শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০
শুক্রবার, ১০ই আশ্বিন ১৪২৭
সর্বশেষ
 
 
ঢাকায় ভারতীয় নারী জঙ্গি গ্রেফতার
প্রকাশ: ০৯:৪৩ pm ১৮-০৭-২০২০ হালনাগাদ: ০৯:৪৩ pm ১৮-০৭-২০২০
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


গ্রেফতার হলেন ভারতীয় নারী জঙ্গি। নাম, আয়েশা জান্নাত মোহনা ওরফে জান্নাতুল তাসনিম ওরফে প্রজ্ঞা দেবনাথ। তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাত দিনের হেফাজতের আবেদন জানিয়ে শুক্রবার আদালতে তোলা হলে দু’ দিনের পুলিশ হেফাজত মঞ্জুর করা হয়। বাংলাদেশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম-এর  (সিটিটিসি, CTTC) সহকারী কমিশনার শেখ ইমরান হোসেন এই খবর দিয়েছেন।  

জেএমবির নারী বাহিনীর সদস্য আয়েশা জান্নাত মোহনা ওরফে জান্নাতুত তাসনিমকে গ্রেফতারের পর বিস্মিত হয়েছেন বাংলাদেশের গোয়েন্দারা। জন্মসূত্রে হিন্দু ধর্মাবলম্বী প্রজ্ঞা দেবনাথ ধর্ম পরিবর্তন করে নতুন নাম নিয়েছেন আয়েশা জান্নাত মোহনা ওরফে জান্নাতুত তাসনিম।

২৫ বছর বয়সি এই জঙ্গির কাছ থেকে ভারতীয় পাসপোর্ট উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে গোপনে বিভিন্ন মাদ্রাসায় শিক্ষকতার কাজ করছিলেন। ভারতীয় নাগরিক প্রজ্ঞাকে গ্রেফতার করে সিটিটিসি ইউনিট।

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের হুগলি জেলার ধনিয়াখালি থানার পশ্চিম কেশবপুর গ্রামে হিন্দু ঘরে জন্ম নেওয়া প্রজ্ঞা দেবনাথ ক্লাস নাইনে পড়ার সময়ে ধর্মান্তরিত হয়ে নতুন নাম গ্রহণ করেন। অনলাইনে তার সঙ্গে আলাপ হয় জেএমবির নারী শাখার প্রধান আসমানি খাতুন আসমার। তারপরে তিনিও জেএমবিতে নাম লেখান।

বাংলাদেশ পুলিশের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, এরপর তিনি কখনও ঢাকা, কখনও পশ্চিমবঙ্গে থাকছিলেন। পশ্চিমবঙ্গ থেকে সংগঠনের চাঁদা তুলে বাংলাদেশ নিয়ে আসতেন তিনি। ওমান প্রবাসী এক বাংলাদেশিকে তিনি টেলিফোনে বিয়ে করেছেন। পুলিশ জানিয়েছে, তার প্রবাসী স্বামীও জঙ্গি সংগঠনটিকে মোটা টাকা দেয়।

শুক্রবারই ঢাকার সদরঘাট এলাকা থেকে মোহনাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ভুয়া নথি দিয়ে বাংলাদেশে নাগরিক পরিচয়পত্রও তৈরি করেন তিনি।

উল্লেখ্য, জঙ্গি সংগঠন জামাতুল মুজাহিদিন বাংলাদেশ (জেএমবি, JMB) এ দেশে নিষিদ্ধ ঘোষিত হয় ২০০৫ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি। এর পরই সংশ্লিষ্টরা চলে যায় আত্মগোপনে। আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর চোখকে ফাঁকি দিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে নাশকতা চালায় তারা। আইনশৃঙ্খলাবাহিনীও তাদের বিরুদ্ধে একের পর এক অভিযানে চালায়। বিশেষ করে ২০১৬ সালে গুলশান হামলার পর আইনশৃঙ্খলাবাহিনী একের পর এক জঙ্গি ডেরায় অভিযান চালায়। আটক হতে থাকে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠনের সদস্যরা। ধৃতদের মধ্যে নারী সদস্যও রয়েছে।

আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর টানা অভিযানে কোণঠাসা হয়ে পড়ে জঙ্গিরা। হারিয়ে ফেলে নাশকতার ক্ষমতা। কিন্তু বর্তমানে অনলাইনে জঙ্গি কর্মকাণ্ডে তৎপর রয়েছে নারী-পুরুষ সদস্যরা। তথ্যপ্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে তাদের আটক করতে সমর্থ হচ্ছে আইনশৃঙ্খলাবাহিনীও। সেই ধারাবাহিকতাতেই এ বার গ্রেফতার হল ভারতীয় নারী জঙ্গি।

নি এম/
 

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 

 

E-mail: info.eibela@gmail.com

a concern of Eibela Ltd.

Request Mobile Site

Copyright © 2020 Eibela.Com
Developed by: coder71