বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮
বৃহঃস্পতিবার, ১লা অগ্রহায়ণ ১৪২৫
 
 
নিরোধ বিহারী হতভাগ্য বীর মুক্তিযোদ্ধা
প্রকাশ: ০১:৩৩ pm ২১-১২-২০১৭ হালনাগাদ: ০২:২৭ pm ২১-১২-২০১৭
 
মোড়েলগঞ্জে প্রতিনিধি
 
 
 
 


বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জে এক সুবিধা বঞ্চিত এক হিন্দু বীর মুক্তিযোদ্ধা আজ দৃষ্টি ও মানষিক ভারসাম্য হারিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছেন পথে প্রান্তরে।

মহান স্বাধীনতার ৪৬ বছরের শেষ প্রান্তে এসেও স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বাধীন বাংলাদেশে আজো অন্ন বস্ত্র চিকিৎসা খাদ্য ও বাসস্থানের অধিকার থেকে বঞ্চিত মহান মুক্তিযুদ্ধের বীর সেনানীদের দেখা মেলে পথে প্রান্তরে। ক্ষুধা ও দারিদ্রতার কষাঘাতে দৃষ্টি ও মানষিক ভারসাম্যহীন একজন বীর মুক্তিযোদ্ধার দেখা মিলেছে বাগেরহাট জেলার মোড়েলগঞ্জ উপজেলার নিশানবাড়িয়া ইউনিয়নের পশ্চিম আমুড়বুনিয়া গ্রামে। তিনি ওই গ্রামের মৃত বসন্ত গাইনের পূত্র নিরোধ বিহারী গাইন (৮০)। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ শুরু হলে গ্রামের সকলের সাথে তিনিও পালিয়ে ভারতে চলে যান,কিন্তু দেশ মাতৃকার টানে নিরোধ গাইন স্থির থাকতে পারেনি,তিনি যোগ দেন ভারতের টাকি আম বাগানের মুক্তিযোদ্ধা প্রশিক্ষন কাম্পে। 

সেখানে ৯ নং সেক্টর কমান্ডার মেজর এম,এ, জলিল ও আঃ ওয়াদুদ সরদারের নেতৃত্ত্বে প্রশিক্ষন নিয়ে তিনি ৩১ জনের মুক্তিযোদ্ধার একটি দল নিয়ে এসে বাংলাদেশের বাগেরহাট জেলায় পাক সেনাদের সাথে সরাসরি যুদ্ধ করেছেন। বর্তমানে নিরোধ গাইন মানুষিক ও দৃষ্টি ভারসাম্যহীন হওয়ার কারেন মনে করে তার যুদ্ধ কালিন ইতিহাস বলতে না পারলেও ভাঙ্গা ভাঙ্গা কণ্ঠে অশ্রুসিক্ত নয়নে যে টুকু বলেছেন তাতেই শিহরে উঠতে হয়। ভারতে প্রকাশিত মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকায় ( বই নং খন্ড ৬-বই ১৮,ক্রমিক নঙ ৪৫০৩৮। মোড়েলগঞ্জ থানার তালিকার ২৫ নং সিরিয়ালে নিরোধ গাইনের নাম আজো অক্ষত অবস্থায় শোভা পাচ্ছে) যা মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রনালয়ের ওয়েব সাইডেও দেখা যায়। কিন্তু তারপরেও এই মহান বীর যোদ্ধা সরকার প্রদত্ত ভাতা বা অন্যান্য সকল সুযোগ সুবিধা থেকে সম্পুর্ন ভাবেই বঞ্চিত। তার একমাত্র দিনমজুর ছেলে নিধির গাইন জানিয়েছেন তার পিতাকে তালিকাভুক্ত করানোর জন্য বিভিন্ন দপ্তরে ছুটাছুটি করলেও টাকা পয়সা দিতে না পারার কারনে তার নাম তালিকাভুক্ত করানো সম্ভব হয়নি। 

আমুড়বুনিয়া গ্রামের বয়স্ক লোকজনদের মধ্যে শরৎ চন্দ্র মিস্ত্রী,সনাতন ডাকুয়া,ওয়াজেদ আলী মোড়ল,হরেন মজুমদার,শ্যামলাল গাইন,অনিল চন্দ্র গাইন আক্ষেপ করে বলেছেন এই গ্রামে একজন মাত্র প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা নিরোধ গাইন,সরকারের এত সুযোগ সুবিধা থাকার পরেও আজ বীরমুক্তিযোদ্ধা নিরোধ গাইনের পরিবার ক্ষুধা ও দারিদ্রতার ছোবলে তিলে তিলে ধ্বংশের দারপ্রান্তে এসে পৌছেছে,তার স্ত্রী এখন মানুষের বাড়িতে ঝি এর কাজ করে জীবন নির্বাহ করতে বাধ্য হচ্ছে। 

মোড়েলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার জানিয়েছেন বিষয়টি তাদের জানা ছিলো না, তবে যাচাই বাছাই করে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহনের উদ্দেগ নেওয়া হবে।


প্রচ
 

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71