শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮
শুক্রবার, ৬ই আশ্বিন ১৪২৫
 
 
ডাক বিভাগকে গতিশীল করার উদ্যোগ ইসির
প্রকাশ: ০৫:৪৫ pm ২৮-১১-২০১৭ হালনাগাদ: ০৫:৪৫ pm ২৮-১১-২০১৭
 
এইবেলা ডেস্ক:
 
 
 
 


ডাক বিভাগেরও এখন ব্যস্ততা নেই। বলা যায়, চিঠি শূন্য এখন ডাকঘর। আধুনিক প্রযুক্তির ভিড়ে ঝিমিয়ে পড়া রাষ্ট্রীয় এই প্রতিষ্ঠানটিতেই এবার প্রাণ ফিরিয়ে আনার উদ্যোগ নিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র (স্মার্টকার্ড) কিংবা ভোটার জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) সারাদেশে আনা-নেয়ার ক্ষেত্রে বার্তা বাহক হিসেবে ডাক বিভাগকে কাজে লাগানোর কথা ভাবছে সংস্থাটি। বাঙালির বিজয়ের মাস ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে এ সংক্রান্ত চুক্তির প্রক্রিয়া সম্পন্ন হতে পারে। চুক্তিতে স্বাক্ষর করবেন এনআইডির ডিজি অথবা তার প্রতিনিধি এবং একইভাবে পোস্ট অফিসের ডিজি ও তার মনোনীত প্রতিনিধি। আর এটি হলে ঝিমিয়ে পড়া পুরনো ব্যবস্থাটি এই প্রক্রিয়াতে গতি ফিরে পাবে, এমনটাই আশা করছেন নীতি-নির্ধারকরা।

জানা গেছে, এই কাজটি সম্পন্ন করতে প্রতিটি কার্ডের পেছনে এনআইডির ব্যয় হবে সর্বোচ্চ ৩০ টাকা। এর মধ্যে পোস্ট অফিসের নিট ফি ১৯ টাকার মধ্যে রেজিস্ট্রেশন ফি ৪ টাকা ও নিশ্চিতকরণ ফি ১৫ টাকা। এ ছাড়া প্রথম প্রতি ৪০০ গ্রামের জন্য ১০ টাকা এবং পরবর্তী প্রতি ৪০-২০০ গ্রাম পর্যন্ত ফি ২ টাকা অর্থাৎ একটি কার্ডের পেছনে ব্যয় হবে ৩০ টাকা। কারণ ৪০০ গ্রামের একটি কার্ডের বান্ডেলে ন্যূনতম ২৫-৩০টির মতো কার্ড থাকবে।

এ বিষয়ে এনআইডির ডিজি ব্রি. জে. মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম বলেন, জাতীয় পরিচয়পত্র বহনে ডাক বিভাগকে সম্পৃক্ত করা হচ্ছে। আধুনিক অনেক পার্সেল সার্ভিস থাকার পরও এ মাধ্যমকে বেছে নেয়ার পেছনে একটাই উদ্দেশ্য রাষ্ট্রীয় স্বার্থ। কারণ এনআইডির কার্যক্রম চলমান। প্রযুক্তির ভিড়ে হারিয়ে যাওয়া প্রাচীন এই মাধ্যমটি পরিচয়পত্র আদান-প্রদানের মধ্য দিয়ে তাদের কাজে গতিশীলতা তৈরি করবে। এতে সরকারের রাজস্ব আয়ও বাড়বে। অচিরেই এ সংক্রান্ত চুক্তির কার্যক্রম দৃশ্যমান হবে বলেও জানান তিনি।

আরপি

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71