বৃহস্পতিবার, ২৭ জুন ২০১৯
বৃহঃস্পতিবার, ১৩ই আষাঢ় ১৪২৬
 
 
দেবী দুর্গা ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি বিকৃত করে ফেইসবুকে পোস্ট দিলেন মো. শাহিন
প্রকাশ: ০৮:৫৯ am ০৫-১০-২০১৭ হালনাগাদ: ০৮:৫৯ am ০৫-১০-২০১৭
 
বরগুনা প্রতিনিধি
 
 
 
 


বরগুনার বামনায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও হিন্দু ধর্মালম্বীদের দেবী মা দুর্গার ছবি বিকৃতি করে বিতর্কিত স্ট্যাটাস দেওয়ার অভিযোগে মো. শাহিন খান (৩২) নামে এক মাহিন্দ্র চালককে গ্রেপ্তার করেছে বামনা থানার পুলিশ।  

মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলার অযোধ্যা গ্রামে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। ওইদিন সন্ধ্যায় তার বিরুদ্ধে বামনা থানার উপ-পরিদর্শক মো. খোকন হাওলাদার বাদি হয়ে তথ্য প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারায় একটি মামলা দায়ের করেন। অভিযুক্ত মাহেন্দ্র চালক উপজেলার রামনা ইউনিয়নের অযোধ্যা গ্রামের হালিম খানের ছেলে। বুধবার তাকে বরগুনা আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। 

বামনা থানা সূত্রে জানা গেছে, অভিযুক্ত মাহেন্দ্র চালক মো. শাহিন খান তার ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডিতে  রবিবার (১লা অক্টোবর) রাত ৮টা ৩৭ মিনিটের সময় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি বিকৃতি করে পাশাপাশি সনাতন ধর্মালম্বীদের দেবী দুর্গা প্রতিমার ছবি বিকৃতিকরে একসাথে জুড়ে পোস্ট দিয়ে একটি স্ট্যাটাস দেয়। পরে ওই বিকৃতি ছবি ও স্ট্যাটাস ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে জনমনে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।  

বামনা ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক বিপ্লব কুমার প্রিন্স এই বিকৃত ছবি ও স্ট্যাটাসের স্ক্রীন শর্ট দিয়ে অভিযুক্তের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিলে বিষয়টি প্রশাসনের নজরে আসে। তার স্ট্যাটাসে সবাই এই ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানায়। পরে বামনা থানাপুলিশ মঙ্গলবার বিকেলে অভিযুক্ত শাহিনকে গ্রেপ্তার করে।  

এ বিষয়ে ইউনিয়ন যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক বিপ্লব কুমার প্রিন্স জানায়, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ছবিকে বিকৃত ও তাদের দেবী দুর্গার প্রতিমা বিকৃত করা কিছুতেই মেনে নেওয়া যায়না।

ছবিটিতে প্রধানমন্ত্রীর ছবি ও দেবী দুর্গা প্রতিমাকে এভাবে বিকৃত করা অবস্থায় দেখে তিনি মেনে নিতে পারেননি। তাই এই ঘটনা যে ঘটিয়েছে তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন তিনি।

বামনা থানার ওসি মো. শাহাবুদ্দিন জানান, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ছবি ও দুর্গা প্রতিমাকে বিকৃত করে ফেসবুকে পোস্ট দেওয়ার অভিযোগে মাহিন্দ্রচালক মো. শাহিন খানের বিরুদ্ধে তথ্য প্রযুক্তি আইনে মামলা নিয়ে বুধবার বরগুনা জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।  

প্রচ

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71