সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০১৯
সোমবার, ৯ই বৈশাখ ১৪২৬
সর্বশেষ
 
 
চার বছরে সিরিয়ায় নিহত প্রায় আড়াই লাখ
প্রকাশ: ০৭:২৬ am ১৭-০৩-২০১৫ হালনাগাদ: ০৭:২৬ am ১৭-০৩-২০১৫
 
 
 


সিরিয়ার গৃহযুদ্ধ পঞ্চম বছরে গড়ালো। গত চার বছর ধরে চলমান এ সংঘর্ষে নিহত হয়েছে ২ লাখ ৩০ হাজারেরও বেশি মানুষ। মোট জনসংখ্যার প্রায় অর্ধেক মানুষ উদ্বাস্তুতে পরিণত হয়েছে। সরকার ও বিদ্রোহীদের মধ্যে সংঘর্ষের পাশাপাশি উদ্ভব ঘটেছে আইএস’এর। মানবাধিকার সংগঠনগুলো ক্রমেই সিরিয়ার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে না পারায় আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের ব্যর্থতার বিরুদ্ধে সোচ্চার হচ্ছেন।
এ চার বছরে সরকারি বাহিনী, সশস্ত্র বিদ্রোহী বাহিনী, কুর্দি যোদ্ধা ও অন্যান্য বিদ্রোহীরা পরস্পরের সঙ্গে লড়াই করে আসছে। দুই দফা শান্তি আলোচনায় কোনো ফলাফল আসেনি। এমনকি আলেপ্পোতে স্থানীয় একটি যুদ্ধবিরতির প্রস্তাবও মাঠে মারা গেছে।
২০১১ সালের ১৫ মার্চ সরকারবিরোধী প্রতিবাদকারীরা রাস্তায় নেমে আসে। মূলত আরব দেশগুলোতে বয়ে যাওয়া আরব বসন্তের ঢেউ এসে পড়ে সিরিয়ায়। তবে সেসময় বিক্ষোভকারীদের বেশ কঠোর হাতেই দমন করে সরকার। ক্রমেই ধীরে ধীরে চ’ড়ান্ত সংঘাতের দিকে যেতে থাকে দেশটি।
সিরিয়ান শিক্ষাবিদ ও দোহা ইন্সটিউটের বিশ্লেষক মারওয়ান কাবালান বলেন, কেউই আসলে ধারণা করেনি সংঘাত এ পর্যায়ে এসে পৌঁছাবে। আমরা আসলে জাতীয় দুর্যোগের মধ্যে অবস্থান করছি। আমি মনে করি, শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভকারীদের অস্ত্রের ভাষায় প্রতিহত করার ফলেই এ সাংঘর্ষিক অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে, যা আমরা আজ প্রত্যক্ষ করছি।
জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা (ইউএনএইচসিআর) বলেছে, আমাদের যুগের সবচেয়ে বড় জরুরি মানবিক বিপর্যয় হচ্ছে সিরিয়া। প্রায় ৪০ লাখ মানুষ অন্য দেশে পালিয়ে গেছে। ১০ লাখেরও বেশি মানুষ প্রতিবেশী দেশ লেবাননে আশ্রয় গ্রহণ করেছে। সিরিয়ার অভ্যন্তরে ৭০ লাখেরও বেশি মানুষ উদ্বাস্তু হয়েছে।
জাতিসংঘ বলেছে, দেশটির মোট জনসংখ্যার ৬০ শতাংশই এখন দারিদ্র্যসীমার নিচে বসবাস করছে। দেশের অবকাঠামোগত পরিস্থিতি মারাত্মক অবস্থায় রয়েছে। মুদ্রা রয়েছে অবনতিশীল অবস্থায়। অর্থনীতিবিদরা বলছেন, দেশটির অর্থনীতি পিছিয়ে গেছে প্রায় ৩০ বছর! -আল জাজিরার।
 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71