সোমবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
সোমবার, ৬ই ফাল্গুন ১৪২৫
 
 
ঢাবিতে টাকার অভাবে ভর্তি হতে পারছেন না বিষ্ণু মোহন
প্রকাশ: ১০:৫৯ am ০৩-১০-২০১৮ হালনাগাদ: ১১:০৩ am ০৩-১০-২০১৮
 
লালমনিরহাট প্রতিনিধি
 
 
 
 


ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ পেলেও বড় বাঁধা হয়ে দাঁড়িয়েছে টাকা। কোথায় পাবেন টাকা, কে দিবেন টাকার যোগান এমন শঙ্কায় দিন কাটছে লালমনিরহাটের সাধারণ দর্জি ঘরের সন্তান বিষ্ণু মোহনের। 

বিষ্ণু মোহন আদিতমারী উপজেলার সারপুকুর ইউনিয়নের মসুরদৈলজোড় (পাকুয়াটারী) গ্রামের দর্জি ধনেশ্বর রায়ের ছেলে।
 
জানা গেছে, বিষ্ণু মোহন এ বছর ঢাবির ‘খ’ ইউনিটে ১৯৩৭ তম স্থান পেয়েছেন। তিনি ভবিষ্যতে বিসিএস ক্যাডার হতে চান। কিন্তু উচ্চ শিক্ষা গ্রহণের শুরুতেই বড় বাঁধা হয়ে দাঁড়িয়েছে টাকা। ঢাবিতে ভর্তির সুযোগ পেলেও অর্থের যোগানের জন্য মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরতে শুরু করেছেন তিনি।
 
গত সোমবার কথা হয় অদম্য মেধাবী বিষ্ণু মোহনের সঙ্গে। এ সময় তিনি বলেন, ‘আমি লেখাপড়া শিখে বিসিএস ক্যাডার হয়ে মানুষের সেবা করতে চাই। কিন্তু বড় বাধা হয়েছে অর্থ। এখন কী করব বুঝে উঠতে পারছিনা।’
 
সাধারণ দর্জি ঘরের সন্তান বিষ্ণু মোহন ২ ভাইয়ের মধ্যে সবার ছোট। বড় ভাই প্রাণীবিদ্যা বিভাগে অনার্স শেষ বর্ষের ছাত্র। তার লেখাপড়া চলছে প্রাইভেট পড়িয়ে। আর বাবার সামান্য আয়েই এক বেলা খেয়ে না খেয়ে চলছে তাদের সংসার। জমি বলতে মাত্র বাড়িভিটার ৫ শতক জমি। বিষ্ণু মসুরদৈলজোড় উচ্চবিদ্যালয় থেকে এসএসসিতে মানবিক বিভাগে জিপিএ-৪.৫৬ ও বেগম কামরুনেছা ডিগ্রি কলেজ থেকে এইচএসসিতে একই বিভাগ থেকে জিপিএ-৪.৫৮ পেয়েছেন।
 
উচ্চ শিক্ষা গ্রহণে ঢাবিতে ভর্তির সুযোগ পাওয়া প্রসঙ্গে বিষ্ণু মোহনের বাবা ধনেশ্বর রায় বলেন, ‘ছেলেটাকে পড়ানোর মত কোন উপায় আমার নেই। বাজারে খোলা জায়গায় কাপড় সেলাই করে যে টাকা পাই তা দিয়ে সংসারে চলে না। সমাজের বিত্তশালীদের তার পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান তিনি।
 
বিষ্ণু মোহনের সঙ্গে যোগাযোগের মোবাইল নম্বর ০১৭৯২৮৩৬৬১৫।
 
নি এম/

 

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71