মঙ্গলবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
মঙ্গলবার, ৭ই ফাল্গুন ১৪২৫
 
 
জামিন পেয়ে জান্নাতুলকে প্রাণনাশের হুমকি যৌতুকলোভী স্বামীর
প্রকাশ: ০১:৩৭ pm ১০-০৩-২০১৮ হালনাগাদ: ০৯:৩৮ am ১১-০৩-২০১৮
 
ময়মনসিংহ প্রতিনিধি
 
 
 
 


ময়মনসিংহ ১নং আমলী আদালতের সিনিয়র জুডিসিয়াল মাসুদুল হকের আদালতে ৭ মার্চ জামিন না মঞ্জুরের পর একই দিন বিকালে জেলা ও দায়রা জজ আদালত থেকে জামিন পাওয়ার পর যৌতুক লোভী জাহাঙ্গীর আলম বিবাদী জান্নাতুল মাওয়াকে মামলা তুলে নেয়ার ও জীবননাশের হুমকি দিয়েছে। এমনাবস্থায় বাদী জান্নাতুল মেওয়া চরম নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছে।

সুত্র জানায়, ৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ সালে উপজেলা ভালুকার পারুলদিয়া জামিরাপাড়ার আবুল কাশেমের ছেলে জাহাঙ্গীর আলমের সঙ্গে ময়মনসিংহ শহরের আবুল বাশার মানিকের মেয়ে জান্নাতুল মাওয়ার  ৫ লাখ টাকা দেনমোহরে বিবাহ হয়। বিয়ের পর থেকে জাহাঙ্গীর আলম যৌতুকের জন্য নানাভাবে চাপ সুষ্টি এবং জান্নাতুলকে মারধর করে। জান্নাতুলকে নানাভাবে নির্যাতনে তীব্র মানসিক যন্ত্রণা অস্থির করে তোলে। এরই মাঝে গত ২৩/৯/১৭ ইং জাহাঙ্গীর আলম জান্নাতুল মাওয়ার শহরের বাসায় এসে সাড়ে ৪ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে। টাকা না পেয়ে স্ত্রী জান্নাতুলকে মারধর করে এবং গলাটিপে হত্যার চেষ্টা চালায়। 

এব্যাপারে  জান্নাতুল মাওয়া ময়মনসিংহের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ১৯৮০ সানের যৌতুক নিরোধ আইনের ৪ ধারায় সি আর মোঃ নং- ৮০১/১৭ মামলা করে। এই মামলায় গত ৭/৩/১৭ইং ১নং আমলী আদালতের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদুল হকের আদালতে হাজির হয়ে বিবাদী জাহাঙ্গীর ৭/৭/২০১৭ ইং বাদী জান্নাতুলকে তালাক দিয়েছে মর্মে আদালতকে জানায়। অথচ ১০/৭/২০১৭ ইং বিবাদী বিসিএস পরীক্ষার আবেদনে সে বিবাহিত এবং স্ত্রীর নাম জান্নাতুল মাওয়া উল্লেখ করে। আদালত দুপক্ষের আইনজীবীদের বক্তব্য শুনে বিবাদী জাহাঙ্গীরের অস্থায়ী জামিনে থাকার আদেশ বাতিল ও স্থায়ী জামিনের আবেদন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন। ঐ দিনই বিকালে বিবাদীপক্ষ জেলা ও দায়রা জজ বাহাদুরের আদালতে ফৌজদারী মিস জামিনের দরখাস্ত দাখিল (নং১০৫৪/২০১৮) করে হাজতী আসামী প্রার্থীর পক্ষে জামিনের প্রার্থনা তৎসহ অন্তবর্তী কালীন জামিনের প্রার্থনা করে। একইসঙ্গে আরেক আবেদনে বিবাদী পক্ষ স্থায়ী জামিন প্রার্থনা করে। জেলা ও দায়রা জজ দুপক্ষের আইনজীবিদের বক্তব্য শুনে বিবাদী জাহাঙ্গীরের জামিন মঞ্জুর করে। 

১নং আমলী আদালতে জামিন বাতিলের পর উচ্চ আদালত থেকে জামিন নিয়ে ক্ষমতার দম্ভ দেখিয়ে বলে তুই (বাদী) আমাকে একদিনও জেল খাটাতে পারবি না। তুই মামলা প্রত্যাহার কর, নতুবা আমি তোকে দেখে নিব।

আরএনপি/বিএম/

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71