বৃহস্পতিবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
বৃহঃস্পতিবার, ৯ই ফাল্গুন ১৪২৫
 
 
তাড়া খেয়ে মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে পড়ে প্রেমিকার মৃত্যু
প্রকাশ: ০৪:৩২ pm ০৮-০৯-২০১৭ হালনাগাদ: ০৪:৩২ pm ০৮-০৯-২০১৭
 
ঝালকাঠি প্রতিনিধি :
 
 
 
 


প্রেমিকের সাথে কুয়কাটা ভ্রমণ থেকে ফেরার পথে বখাটেদের তাড়া খেয়ে মোটর সাইকেল থেকে ছিটকে পড়ে ঝালকাঠির নলছিটির এক ছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। বুধবার বেলা আড়াইটার দিকে বরগুনা জেলাধীন আমতলী উপজেলার কুয়কাটা-পটুয়াখালী মহাসড়কের কলংক নামক স্থানে র্দুঘটনা ঘটে।

নিহত স্বর্ণা অক্তার ইতি (১৮) জেলার নলছিটি উপজেলার রানাপাশা ইউনিয়নের রানাপাশা গ্রামের শাহজাহান শিকদারের মেয়ে। স্বর্না বরিশাল পলিটেকনিক ইনস্টিউটের ২০১৬-১৭ শিক্ষা বর্ষের তৃতীয় সেমিস্টারের ছাত্রী। 

কলাপাড়া থানার পরিদর্শক (ওসি) জিএম শাহ্নেওয়াজ  মুঠোফোনে জানান, বন্ধু পরিচয় দেয়া রুমান হাওলাদার নামের ঝালকাঠির এক যুবকের মোটর সাইকেলে চড়ে কুয়াকাটা থেকে ফিরছেল স্বর্ণা। পথিমধ্যে বন্ধু’র চলন্ত মোটর সাইকেল থেকে পড়ে যায় সে। তাৎক্ষনিক তাকে কলাপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। 

বৃহস্পতিবার দুপুরে ময়নাতদন্ত শেষে  মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। রুমান ঝালকাঠি সদর উপজেলার পোনাবালিয়া ইউনিয়নের হাজরাগাতি গ্রামের মজিদ হাওলাদারের ছেলে। সে ঢাকার তিতুমীর সরকারি কলেজের ছাত্র বলে জানাগেছে। 

কলংক নামক দুর্ঘটনাস্থল বরগুনা জেলার আমতলি থানার পরিদর্শক (ওসি) মো. শহিদুল্লাহ মুঠোফোনে জানান, রুমানকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আমতলি থানায় আটক রাখা হয়েছে। আটক রুমান দাবী করেছে কলাপাড়ার কয়েকজন বখাটে যুবক ফেরার পথে তাদের ধাওয়া করে। এতে মোটর সাইকেল দ্রুত চালাতে গিয়ে দুর্ঘটনা ঘটে। 

মেয়েটির পরিবার অভিযোগ করলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান আমতলি থানার পরিদর্শক (ওসি) মো. শহিদুল্লাহ। তবে কলাপাড়া থানার পরিদর্শক শাহ্নেওয়াজ  বলেন, ধাওয়া নয় ওদের মোটর সাইকেল থামিয়ে কয়েক যুবক জিজ্ঞাসাবাদ করেছিল বলে শুনেছি। তাদেরকে খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে। অসাবধানতা কিংবা ভ্রমণে ক্লান্ত হয়ে গাড়িতেই মেয়েটি ঘুমিয়ে পড়ায় এ ঘটনা ঘটেতে পারে বলেও ধারণা করা হচ্ছে, বলেন পরিদর্শক শাহ্নেওয়াজ। 

বৃহস্পতিবার বিলেকে নিহত ছাত্রীটির মরদেহ ঝালকাঠি পৌঁছালে গ্রামজুড়ে শোকের ছায়া নেয়ে আসে। 

নিহত স্বার্ণার চাচা রাজ্জাক শিকদার বলেন, এটা একটা দুর্ঘটনা। এ ব্যপারে আমাদের কোন অভিযোগ নেই। রিপোর্ট লেখাকালীন নিতের নামাজের জানাযার প্রস্তুতি চলছিল। জানাজা শেষে তাকে পরিবারিক গোরস্থানে দাফন করা হবে বলে চাচা রাজ্জাক শিকদার জানান।

আর/এসএম

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71