শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮
শুক্রবার, ৬ই আশ্বিন ১৪২৫
 
 
ন্যূনতম মজুরি ১৮ হাজার করার দাবি পোশাক শ্রমিকদের
প্রকাশ: ০৫:৩৫ pm ১৮-০৭-২০১৮ হালনাগাদ: ০৫:৩৫ pm ১৮-০৭-২০১৮
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


পোশাক শ্রমিকদের মজুরি কমানোর চক্রান্ত বন্ধ করে ন্যূনতম মজুরি ১৮ হাজার টাকা ঘোষণার দাবি জানিয়েছে গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট। 

বুধবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্টের আয়োজনে এক বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে এ দাবি জানানো হয়।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, ১৬ জুলাই পোশাক শ্রমিকদের জন্য গঠিত ন্যূনতম মজুরি বোর্ডের তৃতীয় সভায় মালিকপক্ষের প্রতিনিধি ৬ হাজার ৩৬০ টাকা এবং সরকার মনোনীত শ্রমিকপক্ষের প্রতিনিধি ১২ হাজার ২০ টাকা নিম্নতম মজুরি প্রস্তাব করেছেন। মজুরি বোর্ড দাখিলকৃত এই মজুরি প্রস্তাবনায় পোশাক শ্রমিকদের দীর্ঘদিনের দাবি উপেক্ষিত হয়েছে।

মালিকপক্ষের প্রস্তাবনা প্রমাণ করে মজুরি বোর্ড গঠনের জন্য মালিকদের অনুরোধ ছিল প্রকৃতপক্ষে ষড়যন্ত্রের অংশ। কারণ, ২০১৩ সালে পোশাক শ্রমিকদের জন্য নিম্নতম মজুরি ৫ হাজার ৩০০ টাকা ধরে ঘোষিত মজুরি কাঠামোয় প্রতি বছর পাঁচ শতাংশ হারে বৃদ্ধির কথা ছিল। সেই হিসাবে বিদ্যমান মজুরি ৬ হাজার ৪৫০ টাকার বেশি হওয়ার কথা।

তারা বলেন, মালিকদের প্রস্তাবনা যা বেতন বৃদ্ধির পরিবর্তে শ্রমিকদের মজুরি কমানো এবং উস্কানি দিয়ে শ্রমিকদের মধ্যে উত্তেজনা তৈরি করার মাধ্যমে সরকারকে বিভ্রান্ত করে শ্রমিকদের ন্যায্যতা আড়াল করার ষড়যন্ত্রের অংশ।

বক্তারা আরো বলেন, নিম্নতম মজুরি বোর্ড দর কষাকষির জন্য গঠিত হয়নি। নিম্নতম মজুরি বোর্ডের দায়িত্ব হলো শ্রমিকদের জীবনমান উন্নয়নের লক্ষ্যে মজুরি নির্ধারণ করা। তাই জীবনযাপন ব্যয়, মান, সরকারি পে-স্কেল, উৎপাদন খরচ, উৎপাদনশীলতা, কাজের ধরন ঝুঁকি, আর্থ-সামাজিক অবস্থা, শ্রম আইনের নির্দেশনা, আইএলও কনভেনশন অনুসারে মজুরি নির্ধারণের বিবেচ্য বিষয়, প্রতিযোগী দেশে শ্রমিকদের মজুরি বিবেচনা করে শ্রমিকদের নিম্নতম মজুরি ১৮ হাজার টাকা নির্ধারণ করার দাবিতে মজুরি বোর্ডে স্বারকলিপি দেওয়া হয়েছে।

আমরা মনে করি, পে-স্কেল আর রাষ্ট্রায়ত্ত কারখানার শ্রমিকদের জন্য ঘোষিত মজুরি বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক প্রেক্ষাপটে শ্রমিকদের সর্বনিম্ন জীবনমান নির্ধারণের নিম্নতম মানদণ্ড। তাই বাংলাদেশে পোশাক শিল্প বিকাশে দক্ষ শ্রম শক্তি নিশ্চিত করতে পোশাক শ্রমিকদের নিম্নতম মজুরি ১৮ হাজার টাকা হওয়া উচিত।

গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্টের সভাপতি আহসান হাবিব বুলবুলের সভাপতিত্বে সমাবেশে সংগঠনের সহ-সভাপতি খালেকুজ্জামান লিপন, সাধারণ সম্পাদক সেলিম মাহমুদ, যুগ্ম সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, সাংগঠিন সম্পাদক সৌমিত্র কুমার দাস, অর্থ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম শরীফ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


বিডি

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71