সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮
সোমবার, ৯ই আশ্বিন ১৪২৫
 
 
দক্ষিণ এশিয়ার সেরা বিনিয়োগ গন্তব্য বাংলাদেশ
প্রকাশ: ১০:৪০ am ০৫-০২-২০১৮ হালনাগাদ: ১০:৪০ am ০৫-০২-২০১৮
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


বিনিয়োগের ক্ষেত্রে দক্ষিণ এশিয়ায় সবচেয়ে আকর্ষণীয় গন্তব্য বাংলাদেশ। এ দেশে বিদেশী বিনিয়োগের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ও সুরক্ষা দেয়া হচ্ছে। সরকার অর্থনৈতিক অঞ্চল ও হাইটেক পার্ক নির্মাতাদের জন্য ১২ বছর এবং অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিনিয়োগকারীদের ১০ বছর পর্যন্ত কর অবকাশ সুবিধা দিচ্ছে। এছাড়া অভ্যন্তরীণ বিশাল বাজার, সুবিধাজনক ভৌগোলিক অবস্থান, কম খরচে দক্ষ শ্রমিক, ব্যবসাবান্ধব পরিবেশ ও সুষম অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির জন্য বাংলাদেশ বিদেশী বিনিয়োগের সেরা গন্তব্যে পরিণত হয়েছে। ভারতের আসামে অনুষ্ঠিত ‘অ্যাডভান্টেজ আসাম’ শীর্ষক দুই দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক বিনিয়োগ সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনের একটি অধিবেশনে গতকাল এসব কথা বলেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু।

শিল্পমন্ত্রী ‘বাংলাদেশে বিনিয়োগ সম্ভাবনা’ শীর্ষক ওই অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন। গৌহাটির সুরুষাই স্টেডিয়াম কমপ্লেক্সে অনুষ্ঠিত অধিবেশনে বাংলাদেশের বিনিয়োগ পরিস্থিতি তুলে ধরেন ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বারস অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম। বাংলাদেশের ব্যবসায়ী ও শিল্পোদ্যোক্তা প্রতিনিধি দলের সদস্যরা আলোচনায় অংশ নেন।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, স্থল সীমানার কারণে উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যসহ ভারত ও আসিয়ান অঞ্চলে পণ্য পরিবহনের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ কৌশলগত সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছে। বাংলাদেশ, ভুটান, নেপাল ও ভারতের মধ্যে মোটরযান চুক্তি স্বাক্ষরের ফলে দেশগুলোর মধ্যে ট্রানজিট এবং যাত্রী ও মালামাল পরিবহনের নিরবচ্ছিন্ন সুযোগ তৈরি হয়েছে। এ উদ্যোগ আগামী দিনে দক্ষিণ এশিয়ার অর্থনৈতিক একীভূতকরণে গেম চেঞ্জার হিসেবে ভূমিকা রাখবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

আমির হোসেন আমু বলেন, আসিয়ান জোটভুক্ত অঞ্চলের দেশগুলোর মধ্যে আন্তঃবাণিজ্যের পরিমাণ ২৫ শতাংশ হলেও দক্ষিণ এশীয় দেশগুলো এক্ষেত্রে পিছিয়ে রয়েছে। এ অঞ্চলের দেশগুলোর আন্তঃবাণিজ্যের পরিমাণ মাত্র ৫ শতাংশ। তার মতে, বাংলাদেশ, ভুটান ও নেপালের (বিবিএন) মধ্যে শিল্পায়ন ও বিনিয়োগ সম্পর্ক জোরদারের মাধ্যমে দক্ষিণ এশিয়ায় দ্বিপক্ষীয় ও বহুপক্ষীয় বাণিজ্য সম্প্রসারণের সুযোগ রয়েছে। আঞ্চলিক অর্থনৈতিক উন্নয়নের অমিত সম্ভাবনা কাজে লাগাতে বাংলাদেশ নেপাল ও ভুটানের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করতে আগ্রহী।

এর আগে শিল্পমন্ত্রী শনিবার অ্যাডভান্টেজ আসামের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে গেস্ট অব অনার হিসেবে বক্তব্য রাখেন। তিনি বলেন, দেশী-বিদেশী বিনিয়োগকারীদের জন্য বাংলাদেশ ১০০টি বিশেষায়িত অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তুলছে। এসব অর্থনৈতিক অঞ্চলে সরকার বিনিয়োগকারীদের জন্য বিশেষ প্রণোদনা ও সুবিধা দিচ্ছে। তিনি ভারতের, বিশেষ করে উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোর উদ্যোক্তাদের এসব অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিনিয়োগের আহ্বান জানান।

বিএম/

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71