বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮
বৃহঃস্পতিবার, ৫ই আশ্বিন ১৪২৫
 
 
পরীক্ষা না দিয়ে বিয়ের দাবিতে ছাত্রীর অনশন
প্রকাশ: ০৫:৩৮ pm ০৩-১১-২০১৭ হালনাগাদ: ০৫:৩৮ pm ০৩-১১-২০১৭
 
টাঙ্গাইল প্রতিনিধি:
 
 
 
 


জেএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ না করে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে আমরণ অনশন করছে এক ছাত্রী। প্রেমিকের সঙ্গে বিয়ে দেয়া না হলে সেখানেই আত্মহত্যা করবে বলে হুমকিও দিচ্ছে ওই ছাত্রী। ঘটনাটি ঘটেছে টাঙ্গাইলের মির্জাপুরের আজগানা গ্রামে।

শুক্রবার স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, নাবালিকা ওই ছাত্রীকে নিয়ে তারা বিপাকে পড়েছেন। ঘটনার বিবরণে জানা যায়, উপজেলার আজগানা গ্রামের হেলাল উদ্দিনের কলেজ পড়ুয়া ছেলে মো. রবিনের সঙ্গে বাঁশতৈল ইউনিয়নের নয়াপাড়া গ্রামের আবুল কাশেমের মেয়ে উর্মির সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। উর্মি বাঁশতৈল মো. মনশুর আলী উচ্চবিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী। ১ নভেম্বর থেকে শুরু হওয়া জেএসসি পরীক্ষা দেয়ার কথা ছিল তার। পরীক্ষার দুদিন পূর্বে  ২৯ অক্টোবর প্রেমিক রবিন ও প্রেমিকা উর্মি বাড়ি থেকে পালিয়ে গিয়ে নোটারি পাবলিকে গিয়ে নোটারি করে।

এদিকে পরীক্ষার দিন উর্মির বাবা মেয়েকে কোথাও খুঁজে না পেয়ে জানতে পারেন সে পার্শ্ববর্তী আজগানা গ্রামের রবিনের বাড়িতে গিয়ে বিয়ের দাবিতে অনশন করছে। তিনি বাঁশতৈল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আতিকুর রহমান মিল্টন ও আজগানা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রফিক সিকদারকে সঙ্গে নিয়ে মেয়েকে উদ্ধারের জন্য ওই বাড়িতে যান। কিন্তু উর্মি রবিনদের বাড়িতে ঘরের ভিতর থেকে তালা দিয়ে হাতে দা নিয়ে আত্মহত্যার হুমকি দিচ্ছে। প্রয়োজনে সে নিজেকে শেষ করে দিবে, তবু জেএসসি পরীক্ষা দিবে না এবং বাপের বাড়িতেও ফিরে যাবে না বলে জানিয়েছে।
 
উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইসরাত সাদমীন ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আজগর হোসেন ঘটনা জানতে পেরে ওই বাড়িতে যান। কিন্তু তারাও কোন প্রতিকার করতে না পেরে ফিরে এসেছেন বলে জানা গেছে।

এ বিষয়ে সহকারী কমিশনার (ভূমি) সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, বিয়ের দাবিতে জেএসসি পরীক্ষার্থী ওই ছাত্রী উর্মি অনড় অবস্থান নিয়েছে। তাকে কোনো অবস্থায় বাল্যবিয়ের ব্যাপারে বোঝানো যাচ্ছে না।

আরডি/

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71