শনিবার, ২০ জুলাই ২০১৯
শনিবার, ৫ই শ্রাবণ ১৪২৬
 
 
ঝালকাঠিতে সরকারি খাল দখল করে দালান নির্মাণ
প্রকাশ: ০৫:১০ pm ২১-০৮-২০১৭ হালনাগাদ: ০৫:১০ pm ২১-০৮-২০১৭
 
ঝালকাঠি প্রতিনিধি :
 
 
 
 


ঝালকাঠি সদর উপজেলার নবগ্রাম কৃষি ব্যাংকের সামনে সরকারি খালের মধ্যে পিলার দিয়ে দালান নির্মাণ করা হচ্ছে।

বিষয়টি ঝালকাঠির অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোঃ জাকির হোসেন অবগত হয়ে সদর উপজেলা ভূমি কর্মকর্তাকে ভাঙার নির্দেশ দিয়েছেন। রবিবার দুপুরে মুঠোফোনে তিনি এ নির্দেশ দেন। 

সরেজমিনে দেখা গেছে, নবগ্রাম বাজার থেকে বিনয়কাঠি ভাড়ানি খাল দখল করে বাসস্ট্যান্ড ব্রিজ থেকে নবগ্রাম বড় ব্রিজের মাঝ বরাবরে কৃষি ব্যাংকের সামনে ৩ টি ও বাসস্ট্যান্ড ব্রিজের পূর্ব পাশ সংলগ্ন ১ টি পাকা দালান নির্মাণ করা হচ্ছে। যার কোনটা খালের অর্ধেক এবং এক তৃতীয়াংশ পরিমাণ দখল করেই তৈরী হচ্ছে। 

ভবন মালিকরা হলেন, হাসান হাওলাদার, কবির মল্লিক ও রুস্তম আলী ব্যাপারী। স্থানীয়দের অভিযোগ, ইউনিয়ন তহশীলদার ভূমি মালিকদের সাথে যোগসাজসে নীরব ভূমিকায় রয়েছেন। স্থানীয়দের পক্ষ থেকে জনৈক রাহাত হোসেন নামে একজনে সদর উপজেলা ভূমি অফিসার বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। 

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, পানি উন্নয়ন বোর্ডের অধীনে কুড়িয়ানা-বরিশাল-কড়াপুর খাল হতে আটঘর-স্বরুপকাঠি পর্যন্ত বিভিন্ন ব্যবসায়ীরা ট্রলার ও নৌকা-যোগে মালামাল বহন করে ব্যবসা করে আসতেছে। নবগ্রাম কৃষি ব্যাংকের সামনে রাস্তার পাশে সরকারি খাল দখল করে পাকা ভবন নির্মাণের কাজ চলছে। তাই খালটি যোগাযোগ ও মালামাল পরিবহনের জন্য অবৈধ দখল মুক্ত করা অতীব জরুরী। 

নবগ্রাম ইউনিয়নের তহশীলদার হুমায়ুন কবীর জানান, নবগ্রাম বাসস্ট্যান্ড ব্রিজ থেকে বড় ব্রিজ পর্যন্ত কয়েটি পাকা ভবনের কাজের শুরুতেই সদর উপজেলা ভূমি অফিসকে লিখিতভাবে অবহিত করা হয়েছে। 

রবিবার দুপুরে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) এর নির্দেশে সহকারী কমিশনার ভূমি (এসিল্যান্ড) ফারজানা ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। সোমবার সার্ভেয়ার এসে খাল মেপে ভবনের যতটুকু সরকারী খালের মধ্যে রয়েছে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন।
স্থানীয় পর্যায়ে সবকিছু দেখেও না দেখার অভিনয় করে চলতে হয় বলেও মন্তব্য করেন তিনি। 

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোঃ জাকির হোসেন জানান, বিষয়টি জেনে আমি সদর উপজেলা ভূমি কর্মকর্তাকে সরেজমিন পরিদর্শন করে কার্যকরী ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিয়েছি।

এ/এসএম

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71