সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮
সোমবার, ৫ই অগ্রহায়ণ ১৪২৫
 
 
নড়াইলে হিন্দু বাড়িতে ডাকাতির ঘটনায় দু‘জন আটক
প্রকাশ: ০৬:০৬ pm ২৬-০৭-২০১৮ হালনাগাদ: ০৬:০৬ pm ২৬-০৭-২০১৮
 
নড়াইল প্রতিনিধি:
 
 
 
 


নড়াইলের লোহাগড়া পৌর এলাকার কচুবাড়িয়া গ্রামের মেঘনাথ কুমার দে’র বাড়িতে ডাকাতির ঘটনায় মহিলাসহ আরও দু‘জনকে আটক করেছে লোহাগড়া থানা পুলিশ।

এ সময় তাদের কাছ থেকে ৪ ভরি স্বর্ণালংকার উদ্ধার করা হয়েছে। এ নিয়ে ডাকাতির ঘটনায় ৫ জনকে আটক ও ৫ ভরি ১০ আনা স্বর্ণ উদ্ধার করা হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার বিকালে লোহাগড়া থানার নতুন ভবনের হল রুমে এক প্রেস ব্রিফিং এর মাধ্যমে এ তথ্য জানান নড়াইল জেলার সহকারী পুলিশ সুপার (সদর) মোঃ জালাল উদ্দিন। প্রেস ব্রিফিংয়ে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন লোহাগড়া থানার ওসি প্রবীর বিশ্বাস, ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মনিরুল ইসলাম, এস আই কে এম জাফর আলীসহ অন্যান্য পুলিশ কর্মকর্তারা।

সহকারী পুলিশ সুপার (সদর) মোঃ জালাল উদ্দিন সাংবাদিকদের জানান, ১৯ জুলাই রাতে লোহাগড়া পৌর এলাকার কচুবাড়িয়া গ্রামের মেঘনাথ কুমার দে’র বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। ৮/১০ জনের ডাকাতদল ওই বাড়ি থেকে নগদ ৭০ হাজার টাকা, ২২ ভরি সোনা ও ৪ টি মোবাইল ফোন লুট করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় ২০ জুলাই মেঘনাথ কুমার দে বাদি হয়ে লোহাগড়া থানায় একটি ডাকাতির মামলা দায়ের করেন। যার নং-৩০।

মামলা দায়েরের পর মামলা তদন্তকারী কর্মকর্তা লোহাগড়া থানার এস আই মিল্টন কুমার দেবদাসের নেতৃত্বে এসআই আতিকুজ্জামান, মাহফুজুল হাসান, এএসআই উজ্জলসহ একদল পুলিশ প্রযুক্তির মাধ্যমে ২৩ জুলাই লোহাগড়ার চাচই গ্রামের মশিয়ার মোল্যার ছেলে কিসলু মোল্যা ও রামপুর গ্রাম থেকে বাদশা শেখের ছেলে মিরাজ শেখকে আটক করে। এ সময় তাদের স্বীকারোক্তি মোতাবেক গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার কালিবাড়ি এলাকা থেকে দেড় ভরি লুন্ঠিত স্বর্ণ উদ্ধার করা হয়। পরবর্তীতে, ২৫ জুলাই রাতে লোহাগড়া থানা পুলিশ আবার অভিযান চালিয়ে গোপালগঞ্জ জেলার সদর উপজেলার বোড়াশী গ্রাম থেকে নরেন্দ্রনাথ হীরার ছেলে বিভাস হীরা(৪১) এবং কাশিয়ানী উপজেলার মহেষপুর গ্রাম থেকে নুর ইসলাম ও তার স্ত্রী হাফিজা বেগম ওরফে রুপা(২৮)কে আটক করে।এ সময় রুপার কাছ থেকে ৪ ভরি ২ আনা ওজনের লুন্ঠিত স্বর্ণ উদ্ধার করা হয়। 

প্রেস ব্রিফিং শেষে লোহাগড়া থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) প্রবীর বিশ্বাস উপস্থিত সাংবাদিকদের আরও জানান, চাঞ্চল্যকর এ ডাকাতির ঘটনায় ৮/১০ জন জড়িত বলে তদন্তকালে জানা গেছে। অন্য জড়িতদের আটক ও লুন্ঠিত মালামাল উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

আরএম/বিডি

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71