শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০
শনিবার, ১১ই আশ্বিন ১৪২৭
সর্বশেষ
 
 
চিকিৎসায় স্বাভাবিক জীবন পেতে পারে শিশু সাব্বির
প্রকাশ: ০৫:৩৬ am ১৭-০৪-২০১৬ হালনাগাদ: ০৫:৩৬ am ১৭-০৪-২০১৬
 
 
 


 

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলায় কালিয়া কান্দাপাড়ায় ভিন্ন রকমের ঠোট কাটা রোগের সন্ধান পাওয়া গেছে। মায়ের গর্ভ থেকে জন্ম গ্রহন করেই মুখ ও নাকের সাথে সংযোগ ছাড়া ঠোট কাটা রোগ নিয়ে পৃথিবীতে আলোর মুখ দেখছে কালিয়া কান্দাপাড়া গ্রামের ফরিদুল ইসলামের ছেলে সাব্বির হোসেন (শুভ) তিন মাস বয়সের শিশু। 

শিশুটির বাবা ফরিদুল ইসলাম পেশায় একজন রিক্সা চালক। দৈনিক রোজগার করলে পেটে ভাত ওঠে অন্যথায় না খেয়ে থাকতে হয় পরিবারের সবাইকে আর সাব্বিরের চিকিৎসা করতে প্রয়োজন প্রায় চল্লিশ হাজার টাকা। সন্তানের সুস্থ জীবন ফিরে পেতে তার পক্ষে এত টাকা সংগ্রহ করা অসাদ্ধ ব্যাপার।সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালের চিকিৎসক জানান, ৫-৬ কেজি ওজন হলে দ্রুত সময়ে চিকিৎসা করলে স্বাভাবিক জীবন পাবে শিশু সাব্বির হোসেন শুভ। বাংলাদেশে প্রতিবছর প্রায় ৪ থেকে ৫ হাজার ঠোঁট কাটা শিশু জন্মগ্রহণ করে। এ ধরনের একটি শিশুর অপারেশন করতে হলে প্রয়োজন ৩০ থেকে ৩৫ হাজার টাকা। যাদের সামর্থ্য আছে তারা ঠিকই নিজের শিশুকে চিকিৎসার মাধ্যমে ভাল করে স্বাভাবিক জীবনে নিয়ে যেতে পারেন।

অনুসন্ধানে জানা যায়, মায়ের গর্ভে প্রাথমিক পর্যায়ে এসব শিশু সাধারণ শিশুর মতো বাড়তে থাকলেও পরে তাদের মুখমন্ডলের দুটি অংশ সঠিকভাবে যুক্ত হয়না। এই অসঙ্গতির প্রকৃত কারণ এখনো উদঘাটিত করতে পারেনি কেউ। কিছু কিছু শিশুর ক্ষেত্রে ঠোঁট দ্বি-খন্ডিত হওয়ার বা এই অবস্থায় জন্মগ্রহণের পারিবারিক ইতিহাসও থাকে।

কিন্তু অনেক সময় এ ধরণের রোগী জন্মগ্রহণের ক্ষেত্রে সূর্যগ্রহণ বা কোনো পাপের ফল এর জন্য দায়ী করা হয়। যা সম্পুর্ণ কুসংস্কার। যদি এটি বংশগত কারণে হয় তাহলে গর্ভধারণের প্রথম দু’মাসের মধ্যেই ভিটামিন ওষুধ এবং অন্যান্য পুষ্টিকারক খাদ্যের দ্বারা এই অভাব পুরণ করা সম্ভব।

 

এইবেলাডটকম/চন্দন কুমার আচার্য/এআরসি

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 

 

E-mail: info.eibela@gmail.com

a concern of Eibela Ltd.

Request Mobile Site

Copyright © 2020 Eibela.Com
Developed by: coder71