মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০১৯
মঙ্গলবার, ৪ঠা আষাঢ় ১৪২৬
 
 
ছয়দিনেও মা বাবা মেয়ে খুনের রহস্যের কিনারা হয়নি
প্রকাশ: ০৪:০৫ pm ০৭-০৮-২০১৭ হালনাগাদ: ০৪:০৯ pm ০৭-০৮-২০১৭
 
পটুয়াখালী প্রতিনিধি
 
 
 
 


পুলিশ আলামতের জন্য রক্ত রেখে দিয়েছে। বসতঘর থেকে সেই রক্ত চারদিকে গন্ধ ছড়াচ্ছে। পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজেলার ছৈলাবুনিয়া গ্রামে গিয়ে এ দৃশ্য দেখা গেছে। এদিকে ঘটনার ছয় দিন পার হলেও মা, বাবা ও মেয়েকে কুপিয়ে হত্যার রহস্য উদ্ঘাটন করতে পারেনি পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ১ আগস্ট গভীর রাতে ছৈলাবুনিয়া গ্রামে মা পারভীন বেগম (৫৫), বাবা দেলোয়ার হোসেন মোল্লা (৬৫) ও মেয়ে কাজলী আক্তারকে (১৫) কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এ খুনের পর পুলিশ প্রথম থেকে কোনো কিনারা করতে পারছিল না।

গলাচিপার আমখোলার মুদিরহাট থেকে প্রায় তিন কিলোমিটার দুর্গম পথ পেরিয়ে ছৈলাবুনিয়া গ্রামে গিয়ে দেখা গেছে, নারী-পুরুষ সবার মধ্যে গ্রেপ্তার আতঙ্ক বিরাজ করছে। গ্রামের বিভিন্ন বয়সের ব্যক্তিদের সঙ্গে এ নিয়ে কথা বলার চেষ্টা করলে তারা এড়িয়ে গেছে। গ্রামে পুলিশ পাহারা অব্যাহত রয়েছে।

স্থানীয়রা জানায়, খুন হওয়া দেলোয়ার মোল্লা বংশের। এঁদের পাশাপাশি প্রায় ৩০টি ঘর রয়েছে।

ওই সব ঘরে বসবাসকারী পরিবারের সংখ্যা অর্ধশতাধিক। সবার মুখ ভয় ও আতঙ্কে বন্ধ। এক বৃদ্ধ বলেন, ‘বাবা কোন কথা কোন হানে কইয়া আবার কেডা বিপদে পড়বে। কেউ কিছু কয় না।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও গলাচিপা থানার ওসি (তদন্ত) মো. সাইদুল ইসলাম বলেন, ‘এ হত্যার সঙ্গে ১১ ফেব্রুয়ারি এসএসসি পরীক্ষার্থী শফিক হত্যা মামলার আসামিরা জড়িত নাকি তৃতীয় কোনো পক্ষ জড়িত, তদন্তের কিনারায় চলে এসেছি। দুই থেকে তিন দিনের মধ্যে রহস্য উন্মোচিত হবে। অপরাধীরা শনাক্তপ্রায়। এ মুহূর্তে কোনো তথ্য প্রকাশ করা যাবে না। ’

নি এম’

 

 

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71