শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮
শনিবার, ৭ই আশ্বিন ১৪২৫
 
 
ত্বকের সমস্যা সমাধানে ফল
প্রকাশ: ১১:১০ am ০৯-১১-২০১৭ হালনাগাদ: ১১:১৩ am ০৯-১১-২০১৭
 
এইবেলা ডেস্ক: 
 
 
 
 


ত্বককে ভাল রাখতে হলে সবার আগে আমাদের খাদ্যাভ্যাসে পরিবর্তন আনতে হবে। ত্বক এবং শরীরকে ভাল রাখতে হলে সবার আগে খাদ্যতালিকা থেকে বাদ দিতে হবে অতিরিক্ত মিষ্টি খাবার, ভাজাভুজি, অতিরিক্ত মশলাদার খাবার, স্ন্যাক্স ইত্যাদি। আর এর জায়গায় কিছু ফল খান। যা আপনার শরীর এবং ত্বক দুটোই যত্ন নেবে।

নিচের ফল গুলো আমাদের ত্বক সুন্দর রাখতে সাহায্য করে-

১. পেঁপে: 
পেঁপে ত্বককে উজ্জ্বল এবং সমস্যার হাত থেকে রক্ষা করতে পারে। আসলে পেঁপের মধ্যে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এ অথবা বিটা ক্যারোটিন থাকে, যা ত্বকের জন্য খুবই উপকারি। আসলে পেঁপে দিয়ে নানারকম ওষুধ, সাবান, ক্লিঞ্জার, ক্রিম তৈরি করা হয়।

২. কলা:
কলার মধ্যে প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম থাকে, যা ত্বককে আদ্র এবং উজ্জ্বল রাখতে সাহায্য করে। সেই সঙ্গে যে কোনোরকম ত্বকের সমস্যার হাত থেকে রক্ষা করে। কলা ত্বকের স্থিতিস্থাপকতা বজায় রাখতে সাহায্য করে, বলিরেখা এবং ভাঁজ পরার হাত থেকে রক্ষা করে।

৩. কিউয়ি:
কিউয়ির মধ্যে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি থাকে। কমলালেবুর মধ্যে যে পরিমাণ ভিটামিন থাকে,তার থেকেও অনেক বেশি থাকে এই ফলটির মধ্যে। প্রতি ১০০ গ্রাম কিউয়ির মধ্যে ৯৮ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি থেকে। অ্যাসকরবিক অ্যাসিড, যা ঠাণ্ডা লাগার হাত থেকে রক্ষা করে। একইসঙ্গে বৃদ্ধি করে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা। কিউই ত্বকের যত্নেও দারুণ কাজ দেয়।

৪. আপেল:
ত্বকের যত্নে আপেল খুবই উপাকারি। কারণ আপেলের মধ্যে প্রচুর পরিমাণে ম্যালিক অ্যাসিড পাওয়া যায়। আপেলের মধ্যে আলফা হাইড্রোক্সিল অ্যাসিড পাওয়া যায়। ম্যালিক অ্যাসিড ত্বককে সুস্থ, উজ্জ্বল এবং তারুণ্যে ভরপুর করে রাখে। সেই সঙ্গে নতুনভাবে ত্বকের কোষ গঠনে সহায়তা করে। আপেলের মধ্যে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার থাকে, যা ত্বককে ভিতর থেকে পুষ্টি যোগায়, কোলোন পরিষ্কার করে এবং পেট পরিষ্কার রাখতে সহায়তা করে।

৫. লেবু: 
লেবুর মধ্যে সাইট্রিক অ্যাসিড থাকে, যা ত্বককে উজ্জ্বল করতে সাহায্য করে, এছাড়াও, ত্বকে কোনোরকম দাগ থাকলে তা দূর করতে পারে এবং লোমকূপের মুখ পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করে লেবুর রস। তাই তো পরিষ্কার ত্বক পেতে হলে, এক গ্লাস গরম জলে মধু এবং লেবুর রস মিশিয়ে খালি পেটে পান করুন।

৬. অ্যাভোকাডো:
অ্যাভোকাডোতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে পুষ্টিগুণও। অ্যাভোকাডোর মধ্যে বায়োটিন বা ভিটামিন বি৭ উপস্থিত থাকে, যা কোষের উৎপাদনে সাহায্য করে। এছাড়াও, চুল এবং নখের বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। এছাড়াও এর মধ্যে থাকে ভিটামিন ই, যা ত্বককে যে কোনও রকম ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করে।

৭. আনারস:
ব্রোমেলেইন হল একধরণের প্রদাহ বিরোধী উৎসেচক, যা মানবশরীরকে নানাভাবে উপকার করে। এই উৎসেচক ত্বকেরও দারুণভাবে উপকার করে। অনেকেই আনারসের রস মুখে ব্যবহার করে থাকেন, যার ফলে মরা কোষ পরিষ্কার হয়ে যায় এবং ত্বক উজ্জ্বলতা লাভ করে। আনারসের মধ্যে এছাড়াও আছে নানা রকমের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, যা ফ্রি র‍্যাডিকালের দ্বারা ত্বকের ক্ষতি থেকে রক্ষা করে।

এসকে

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71