বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮
বৃহঃস্পতিবার, ১লা অগ্রহায়ণ ১৪২৫
 
 
জার্মান সংস্থাটি প্যাডসর্বস্ব ভুয়া সংগঠন : হাছান মাহমুদ
প্রকাশ: ০৯:২২ pm ২৮-০৩-২০১৮ হালনাগাদ: ০৯:২২ pm ২৮-০৩-২০১৮
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


স্বৈরতান্ত্রিক দেশের তালিকায় বাংলাদেশের নাম অন্তর্ভূক্ত করায় জার্মানি গবেষণা সংস্থাটির সমালোচনা করে আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, জার্মানি সংগঠনটি একটি প্যাড সর্বস্ব ভূয়া সংগঠন। ওয়েব সাইটই হচ্ছে তাদের ঠিকানা। এটি বাংলাদেশের উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হওয়ার খবরকে ম্লান করার জন্য বিএনপি-জামায়াতের ষড়যন্ত্রের অংশবিশেষ ছাড়া অন্য কিছু নয়। 

বুধবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের একাংশ আয়োজিত বিএনপি-জামায়াতের দেশবিরোধী ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে সমাবেশ ও মানববন্ধনে হাছান মাহমুদ এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, ওই সংগঠনটির চিন্তায় মিয়ানমার এলো না! যে দেশে লাখ লাখ মানুষকে দেশান্তরি করেছে, যে দেশে গণতন্ত্র বলতে কিছুই নাই। থাইল্যান্ডও এলো না। আফ্রিকার বহু দেশ যেখানে কথা বলার কোনো স্বাধীনতা নাই, গণতন্ত্র তো দূরে থাক বাকস্বাধীনতাও নাই- সেসব দেশের নামও আসলো না। 

হাছান মাহমুদ বলেন, মির্জা ফখরুল, মওদুদসহ বিএনপির অনেক নেতা আছে যারা রাজনৈতিক কাক ছাড়া অন্য কিছু নয়। জিয়াউর রহমান ক্ষমতার উচ্ছিষ্ট বিলিয়ে রাজনৈতিক কাকদের সমন্বয়ে বিএনপি গঠন করেছিলেন। বিএনপিতে অনেক নেতা আছে যারা বাইচান্স বিএনপি অথবা বাই এপিডেন্ট বিএনপি। আবার অনেকেই আওয়ামী লীগের মনোনয়ন না পেয়ে বিএনপি হয়েছে।

তিনি বলেন, বিএনপি এখন দুর্নীতিবাজদের পুনর্বাসন কেন্দ্রে পরিণত হয়েছে। তাদের গঠনতন্ত্রের সাত ধারা বাতিলের মাধ্যমে তারা দুর্নীতির দায়ে সাজাপ্রাপ্তদের দলের নেতা হওয়ার ব্যবস্থা করেছে। দুর্নীতিবাজদের জন্য এটি একটি সুখবর। তাদের বর্তমান রাজনীতি হচ্ছে দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত হয়ে কারাগারে দণ্ড ভোগ করা খালেদা জিয়া এবং তার ছেলে যিনি দুর্নীতির দায়ে দশ বছরের সাজাপ্রাপ্ত এই দু'জনকে রক্ষা করা।

'খালেদা জিয়াকে সঙ্গে নিয়েই বিএনপি নির্বাচনে যাবে'- বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুলের এমন বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, আমরাও চাই তারা খালেদা জিয়াকে নিয়ে নির্বাচন করুন। এজন্য জোর আইনিপ্রক্রিয়ার মাধ্যমে তাকে মুক্ত করার চেষ্টা করুন। তবে বিএনপির বর্ণচোরা আইনজীবীদের নিয়ে সেই চেষ্টা সফল হবে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে।

আয়োজক সংগঠনের সহ-সভাপতি চিত্রনায়ক ড্যানি সিডাকের সভাপতিত্বে সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন সাবেক বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক, ফালগুনী হামিদ, হাবিবুর রহমান প্রমুখ।

আরপি

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71