মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ ২০১৯
মঙ্গলবার, ৫ই চৈত্র ১৪২৫
 
 
নিতাই দেবনাথকে হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী যুবলীগ নেতা ছাইদুল হক
প্রকাশ: ১২:৫৪ pm ১৯-০২-২০১৮ হালনাগাদ: ১২:৫৪ pm ১৯-০২-২০১৮
 
কুমিল্লা প্রতিনিধি
 
 
 
 


কুমিল্লার লাকসাম থেকে নিখোঁজের সাত দিন পর নোয়াখালীর চাটখিল থেকে নিতাই চন্দ্র দেবনাথ (৩৬) নামের এক স্বর্ণ ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার সকালে চাটখিলের পশ্চিম দেলিয়াই গ্রামের দর্জিপুকুর থেকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় লাশটি উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় লাকসামের এক যুবলীগ নেতাসহ পাঁচজনকে আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, কুমিল্লার দেবীদ্বারের নারায়ণ চন্দ্র দেবনাথের ছেলে নিতাই চন্দ্র দেবনাথ লাকসাম শহরে একটি বাড়িতে ভাড়া থেকে পাশের মনোহরগঞ্জ উপজেলার আশিরপাড় বাজারে স্বর্ণের ব্যবসা করতেন। ৭ ফেব্রুয়ারি বিকেলে নিজ ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে যাওয়ার পথে নিখোঁজ হন তিনি। পরিবারের লোকজন সম্ভাব্য সব জায়গায় খোঁজ করেও তার সন্ধান পাননি। পরে ১১ ফেব্রুয়ারি নিতাইয়ের ভাই গৌরাঙ্গ দেবনাথ লাকসাম থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। এরপর পুলিশ নিতাই চন্দ্রের মোবাইল ফোনের কল লিস্টের সূত্র ধরে লাকসাম পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সহসভাপতি সাইদুল হক জুয়েলকে আটক করে। জুয়েলের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী লাকসাম থানা পুলিশ মঙ্গলবার রাতে তাকে নিয়ে নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলার খিলপাড়া ইউনিয়নের পশ্চিম দেলিয়াই ও শঙ্করপুর গ্রামে অভিযান চালায়। সেখান থেকে আরও দুই যুবককে আটক করে পুলিশ। তারা হলো পশ্চিম দেলিয়াই গ্রামের দুলালের ছেলে বেলাল ও শঙ্করপুর গ্রামের নুরুল আলমের ছেলে লিটন। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে তারা হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করে। এরপর তাদের দেওয়া তথ্যমতে পরের দিন সকালে পশ্চিম দেলিয়াই গ্রামের দর্জিপুকুর থেকে হাত-পা বাঁধা ও বালুর বস্তা দিয়ে চাপা দেওয়া নিতাই চন্দ্রের লাশ উদ্ধার করা হয়।

লাকসাম সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার নাজমুল হাসান জানান, এই হত্যাকাণ্ডের মূল পরিকল্পনাকারী যুবলীগ নেতা ছাইদুল হক জুয়েল। নিতাই দেবনাথকে মেরে ফেলতে জুয়েল তার পূর্বপরিচিত চাটখিলের বেলালের সঙ্গে ৫০ হাজার টাকায় চুক্তি করে। বেলাল তার অপর সহযোগী জুয়েল, লিটন ও মিলন মিলে চাটখিলের খিলপাড়া ইউনিয়নের অমরপুর গ্রামে নিয়ে গিয়ে নিতাইকে শ্বাসরোধে হত্যা করে। পরে বস্তাবন্দি করে পাশের পরিত্যক্ত পুকুরে বালু চাপা দেয়।

লাকসাম থানার পুলিশ পরিদর্শক আবদুল্লাহ আল মাহফুজ বলেন, নিহত ব্যবসায়ীর ভাই গৌরাঙ্গ দেবনাথ বাদী হয়ে ওই পাঁচজনের বিরুদ্ধে থানায় হত্যা মামলা করেছেন। পুলিশ বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে দেখছে। অপহরণ ও হত্যার সঙ্গে আরও কেউ জড়িত কি-না, তাও তদন্ত করে দেখা হবে।


প্রচ

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71