শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮
শুক্রবার, ৬ই আশ্বিন ১৪২৫
 
 
চাহিদা অনুযায়ী ওএমএসের চাল পাচ্ছে না ক্রেতারা
প্রকাশ: ১১:০৯ am ০৯-১০-২০১৭ হালনাগাদ: ১১:০৯ am ০৯-১০-২০১৭
 
শেরপুর প্রতিনিধি
 
 
 
 


শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলায় চাহিদা অনুযায়ী ওএমএস’র চাল পাচ্ছেন না ক্রেতারা। ঘণ্টার পর ঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়ে থেকে চাল না পেয়ে শূণ্য হাতে বাড়ি ফিরতে হচ্ছে ক্রেতাদের। ৩ জন ডিলারের মাধ্যমে প্রতিদিন ৩ মে.টন করে চাল খোলা বাজারে বিক্রি করা হচ্ছে। চালের বাজার স্থিতিশীলতায় আনতে সরকার এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। কিন্তু খুচরা বাজারে চালের দাম তেমন একটা কমেনি।  ৩ মে.টন চাল বিতরণ করা হলেও তা প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল।

সরেজমিনে দেখা গেছে, উপজেলা সদরের ওএমএস ডিলার আব্দুর রহিম, মো. জয়নাল আবদীন ও মো. আবুল কালামের দোকানে ক্রেতাদের দীর্ঘ লাইন। লাইনে দাঁড়ানো নারী-পুরুষ, বৃদ্ধরা বাজারের চেয়ে কেজি প্রতি প্রায় ২০ টাকা কম মূল্যে চাল কেনার জন্য ঘণ্টার পর ঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন। সকাল ৯টায় ১টন চাল বন্টন শুরু হলেও ১২টার মধ্যে তা শেষ হয়ে যায়। কিন্তু বরাদ্দ কম হওয়ায় প্রায় প্রতিদিন বহু ক্রেতা শূণ্য হাতে বাড়ি ফিরছেন।
 
ওএমএস’র চাল কিনতে আসা উপজেলার ভাটপাড়া গ্রামের মো. ইদ্রিস আলী বলেন, সকাল ৯টায় লাইনে দাঁড়িয়েছিলাম ১২টা না বাজতে চাল শেষ। তাই শূণ্য হাতে বাড়ি ফিরতে হচ্ছে। ডেফলাই গ্রামের আমেনা বেগম বলেন, বাজারে চালের দাম বেশি থাকায় সকাল ৮ টায় লাইনে দাঁড়িয়ে ১১টায় চাল পেলাম মাত্র ৫কেজি। ওএমএস ডিলার মো. আবুল কালাম বলেন, গত কয়েক দিনের চেয়ে চাহিদা বেড়েছে। অনেক মানুষ শূণ্য হাতে বাড়ী ফিরছে।
 
এ ব্যাপারে উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মোহাম্মদ খলিলুর রহমান বলেন, সরকারী নির্দেশনা মোতাবেক এ উপজেলায় ১২জন ডিলারের মধ্যে ৩ জন ডিলারকে চাল বিক্রির জন্য নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। তবে বর্তমানে বাজারের চালের মূল্য বৃদ্ধি থাকায় খোলা বাজারে চাহিদা বৃদ্ধি পেয়েছে। 

জেএইচএম/বিএম/

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71