শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮
শুক্রবার, ৬ই আশ্বিন ১৪২৫
 
 
চিতলমারীতে একটি হিন্দু বাড়ি পুড়িয়ে ছাই করে দিল
প্রকাশ: ১০:১৯ am ১৬-১১-২০১৭ হালনাগাদ: ১২:৩৮ pm ১৮-১১-২০১৭
 
বাগেরহাট প্রতিনিধি
 
 
 
 


বাগেরহাটের চিতলমারীতে একটি হিন্দু পরিবারের বসত বাড়ি আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে ফারুক শেখ। স্থানীয় দুই প্রতিবেশির জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ঝষিকেশ মন্ডল ও তার স্ত্রী শেফালি রাণী মন্ডলকে ঘরে তালাবদ্ধ করে পুড়িয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে তারা পরিকল্পিতভাবে এই আগুন দেয় বলে অভিযোগ তাদের।

মঙ্গলবার আনুমানিক রাত দেড়টার দিকে চিতলমারী উপজেলার সদর ইউনিয়নের আরুলিয়া গ্রামের ঝষিকেশ মন্ডলের বাড়িতে এই আগুনের ঘটনা ঘটে। আগুনে ঝষিকেশ মন্ডলের বসত ও রান্নাঘর এবং পাশ^বর্তি সুনীল মন্ডলের একটি রান্নাঘর সম্পূর্ণ ভষ্মিভূত হয়।

এ সময় ঝষিকেশের ঘরে থাকা আলমারি, রেফ্রিজারেটর, স্বর্ণালংকার, নগদ টাকাসহ কমপক্ষে দশ লাখ টাকার ক্ষতিসাধন হয়েছে। বসতঘর পুড়ে যাওয়ায় ওই পরিবারটি এখন খোলা আকাশের নিচেই বসবাস করছেন। এ ঘটনায় বুধবার সন্ধ্যায় ঝষিকেশ মন্ডল বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

খবর পেয়ে বুধবার সকালে চিতলমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু সাঈদ ক্ষতিগ্রস্থ ঝষিকেশের বাড়ি পরিদর্শন করে ঘর তৈরির জন্য তাৎক্ষণিকভাবে চার বান্ডিল ঢেউটিন বিতরণ করেছেন।

ক্ষতিগ্রস্থ ঝষিকেশ মন্ডল স্থানীয় সাংবাদিকদের জানান, দীর্ঘদিন ধরে প্রতিবেশী ফারুক শেখ’র সঙ্গে তার জমি নিয়ে বিরোধ চলছে। তারা তাকে ভিটামাটি থেকে উৎখাত করতে পাঁচটি মিথ্যা মামলা দিয়েছে। তার মধ্যে তিনি তিনটায় বেকসুর খালাস পেয়েছেন। আরও দুটি মামলা বিচারাধীন।

প্রতিদিনের মত তিনি ও তার স্ত্রী রাতে খেয়ে ঘুমিয়ে পড়েন। রাত আনুমানিক দেড়টার দিকে একদল দুর্বৃত্ত তার বাড়িতে ঢুকে ঘরে বাইরে থেকে তালা দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। আগুন দেখতে পেয়ে সে ও তার স্ত্রী ঘুম থেকে উঠে দরজা ভেঙ্গে বাইরে আসেন। আগুনের লেলিহান শিখায় তার দুটি বসত ঘর ও পাশের সুনীল মন্ডলের একটি রান্নাঘর পুড়ে সম্পূর্ণ ভষ্মিভূত হয়ে গেছে। এতে তার সব মালামাল পুড়ে অন্তত দশ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। তার প্রতিপক্ষ ফারুক ও নরেশ বিভিন্ন সময়ে তাকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছে। তারা পরিকল্পিতভাবে পুড়িয়ে হত্যা করতে তার ঘরে আগুন দিয়েছে বলে তিনি অভিযোগ করেন।

চিতলমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অনুকুল চন্দ্র বলেন, বুধবার সন্ধ্যায় ঝষিকেশ মন্ডল বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। কারা এই বাড়িতে আগুন দিয়েছে তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

তবে চিতলমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আবুসাঈদ বলেন, আগুনে পুড়ে ক্ষতিগ্রস্থ ঝষিকেশ মন্ডলের বাড়ি পরিদর্শন করেছি। বসতঘর তুলতে তাকে চার বান্ডিল টিন দেওয়া হয়েছে। তার বাড়িতে কারা এই আগুন দিয়েছে তা তদন্ত করতে পুলিশকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।  এ বিষয়ে কথা বলতে ফারুক শেখ ও নরেশ গোসাই এর সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করে তাদের পাওয়া যায়নি।


প্রচ

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71