রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮
রবিবার, ৮ই আশ্বিন ১৪২৫
 
 
ঠাকুরগাঁওয়ে পর্যাপ্ত বৃষ্টির অভাবে আমন চাষ ব্যাহত
প্রকাশ: ০৮:২১ pm ৩০-০৭-২০১৭ হালনাগাদ: ০৮:২১ pm ৩০-০৭-২০১৭
 
ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি :
 
 
 
 


দেশের দক্ষিন-মধ্যাঞ্চল বন্যার পানিতে টুইটম্বুর হলেও উত্তরের জনপদ ঠাকুরগাঁওয়ে দেখা দিয়েছে খরা। ভরা বর্ষা মৌসুমে দাবদাহে শুকিয়ে যাচেছ খাল-বিল, নদী-নালা।

পর্যাপ্ত বৃষ্টি না হওয়া আমন ধানের চারা রোপন করতে পারছেনা এলাকার কৃষক। বিঘা-বিঘা জমি অনাবাদি পড়ে আছে। দেশী মাছের প্রজনন বিঘ্ন হচেছ। অন্যদিকে পাট চাষীরা বিপাকে পড়েছে ।

সদর উপজেলার বেগুনবাড়ি ইউনিয়নের সৈয়দপুর শালের হাট গ্রামের কৃষক ল্যুফর রহমান বলেন, বীজতলার বয়স বাড়ছে উপায় না দেখে তিনি সেচ দিয়ে চারা রোপন করছেন। ওই কৃষকের মত এলাকার শত-শত কৃষক শ্যালোপাম্প বসিয়ে আবাদ শুরু করেছেন ।

কিন্তু সেচ দিয়ে চারা গাছ বাঁচাতে হিমশিম খাচেছ অনেক কৃষক। সীমান্ত উপজেলা বালিয়াডাঙ্গীর ভান্ডারদহ গ্রামের গিয়াসউদ্দিন জানায় তিনি ৬ বিঘা জমিতে আমন চাষ করেন। কিন্তু মৌসুমের শুরুতে দাবদাহ দেখা দিয়েছে। ছিটেফোটা বৃষ্টি হলেও এতে তেমন উপকার হচেছ না । তিনি বলেন, ফসল বাঁচাতে হাঁস-মুরগি, গরু-ছাগল বিক্রি করে সেচ দিচেছন আমন ক্ষেতে। পাশের গ্রামের হোসেন আলী বলেন, ১লিটার তেলের দাম ৭০ টাকা। এ ভাবে খরা থাকলে ধান বাঁচানো যাবে না। তিনি বলেন পাট চাষ করে বিপদে পড়তে হয়েছে। পানির অভাবে পাট পচাঁনো যায় না ।

কৃষি বিভাগ জানিয়েছে, চলতি মৌসুমে জেলায় ১ লাখ ৩৫ হাজার ৭ শ ৪৩ হেক্টর জমিতে আমন চাষের লক্ষ্যমাত্রা ধার্য করা হয়েছে। এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত  শতকরা ৪৭ ভাগ জমিতে আবাদ হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট বিভাগ  জানায়। তবে  কৃষক জানিয়েছে, এখন পর্যন্ত সেচ দিয়ে আবাদ  হয়েছে প্রায় ৪০ থেকে ৪৫ ভাগ জমিতে। জুনের মাঝামাঝিতে বৃষ্টির পরিমান কমতে থাকায় আমন ধানের চারা রোপনে বিড়ম্বনায় পড়ছে চাষিরা। বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ জানায়, আমন আবাদে সেচ কাজে ব্যবহার হচেছ ৯ হাজার ৬ শ’৭০টি গভীর- অগভীর নলকুপ।

জেলা মৎস্য কর্মকর্তা ড. নিয়াজউদ্দিন বলেন, পর্যাপ্ত বৃষ্টি না হওয়ায় নদী-নালা, খাল-বিলে পানি শুকিয়ে গেছে । এতে দেশী মাছের বংশ বিস্তার হচেছ না । ফলে মাছের সংকট দেখা দিয়েছে। কৃষি সম্প্রসারন অধিদফতরের উপ-পরিচালক কে এম মাউদুদুল ইসলাম বলেন, সময় আছে আমন চারা রোপনের।

এসএম

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71