রবিবার, ২৪ মার্চ ২০১৯
রবিবার, ১০ই চৈত্র ১৪২৫
 
 
চুয়েটে ‘সিভিল ডে-২০১৮’ উদ্যাপিত
প্রকাশ: ০৫:৪৩ pm ১৯-০৭-২০১৮ হালনাগাদ: ০৫:৪৩ pm ১৯-০৭-২০১৮
 
চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি
 
 
 
 


চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট)-এ ‘টেকসই উন্নয়নের জন্য পুরকৌশল’ শ্লোগানে “সিভিল ডে-২০১৮” উদ্যাপিত হয়েছে। সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং (পুরকৌশল) বিভাগের আয়োজনে ৪৪তম (‘১৩ ব্যাচ) ব্যাচের বিদায় উৎসব উপলক্ষে দিবসটির আয়োজন করা হয়। 

 

বৃহস্পতিবার (১৯ জুলাই) পুরকৌশল ভবনের সামনে থেকে সকাল ১১টায় আনন্দ র‌্যালির মাধ্যমে দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালার উদ্বোধন করেন চুয়েটের মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম। এ সময় র‌্যালিতে শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ চুয়েট পরিবারের বিপুল সদস্য অংশগ্রহণ করে। 

এ উপলক্ষে চুয়েট কেন্দ্রীয় অডিটরিয়ামে আয়োজিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম। পুরকৌশল বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. মোঃ মইনুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সাবেক উপাচার্য ও পুরকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, পুরকৌশল অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. মোঃ আব্দুর রহমান ভূঁইয়া এবং ছাত্রকল্যাণ উপ-পরিচালক অধ্যাপক ড. জি.এম সাদিকুল ইসলাম। এতে আরো বক্তব্য রাখেন পুরকৌশল বিভাগের ‘১৩ ব্যাচের কোর্স কো-অর্ডিনেটর ও সহকারী অধ্যাপক মোহাম্ম আলতাফ হোসাইন, রয়েল সিমেন্ট লিমিটেডের উপ-মহাব্যাবস্থাপক জনাব মোঃ দাউদ করিম, শিক্ষার্থীদের পক্ষে ‘১৪ ব্যাচের সায়মা জাহিন এবং ‘১৫ ব্যাচের জুবায়ের তাকীব। অনুষ্ঠানের শুরুতে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং-এর বর্তমান অগ্রগতি ও ভবিষ্যৎ সম্ভাবনা নিয়ে একটি ভিডিওচিত্র উপস্থাপন করা হয়। এরপর ‘টেকসই উন্নয়নের জন্য পুরকৌশল’ এই প্রতিপাদ্যের উপর কী-নোট স্পীকার হিসেবে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন পুরকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. মোঃ জাহাঙ্গীর আলম। 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক মোহাম্মদ রফিকুল আলম বলেন, বর্তমানে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারদের কাজের ব্যাপ্তি ও পরিসর অনেক বেড়েছে। সিভিল ইঞ্জিনিয়ার মানেই আগে ভাবা হতো ভবন ও অবকাঠামো নির্মাণ। কিন্তু বর্তমান বাস্তবতায় পরিবেশ, জলবায়ু, টেকসই উন্নয়নসহ অনেক বড় বড় ক্ষেত্র তৈরি হয়েছে। তিনি আরো বলেন, চুয়েট থেকে পাস করা সিভিল ইঞ্জিনিয়াররা দেশের পাশাপাশি এখন বৈশ্বিক চাহিদা মেটাতে ভূমিকা রাখছেন। পরিবর্তনশীল বিশ্বের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় চুয়েটের শিক্ষার্থীরা আরো বেশি অবদান রাখবেন বলেও আমরা আশা করছি। পরে বিদায়ী শিক্ষার্থীদের হাতে তিনি সম্মাননা স্মারক তুলে দেন। 

এদিকে সিভিল ডে-২০১৮ উপলক্ষে পুরকৌশল বিভাগের সেমিনার কক্ষে বিকাল ৪ ঘটিকায় ৪৪তম ব্যচের বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়। পরে সন্ধ্যা ৭ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় অডিটরিয়ামে শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। 


নি এম/রাশেদুল

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71