রবিবার, ২৬ মে ২০১৯
রবিবার, ১২ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬
 
 
টেলিটকের জন্য বরাদ্দ, সারাদেশে থ্রি-জি আসছে
প্রকাশ: ০১:৪২ am ২১-০৬-২০১৬ হালনাগাদ: ০১:৪২ am ২১-০৬-২০১৬
 
 
 


ঢাকা : বেসরকারি মোবাইল অপারেটরদের সাথে পাল্লা দিতে থ্রি-জি নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণ করছে টেলিটক। রাষ্ট্রায়াত্ব এই মোবাইল অপারেটর কোম্পানির জন্য ৬৭৫ কোটি টাকা ব্যয়ে একটি প্রকল্প হাতে নিয়েছে সরকার।

এর মাধ্যমে টেলিটকের থ্রি-জি নেটওয়ার্ক সারাদেশে ছড়িয়ে পড়বে। একই সঙ্গে যেসব জায়গায় থ্রি-জি সেবা চালু রয়েছে তার মান আরও উন্নত হবে।

পরিকল্পনা কমিশন সূত্র জানায়, আজ মঙ্গলবার সকাল ১০টায় জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় ‘৩জি প্রযু্ক্তি চালু করণ ও ২.৫জি নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণ (ফেস-১) প্রকল্পটি চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য উপস্থাপন করা হচ্ছে।

রাজধানীর শেরে বাংলানগরে এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিতব্য এ সভায় সভাপতিত্ব করবেন প্রধানমন্ত্রী এবং একনেক চেয়ারপারসন শেখ হাসিনা।

কমিশন সূত্রে জানা গেছে, প্রকল্পটির আওতায় থ্রি-জি নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণের জন্য আনুষাঙ্গিক যন্ত্রপাতিসহ দেশব্যাপী ১২০০টি বেইজ স্টেশন স্থাপন করা হবে।

এছাড়া ৫০০টি ২.৫জি বিটিএস স্থাপনের মাধ্যমে সেবার মান উন্নয়ন করা হবে। একই সঙ্গে যেসব জায়গায় থ্রি-জি চালু রয়েছে সেখানে আধুনিক প্রযুক্তির (এইচএসপিএ+) প্ল্যাটফর্ম স্থাপন হবে। এতে করে বিদ্যমান থ্রি-জি সেবার সক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে।

টেলিটকের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করা শর্তে বলেন, ‘প্রকল্পটিতে টেলিটকের পক্ষ থেকে ৬৮ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হচ্ছে। বাকি টাকা সরকারের নিজস্ব অর্থায়ন থেকে ব্যয় হবে।’

তিনি বলেন, ‘২০১৭ সালের ডিসেম্বর নাগাদ এই প্রকল্পটি বাস্তবায়নের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। কাজ শেষ হলে নতুন গ্রাহকের সংখ্যা বাড়বে এবং বিদ্যমান ৩জি ও ২.৫জি সেবার মান আরও উন্নত হবে।’

জানা গেছে, বেসরকারি মোবাইল কোম্পানিগুলোর সাথে প্রতিযোগিতায় টেলিটক পেরে উঠছে না। টেলিটকের থ্রিজি সেবা চালু থাকলে গ্রাহক বাড়ছে না উল্ঠো কমছে।

কিন্তু বেসরকারি মোবাইল কোম্পানিগুলোর ইন্টারনেট বিল টেলিটকের চেয়ে অনেক বেশি। কয়েকটি কোম্পানি টেলিটকের তুলনায় দ্বিগুণ হারে ইন্টারনেট বিল রাখছে। এই অবস্থায় ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নে সরকার টেলিটকের নেটওয়ার্ক কার্যক্রম ও ইন্টারনেট সেবার মান বাড়ছে।

এ বিষয়ে পরিকল্পনা কমিশনের ভৌত অবকাঠামো বিভাগের সদস্য খোরশেদ আলম চৌধুরী বাংলামেইলকে বলেন, ‘গুরুত্ব বিবেচনায় প্রকল্পটি একনেকে অনুমোদনের জন্য সুপারিশ করা হয়েছে। অনুমোদন পেলে টেলিটক কোম্পানি প্রকল্পটি বাস্তবায়নের দায়িত্ব পাবে।’

এইবেলাডটকম/পিসি

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71