বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮
বৃহঃস্পতিবার, ৫ই আশ্বিন ১৪২৫
 
 
তিরুপতি মন্দিরের স্বর্ণদ্বার খুলতেই ঘটল বিপত্তি
প্রকাশ: ০২:২৩ pm ১৯-১২-২০১৭ হালনাগাদ: ০২:২৩ pm ১৯-১২-২০১৭
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


তিরুমালা বেঙ্কটশ্বর মন্দির তিরুপতি মন্দির, তিরুপতি বালাজি মন্দির নামেও পরিচিত৷ বিষ্ণু দেবতাকে এখানে পুজা করা হয়৷ কথিত আছে, কলিযুগের দু:খ ও যন্ত্রনা থেকে মানবজাতিকে রক্ষা করার জন্য বিষ্ণু তিরুমালায় বেঙ্কটেশ্বর রূপে অবতীর্ণ হয়েছিলেন৷ কিছুদিন আগেই এই মন্দিরটি দর্শন করতে সুদূর শ্রীলঙ্কা থেকে ভারতে এসেছিলেন শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট এবং তাঁর স্ত্রী৷

তিরুমালা বেঙ্কটেশ্বর মন্দিরের প্রধান দেবতা বেঙ্কটেশ্বরের একটি মূর্তি এবং আরও বেশ কিছু ঠাকুরের মূর্তি রয়েছে মন্দিরের গর্ভগৃহে৷ স্বর্ণদ্বার দিয়ে মন্দিরের গর্ভগৃহে প্রবেশ করতে হয়৷ বঙ্গারুবাকিলি ও গর্ভগৃহের মধ্যে আরও দুটি দরজা রয়েছে৷ তবে, তীর্থযাত্রীদের গর্ভগৃহের ভিতরে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়না৷ কিন্তু সম্প্রতি শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্টের জন্য খোলা হয় সেই দরজা৷ শুধু তাই নয়৷ নির্ধারিত সময়ের থেকে পাঁচ মিনিট আগে খুলে দেওয়া হয় সেই দরজা৷ আর তাতেই বিপত্তি৷ চাবি ঢোকাতে গিয়ে আচমকাই তালার ভিতরে আটকে যায় চাবিটি৷ এমনকি সেটি বের করতে গেলেই ভেঙে যায় ওটি৷ পরে কাটারি নিয়ে তালাটি ভেঙে ফেলে মন্দির কর্তৃপক্ষ এবং মন্দিরের ভিতরে প্রবেশ করে৷

সেদিন সুপ্রভাতাম সেবা দেখতেই এসেছিলেন তারা৷ দিনের শুরুতে ভগবানকে সেবার মাধ্যমেই ঘুম থেকে তোলা হয় বলে কথিত আছে৷ সারাদিনে এই একবারই দরজা খোলা হয়৷ শুধুমাত্র পুরোহিতদের জন্যই৷ কিন্তু সেদিন শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট আসার জন্য খুলে দেওয়া হয় দরজা৷ আর তার জেরেই ঘটে যায় বিপত্তি৷ মন্দির কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানানো হলে তারা জানায়, তালাটি বেশ পুরোনো৷ সেই কারণে কোনওকারণে মরচে পড়ে গেছে তালাতে৷ তাই ভেঙে গিয়েছে৷ কিন্তু যে তালাটি রোজই খোলা হয়৷ সেটি কিভাবে হঠাৎ ভেঙে গেল?

মন্দিরের বাইরে থেকে মন্দিরের গর্ভগৃহে প্রবেশের জন্য তিনটি দরজা রয়েছে৷ প্রথম প্রবেশদ্বারটি নাম মহাদ্বারম বা পদিকাবলি৷ দ্বিতীয় প্রবেশ দ্বার রৌপ্যদ্বার এবং সর্বশেষ দ্বারটির নাম স্বর্ণদ্বার৷

নি এম/

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71