সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮
সোমবার, ৫ই অগ্রহায়ণ ১৪২৫
 
 
দাঁতের শিরশির বন্ধে করনীয়
প্রকাশ: ০৩:৪২ pm ০৯-০৪-২০১৮ হালনাগাদ: ০৩:৪২ pm ০৯-০৪-২০১৮
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


সেনসিটিভিটি বা শিরশির অনুভূতি হওয়া একটি প্রচলিত রোগ। এতে খাবার গ্রহণ বা তরলজাতীয় কোনো কিছু খাওয়া, ব্রাশ করা, এমনকি শ্বাস নেওয়ার সময় অস্বস্তিকর অবস্থার সৃষ্টি হয়ে থাকে। গরম, ঠাণ্ডা, মিষ্টি, টক জাতীয় খাবার খেলে দাঁতে শিরশির অনুভব হয়। এটি অনেক সময় সহনীয় হলেও বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই তীব্র হয়। আমরা খালি চোখে দাঁতের যে অংশ দেখতে পাই তার নাম এনামেল। এনামেলকে দাঁতের আবরণ বলা যেতে পারে। এটি দেহের সবচেয়ে শক্ত আবরণ। বিভিন্ন কারণে এই এনামেল ক্ষয়ে গিয়ে দাঁতে শিরশির অনুভূতি বা সেনসিটিভিটি তৈরি হয়। আসুন এখন জেনে নিই দাঁতে শিরশির অনুভূতি বা সেনসিটিভিটি প্রতিরোধের উপায়গুলো কি কি।

কারণ
দাঁতের এনামেল ক্ষয়
দাঁতে গর্তের সৃষ্টি
অনেক দিনের পুরোনো ফিলিং

দাঁতের শিরশির বন্ধে সঠিক যত্ন

নিয়মিত দাঁত ব্রাশ করলে দাঁতের ফাঁকে কোনো জীবাণু তৈরি হতে পারবে না। রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে এবং সকালে নাশতা করার পরে দাঁত ব্রাশ করুন নিয়মিত।
দাঁত ব্রাশ করার জন্য সেনসিটিভিটি রোধ করে—এমন টুথপেস্ট ব্যবহার করুন। এমনটাই মত প্রায় ৯ শতাংশ ডেন্টিস্টের। তাঁরা মনে করেন, এমন টুথপেস্ট আপনার দাঁত শিরশিরের যন্ত্রণা থেকে রেহাই দেবে অনেকটা।
ব্রাশ করুন আস্তে আস্তে। দাঁতের ওপর চাপ দেবেন না। জোরে ব্রাশ করাটা দাঁতের শিরশির ভাব আরও বাড়িয়ে দেবে। হালকা কোমল ব্রাশ ব্যবহার করুন। এতে সমস্যা থেকে রেহাই মিলবে অনেকটা।
যেকোনো অ্যাসিটিক খাবার খাওয়ার সময়ও একটু সচেতন হোন। যেমন: ফলের জুস, কোমল পানীয়—এসব দাঁতের এনামেল নষ্ট করে ফেলে। তাই এসব পান করার পরই দাঁত পরিষ্কার করে ফেলুন।
আপনার যদি নিয়মিত দাঁতে দাঁত ঘষা বা দাঁত চেপে রাখার অভ্যাস থাকে, তাহলে সেটা ত্যাগ করাই ভালো।
অনেকেই দাঁতের শিরশির করা অংশটি ব্রাশ করে না। কিন্তু এতে সমস্যা বেড়ে প্রকট আকার ধারণ করতে পারে।
অন্তত ছয় মাস পরপর ডেন্টিস্টের কাছে দাঁত পরীক্ষা করাতে হবে।

নি এম/

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71