অন্য দিকে প্রথম দশ মাসে চামড়া ও চামড়াজাত পণ্য খাতে রফতানির টার্গেট ছিল ১১২ কোটি ডলার। আয় হয়েছে ৯১ কোটি ডলার। আয় কম হয়েছে ১৮ দশমিক ৩২ শতাংশ।

রফতানিকারকরা বলছেন, রফতানি খাতে প্রবৃদ্ধি ধারাবাহিকভাবে বাড়ছে। অনেক খাতে আয় বাড়ছে না। এটিই শঙ্কার বড় কারণ। এটি ভালো লক্ষণ নয়।

সামনে ২০২১ সাল নাগাদ সার্বিক রফতানি খাত থেকে ৭০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার এবং এককভাবে তৈরি পোশাক খাত থেকে ৫০ বিলিয়ন ডলার আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। তা অর্জন করতে হলে প্রতি মাসেই রফতানি আয়ে প্রবৃদ্ধি থাকতে হবে ১১-১২ শতাংশ হারে।


বিডি

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71