সোমবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
সোমবার, ৬ই ফাল্গুন ১৪২৫
 
 
দিনাজপুরে এ বছরও টমেটোর বাম্পার ফলন
প্রকাশ: ০৩:৪২ am ৩০-০৪-২০১৭ হালনাগাদ: ০৩:৪২ am ৩০-০৪-২০১৭
 
 
 


দিনাজপুর : দিনাজপুরে এ বছরও টমেটোর বাম্পার ফলন হয়েছে। কিন্তু লাভজনক ফসল হিসেবে গ্রীস্মকালীন টমেটো আবাদ করে দাম না পেয়ে হতাশ দিনাজপুরের টমেটো চাষিরা।  

ব্যবসায়ীরা বলছেন, চাহিদার তুলনায় আমদানি বেশি হওয়ায় দাম কম। পাশাপাশি বেড়েছে যানবাহন ভাড়া। উত্তরাঞ্চলের বৃহৎ গ্রীস্মকালীন টমেটোর উৎপাদন দিনাজপুরে। জেলার সদর, ফুলবাড়ী, চিরিরবন্দর, বিরল, কাহারোল, বোচাগঞ্জসহ বিভিন্ন উপজেলায় ব্যাপক গ্রীস্মকালীন নাভি জাতের টমেটোর চাষ হয়। জানুয়ারির শেষে এই টমেটো আবাদের পর ক্ষেত থেকে তা তোলা শুরু হয় মার্চ মাসের শেষের দিকে। প্রতি মৌসুমে দিনাজপুর জেলার কাউগাঁ, গাবুড়া ও পাঁচবাড়ী বাজারে কয়েক কোটি টাকার টমেটো বেচাকেনা হয়। এসব টমেটো যায় ঢাকা, চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায়।  

টমেটো চাষিরা বলেছেন, এবার ফলন ভালো হয়েছে। তবে গত বছরের তুলনায় এবার দাম অনেক কম। ফলন ভালো হলেও উৎপাদন খরচই উঠছে না। টমেটো চাষিদের দাবি, অন্যান্য ফসলের মত টমেটোরও ক্রয়মূল্য নির্ধারণ করা হোক।  

তাদের মতে সরকারিভাবে টমেটো সংরক্ষণ এবং বিপননের সুষ্ঠু ব্যবস্থা থাকলে এ এলাকার টমেটো সারা বছর দেশব্যাপী সরবরাহ করা যেত। এ সময়ে অনেক টমেটো প্রক্রিয়াজতকরণের সুযোগ না থাকায় নষ্ট হয়ে যায়।  

সরকারসহ বিনিয়োগকারীরা এগিয়ে এসে টমেটোকেন্দ্রীক শিল্প গড়ে তুললে এ অঞ্চলের কৃষকরা যেমন লাভবান হবে, তেমনি বেকার যুবকদের কর্মসংস্থানও ঘটবে। এতে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে গতিশীলতাও বাড়বে।

শহর সংলগ্ন গাবুড়া নদীর তীরে শেখপুরার রাজারামপুরে উত্তরাঞ্চলের সবচেয়ে বড় টমেটোর বাজার। গাবুড়া টমেটো বাজার ইজারাদার মমিনুল ইসলাম বলেন, প্রতিদিন এখান থেকে ৫ থেকে ৬শ’ মেট্রিক টন টমেটো শতাধিক ট্রাকে বিভিন্ন স্থানে পাঠানো হয়।  

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর দিনাজপুরের উপ-পরিচালক গোলাম মোস্তফা বলেন, টমেটোর ফলন গত বছরের তুলনায় এবার বেশ ভালো। দিনাজপুরে এবার ৩ হাজার হেক্টর জমিতে টমেটোর আবাদ হয়েছে। গত বছর আবাদ ছিল ২ হাজার ৮’শ হেক্টর জমিতে।

এইবেলাডটকম /আরডি

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71