মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০১৯
মঙ্গলবার, ১০ই বৈশাখ ১৪২৬
সর্বশেষ
 
 
টানা ৫৮ ঘণ্টা চুমু খেয়ে বিশ্বরেকর্ড
প্রকাশ: ০৮:৪৭ pm ০৫-০৯-২০১৭ হালনাগাদ: ০৮:৪৭ pm ০৫-০৯-২০১৭
 
 
 


ভালোবাসার প্রতিযোগিতায় শীর্ষে নাম তুলে ফেলেছে ব্যাংককের এক যুগল। চুমু খেয়ে নাম লিখিয়েছে গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে। টানা ৫৮ ঘণ্টা ৩৫ মিনিট ৫৮ সেকেন্ড লিক লক করে চুমু খেয়েছিল তারা।

২০১৩ সালের ভ্যালেন্টাইনস ডে-তে এটাই ছিল তাদের একে অপরকে দেওয়া সেরা উপহার। সামাজিকতার বাঁধা সেদিন তাদের সামনে পাত্তা পায়নি। তাদের নাম একাচাই ও লক্ষ্মণা তিরানারত।

তবে কোনও পথই কুসুম পরিপূর্ণ হয় না। ভালোবাসার ক্ষেত্রে তো নয়ই। চুমু নিয়েও তাই হয়েছিল প্রতিযোগিতা। এই প্রতিযোগিতায় তাদের সঙ্গে ছিল প্রায় ১৪ জন প্রেমিক-প্রেমিকা। সকাল ৬ টা থেকে শুরু হয়েছিল প্রতিযোগিতা। প্রেমিক-প্রেমিকাকে উত্সাহ দিতে বাজানো হয়েছিল রোম্যান্টিক গান।

পুরস্কার হিসেবে তারা পেয়েছিল ৫০ হাজার থাই ভাট ও ১ লাখ টাকার থাই ভাটের ২টি হীরের রিং। ডলারে যার দাম সেদিন ছিল ১ হাজার ৬০৬ ও ৩ হাজার ২১৩ মার্কিন ডলার।

প্রতিযোগিতা যখন, তখন নিয়মকানুন তো থাকবেই। ছিলও। সবচেয়ে বড় নিয়ম ছিল প্রেমিক বা প্রেমিকা একবার, কিছুক্ষণের জন্য হলেও ঠোঁট সরাতে পারবে না। খিদে পেলে খাওয়াকেও গিলে ফেলতে হবে। এমনকী স্ট্র দিয়ে জলও খাওয়া যাবে না। তার থেকেও বড় ব্যাপার চুমু খাওয়ার সময় বসা বা শোয়া যাবে না। এমনভাবে ক্রমাগত দাঁড়িয়ে থেকে চুমু খাওয়া নেহাত সোজা কথা নয়। কিন্তু প্রেম বোধহয় মানুষকে সব সহ্য করিয়ে দেয়।

এর আগে দীর্ঘতম চুমুর বিশ্বরেকর্ড ছিল এক জার্মান যুগলের হাতে। তাঁদের নাম নিকোলা মাতোভিক ও ক্রিস্টিনা রেইনহার্ট। ২০০৯ সালে রেকর্ড গড়েছিলেন তাঁরা। সময় ছিল ৩২ ঘণ্টা ৭ মিনিট ১৪ সেকেন্ড।

এসএম

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71