বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮
বুধবার, ১১ই আশ্বিন ১৪২৫
 
 
নাটক করাই বিএনপির চরিত্র : শেখ হাসিনা
প্রকাশ: ১০:৩২ am ২৪-০৭-২০১৮ হালনাগাদ: ১০:৩২ am ২৪-০৭-২০১৮
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


নিজেরা অপরাধ করে আওয়ামী লীগের ওপর দোষ চাপিয়ে নাটক করে বিএনপি। এর মধ্য দিয়ে তারা জাতীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চায় বলে অভিযোগ করেছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের প্রচার চলাকালে ভোটের মাঠে জনগণের কাছে সাড়া না পেয়ে‘ব্লেইম গেম’ শুরু করেছে বিএনপি। সবখানে তারা একটা নাটক করে আন্তর্জাতিকভাবে দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চায়।

সোমবার সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সূচনা বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। 

সভায় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক বিষয় এবং আগামী নির্বাচনী ইশতেহারের প্রস্তুতি নিয়ে আলোচনা হবে বলে বক্তব্যের শুরুতে জানান দলটির সভাপতি শেখ হাসিনা। সভায় আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের প্রায় সবাই উপস্থিত রয়েছেন। 

আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, তিন সিটিতে শান্তিপূর্ণভাবে নির্বাচনী প্রচার চলছিল। হঠাৎ দেখা গেল, রাজশাহীতে বিএনপির মিছিলে ককটেল ফুটল। আমি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে সঙ্গে সঙ্গে নির্দেশ দিলাম; এই ঘটনায় যারা জড়িত তাদের গ্রেফতার করার জন্য। কিন্তু পরে দেখা গেল- তাদের (বিএনপি) নিজেদের ভাষায় বেরিয়ে এলো এটা তারা নিজেরাই করেছে শুধুমাত্র আওয়ামী লীগকে দোষারোপ করার জন্য। তারা যখন নির্বাচনে জনগণের কাছে গিয়ে সাড়া পাচ্ছে না তখন তারা ব্লেইম গেম খেলা শুরু করেছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সবখানে তারা একটা নাটক করে আন্তর্জাতিকভাবে দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চায়। এটা তাদের চরিত্র। সিলেটে যে ঘটনা তারা ঘটিয়েছে, ইতিহাস ঘাঁটলে দেখা যায়, আগুন দেওয়া, বোমা মারা, গ্রেনেড হামলা করা... আমাদের বদরউদ্দিন আহমেদ কামরান বেঁচে গেছে, তার ক্যাম্পে আগুন লাগিয়েছে। এই কামরানকে মারতে দুই-দুইবার তার ওপর হামলা করেছে। সিলেটে কিবরিয়া (সাবেক অর্থমন্ত্রী) সাহবেকে হত্যা করেছে। এভাবে সারা বাংলাদেশে তারা আওয়ামী লীগের অগণিত নেতাকর্মীকে হত্যা করেছে। তিনি আরও বলেন, বিএনপি ঠান্ডা মাথায় মানুষ খুন করতে পারে। আগুন দিয়ে পুড়িয়ে পুড়িয়ে মানুষ মারতে পারে।

বিএনপি শাসনামলে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ওপর অত্যাচার ও নির্যাতনের চিত্র তুলে ধরে শেখ হাসিনা বলেন, দেখা যায় তারাই হত্যাকান্ড চালায়, তারাই প্রচার করে, দৃষ্টি আকর্ষণের চেষ্টা করে... এ ধরনের নাটক করায় তারা যথেষ্ট পারদর্শী।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সমালোচনা করে শেখ হাসিনা বলেন, আর খালেদা জিয়া জেলখানায় খায়-দায়-শুয়ে থাকে, আর যেই মামলার তারিখ আসে সেই অসুস্থ হয়ে যায়। যখনই আদালতে হাজিরার তারিখ পড়ে, তখনই অসুস্থ হয়ে যায়। তাই আদালতের হাজিরার তারিখ এলেই অসুস্থ হয়ে পড়ে, আর হাজিরার তারিখ চলে গেলে আবার ভালো হয়ে যায়।

কারাগারে খালেদা জিয়া সব ধররের সুবিধা পাচ্ছেন জানিয়ে সরকারপ্রধান বলেন, কোনো কিছুর কমতি নেই খালেদা জিয়ার কারাগারে। যা যা চাচ্ছে তা-ই পাচ্ছে। এ রকম আয়েশ করে তো আর কেউ পায়েস খেতে পারে না। সে-ও তো জেলে রেখেছিল, আমাদের সাবেক বিমানবাহিনীপ্রধান জামালউদ্দীন সাহেবকে নিয়ে দুইটা কম্বল দিয়ে ফেলে রেখেছিল। রওশন এরশাদ বা অন্যদের কথা না হয় না-ই বললাম। আর উনি আয়েশ করে থাকেন, আর কোর্টের তারিখ এলেই অসুস্থ হয়ে যান। তা হলে আমাদের কী করার আছে? এই যে নাটুকেপনা করা হচ্ছে এটাও একটা বিষয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এতিমের টাকা মেরে জেলে, আমাদের কাছে মুক্তির দাবি করে তো লাভ নেই; আমরা তো জীবনেও ছাড়তে পারব না যতক্ষণ না কোর্ট অর্র্ডার দেবে। আমাদের বিচার বিভাগ সম্পূর্ণভাবে স্বাধীন। আওয়ামী লীগ সভাপতি আরও বলেন, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের শুধু নয়, এমনকি আমার ছেলেকে পর্যন্ত হত্যা করার ষড়যন্ত্র করেছে সেই আমেরিকায়। চুরি করে দুর্নীতি করে এতো টাকা কামিয়েছে যে সেখানে পর্যন্ত এফবিআই’এর অফিসার পর্যন্ত তারা কিনে ফেলেছে। সেখান থেকে ষড়যন্ত্র করেছে জয়কে তুলে নিয়ে মেরে ফেলার। এইরকম একের পর এক ঘটনা তারা ঘটাচ্ছেই। তিনি বলেন, যতরকম অপকর্ম আছে তারা করে দেশটাকে পিছিয়ে রেখেছিল, আমরা ক্ষমতায় আসার পর বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশের উন্নয়ন তাদের ভালো লাগে না, খারাপ লাগে। বাংলাদেশ যখন এগিয়ে যাচ্ছে বিশ্বব্যাপী সম্মান পাচ্ছে তখন তাদের অন্তর্জ্বালা শুরু হয়েছে।

নি এম/


 

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71